বারাকপুরে স্কুল গেট ও পাঁচিল ভাঙল সেনা, প্রতিবাদে পথ অবরোধ অভিভাবকদের

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর:  বুলডোজার চালিয়ে বারাকপুরের একটি স্কুলের পাঁচিল ও গেট ভেঙে দিল সেনাবাহিনী। ঘটনার পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। প্রায় আধঘণ্টা বারাকপুরের এস এন ব্যানার্জি রোডে অবরোধ হয়। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের দাবি তুলেছেন মডার্ন স্কুলের প্রিন্সিপাল অমৃতা আইজ্যাক। এদিকে, এভাবে স্কুলের পাঁচিল ও গেটে ভাঙার দায় সিইও-র ঘাড়ে চাপিয়েছেন ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডে চেয়ারম্যান কাশীনাথ সাউ। কিন্তু, কী কারণে স্কুলে গেট ও পাঁচিল ভাঙা হল, সে বিষয়ে সেনাবাহিনীর তরফে কিছু জানানো হয়নি। সূত্রের খবর, স্কুলকে যতটা জমি দেওয়া হয়েছিল, তার থেকে অনেক বেশি জমি নাকি পাঁচিল দিয়ে ঘেরা ফেলা হয়েছে। তাই স্কুলের গেট ও পাঁচিল ভেঙে দিয়েছে সেনাবাহিনী।

[মর্মান্তিক! দুষ্কৃতীদের মারে মৃত বাবা, জখম মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীও]

বারাকপুর শহরের অন্যতম নামী ইংরেজি মাধ্যম স্কুল মডার্ন স্কুল। আইসিএসসি বোর্ডের অধীনস্থ এই স্কুলে পঞ্চম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত পঠনপাঠন চলে। বুধবার থেকে আইএসসি বোর্ডে দশম শ্রেণির পরীক্ষা শুরু হবে। আর তার ঠিক আগের দিনই মডার্ন স্কুলে গেট ও পাঁচিল বুলজোডার দিয়ে ভেঙে দিল সেনাবাহিনী। মঙ্গলবার দুপুর ২টো নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে। সেনাবাহিনীর ভূমিকায় ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন অভিভাবকরা। স্কুলে গেট ও পাঁচিল ভাঙার প্রতিবাদে সন্ধ্যায় বারাকপুরে এস এন ব্যানার্জি রোডে অবরোধ করেন তাঁরা। প্রায় আধঘণ্টা ধরে চলে অবরোধ। পরে পুলিশের মধ্যস্থতায় অবরোধ ওঠে। মর্ডান স্কুলের প্রিন্সিপাল অমৃতা আইজ্যাক বলেন, ‘এই ঘটনা নতুন নয়। দীর্ঘদিন ধরেই ক্যান্টমেন্ট বোর্ড আমাদের উপর অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা সুষ্ঠু সমাধান চাই।’ এদিকে আবার স্কুলের পাঁচিল ও গেট ভাঙার দায় সিইও-র ঘাড়ে চাপিয়েছেন ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান কাশীনাথ সাউ। তাঁর অভিযোগ, ‘বোর্ডের সদস্যদের অন্ধকারে রেখে একতরফাভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন সিইও। পড়ুয়াদের কথা ভাবছেন না তিনি। আগামী বৈঠকে বিষয়টি তোলা হবে।’  প্রসঙ্গত, বারাকপুরে সেনার মালিকাধীন জমিগুলি দেখভাল করে এই ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড। বোর্ডে থাকেন সেনার প্রতিনিধি ও সাধারণ সদস্যরা। ভোটের মাধ্যমে বোর্ডের সাধারণ সদস্যদের নির্বাচন করেন স্থানীয় বাসিন্দারাই।

[পুজোর আগে গান্ধীজির জন্মদিনেই ছুটবে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো]

কিন্তু, মর্ডান স্কুলের পাঁচিল ও গেট কেন ভাঙা হল? এ বিষয়ে সেনাবাহিনীর তরফে সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে সূত্রের খবর, স্কুলকে সেনাবাহিনী যতটা জমি দিয়েছিল, তার থেকে অনেক বেশি জমি পাঁচিল দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে। এই নিয়ে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই স্কুল পরিচালন সমিতির বিবাদ চলছিল।

[গাড়ি থেকে নামিয়ে শিল্পী ব্রততীকে হেনস্তা, অকথ্য গালিগালাজ]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *