এবার বন্ধ হতে চলেছে দেশের বেশ কয়েকটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক!

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমে নোট বাতিল, পরে জিএসটি। দেশের আর্থিক সংস্কারকে ধাপে ধাপে এগিয়ে নিয়ে যেতে চলেছে কেন্দ্র। শোনা যাচ্ছে, এই তাগিদেই এবার নয়া পদক্ষেপ নেওয়া হতে চলেছে। এবার দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের সংখ্যা কমাতে চলেছে সরকার। ব্যাঙ্ক সেক্টরে জটিলতা কমাতেই এই বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

[সুলভ শৌচালয়েই প্রসব যন্ত্রণায় কাতর মহিলা, তারপর…]

গত মাসেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির সংযুক্তিকরণের বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে সরকার। এর ভাল-মন্দ দিকগুলি বিচার করে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। প্রসঙ্গত, গত এপ্রিল মাসে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার বিভিন্ন শাখা ব্যাঙ্কগুলি এভাবেই সংযুক্তিকরণের পথে হেঁটেছিল। আর তাতে বেশ লাভ হয়েছে সংস্থার। ইতিমধ্যেই তাঁদের গ্রাহকদের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। সেই ঘটনা থেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে এই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে সরকার।

[জানেন, কেন ১৬ বছরে একদিনও অতিরিক্ত ছুটি নেননি চিকিৎসক?]

বর্তমানে দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের সংখ্যা ২১। সূত্রের খবর, তা কমিয়ে ১০ থেকে ১২টি করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে সরকার। অবশ্য পাঞ্জাব অ্যান্ড সিন্ধ ব্যাঙ্ক এবং অন্ধ্র ব্যাঙ্কের মতো জনপ্রিয় ব্যাঙ্কগুলি স্বাধীনভাবেই পরিচালিত হবে বলে জানা গিয়েছে। অস্তিত্ব বজায় থাকবে কিছু মাঝারি সাইজের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কেরও। কিন্তু ছোট ব্যাঙ্কগুলির সংযুক্তিকরণ করা হবে। আর এরপর বৃহৎ, মাঝারি ও ক্ষুদ্র এই তিন স্তরের ব্যাঙ্ক ব্যবস্থা চালু হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে যদি তা হয়, তাহলে এতে কতটা লাভ হবে কিংবা কতটা ক্ষতি? এ প্রশ্নের উত্তর ভবিষ্যৎই দিতে পারবে।

[চিনকে চ্যালেঞ্জ জানানোর ক্ষমতা নেই ভারতের: ফারুক আবদুল্লাহ]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *