চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ১০০ গোলের একমাত্র মালিক হয়ে নজির রোনাল্ডোর

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি স্বার্থপর৷ দলের কথা ভাবেন না৷ নিজের জন্য গোল করেন৷ নিজেই সেলিব্রেট করেন৷ নিন্দুকদের এসব সমালোচনায় আরও একবার জল ঢেলে দিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো৷ দলের প্রতি তিনি ঠিক কতটা দায়িত্ববান, তার পরিচয় মিলল মঙ্গলবার রাতের বার্নাব্যুতে৷ নির্ধারিত সময়ে জোড়া গোল না করলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটের দ্বিতীয় লেগের ছবিটা হয়তো অন্যরকম হয়ে যেত৷ কিন্তু তিনি যে, যে কোনও মূল্যে দলকে জেতাতে চান, সেটাই ফের বুঝিয়ে দিলেন বিশ্বমানের দুটি গোল করে৷ আর ব্যাক্তিগত ১৩৭ তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ম্যাচে হ্যাটট্রিক করে লিগে  ১০০ গোলের একমাত্র মালিক হয়ে গেলেন সিআর সেভেন৷

[জল্পনার অবসান, মর্গ্যানের জায়গায় লাল-হলুদের নতুন কোচ মৃদুল]

মাঠ ও মাঠের বাইরের নানা ঘটনায় বারবার বিতর্কের মুখে পড়তে হয় তাঁকে৷ সম্প্রতি তাঁর অফ দ্য বল পারফরম্যান্স নিয়েও ভক্তরা ঠাট্টা করেছেন৷ এমনকী ধর্ষণ কাণ্ডেও নাম জড়িয়েছে পর্তুগিজ স্ট্রাইকারের৷ তাই বায়ার্ন মিউনিখকে ৪-২ (দুই লেগ মিলিয়ে ৬-৩) গোলে হারিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে সেমিফাইনালে পৌঁছে দিয়ে ভক্তদের ঠাট্টার জবাব দিলেন তিনি৷ মুখে আঙুল রেখে যেন বার্নাব্যুকে সব সমালোচনা থামানোর বার্তা দিলেন৷ কিন্তু রিয়ালের ঘরের মাঠে উপস্থিত সমর্থকদের থামানো গেল না৷ রিয়াল তারকার হ্যাটট্রিকে তখন গোটা স্টেডিয়াম ‘রোনাল্ডো’ নাম জপ করছে৷ ম্যাচের পর অবশ্য সিআর সেভেন বলছেন, “আমি ওদের চুপ করতে বলিনি৷ শুধু শিশ দিতে নিষেধ করেছিলাম৷” নিন্দুকদের জন্য তাঁর উত্তর, “প্রতিটা ম্যাচেই নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি৷ হয়তো সব ম্যাচে গোল করতে পারি না৷ কিন্তু সবসময় রিয়ালকে জেতানোর চেষ্টা করি৷”

[একাধিক ভাস্কর্য গুঁড়িয়ে দিল ছাত্ররা, বিক্ষোভে উত্তাল রাজশাহি বিশ্ববিদ্যালয়]

গত সপ্তাহে প্রথম লেগে বায়ার্নের বিরুদ্ধে গোল করে ইউরোপিয়ান লিগে প্রথম ১০০ গোলের মালিক হয়েছিলেন সিআর সেভেন৷ আর মঙ্গলবার তাঁর মুকুটে জুড়ল আরও একটি পালক৷ একমাত্র ফুটবলার হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গোলের সেঞ্চুরি করলেন তিনি৷ ছাপিয়ে গেলেন লিও মেসিকে৷ যাঁর নামের পাশে রয়েছে ৯৪টি গোল৷

এদিন রিয়ালের হয়ে এক্সট্রা টাইমে আরেকটি গোল করেন মার্কো৷ লেওয়ানডক্সির গোলে বায়ার্ন শুরুতে এগিয়ে গেলেও রোনাল্ডো দুরন্ত হেডারে সমতা ফেরান৷ রিয়ালের চাপ বাড়িয়ে সের্জিও ব়্যামোস আত্মঘাতী গোল করে বসেন৷ তবে অনেকেই সিআর সেভেনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় গোলটি অফসাইড ছিল বলে অভিযোগ করেছেন৷ যদিও প্রাক্তন কোচ আন্সেলোত্তির সামনে শেষ হাসি হাসলেন শিষ্য রোনাল্ডোই৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *