৩০ শ্রাবণ  ১৪২৫  বুধবার ১৫ আগস্ট ২০১৮  |  মোর নাম এই বলে খ্যাত হোক, আমি তোমাদেরই লোক: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: ‘কোনও দলের পাল্লায় পড়বেন না। দূরে সরে যাবেন না। আপনাদের উন্নয়নে কী দরকার, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখুন৷ আমরা তা করে দেব৷’ শুক্রবার মহম্মদবাজারে বিশ্ব আদিবাসী সম্মেলনে এমনই আবেদন করলেন এসআরডি-র চেয়ারম্যান তথা তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল৷ মিনিট সাতেকের বক্তব্যে এদিন আদিবাসীদের ভুল না বোঝার আবেদন জানান অনুব্রত৷

বিশ্ব আদিবাসী দিবসের একদিন পর শুক্রবার মহম্মদবাজারের প্যাটেল নগরে ব্লক অফিসের পাশে সরকারি অনুষ্ঠান করে জেলা প্রশাসন। সেখান থেকে আদিবাসী উপভোক্তাদের হাতে নানা উপহার তুলে দেওয়া হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ছাত্র-ছাত্রীদের সবুজসাথী সাইকেল, মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিকে মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের সম্মাননা দেওয়া হয়৷ জয়েন্ট এন্ট্রান্সে ভাল ফলাফলের জন্য মন্নোজ্যোতি ও মৃন্ময় সোরেনের হাতে ল্যাপটপ তুলে দেওয়া হয়৷ একলব্য স্কুল থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে ভাল ফলের জন্য বৈশাখী মুর্মুর হাতেও ল্যাপটপ তুলে দেওয়া হয়৷

[মামলার জেরে সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন স্থগিত, পিছোল মুখ্যমন্ত্রীর জলপাইগুড়ি সফর]

এদিনের এই অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী তথা এলাকার বিধায়ক আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় আদিবাসী পোশাকে মঞ্চে হাজির হন। এদিন আদিবাসী পোশাক পরেন জেলা সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরী ও দুবরাজপুর বিধায়ক নরেশ বাউড়ি৷ হাজির ছিলেন জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা, জেলা পুলিশ সুপার কুণাল আগরওয়াল৷ তবে বাকিরা সাধারণ পোশাকে থাকলেও তাঁদের আদিবাসী প্রথায় মাথায় পাতার মুকুট পড়িয়ে বরণ করে নেওয়া হয়৷

আপ্লুত মন্ত্রী-নেতারা মঞ্চ থেকে নিচে নেমে এসে আদিবাসী গানে ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে নাচে অংশ গ্রহণ করেন। মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আমার এলাকার আদিবাসীরা আমাদের সঙ্গেই আছেন। কেউ তাদের ফুসলিয়ে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।’’

[জন্মের পর হাসপাতালই ঘর, একরত্তির অন্নপ্রাশনে মাতলেন ডাক্তার-নার্সরা]

উল্লেখ্য, সদ্য শেষ হওয়া পঞ্চায়েত নির্বাচনে একমাত্র মহম্মদবাজারেই আদিবাসীরা তৃণমূলের উন্নয়ন বাহিনীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে মনোনয়ন জমা দেন৷ নির্বাচনে গণপুরের একটি পঞ্চায়েতও দখল করে নেয়৷ সে কথাকে মাথায় রেখে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘‘ক’দিন আগেই ছত্তিশগড়ে বড় দাঙ্গা হয়ে গেল৷ বিজেপি তো কোনও কথা বলল না। ঝাড়খণ্ডে আদিবাসীদের জমি জোর করে কেড়ে নেওয়া হচ্ছে, বিজেপি তো কথা বলছে না৷ মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থানে আদিবাসীদের ওপর অত্যাচার হচ্ছে, বিজেপি তো কিছু বলছে না৷’’ তাঁর দাবি, একমাত্র বাংলায় সব থেকে বেশি সুরক্ষিত আদিবাসীরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং