তথ্য ফাঁস রুখতে এবার ২০০টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ফেসবুক

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্যবহারকারীদের সুরক্ষার জন্য এবার এক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে চলেছে ফেসবুক। সংস্থার তরফ থেকে বেশ কয়েকটি অ্যাপ কিছুদিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। এই অ্যাপের সংখ্যা নেহাত কম নয়। প্রায় ২০০টি। সোমবার সংস্থার তরফে এই খবর জানানো হয়েছে।

[ হাসপাতালে মার্কিন ফার্স্ট লেডি, সফল কিডনির অস্ত্রোপচার ]

ফেসবুকের সিইও মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন, ২০১৪ সালে নতুন পলিসি আনে ফেসবুক। তার আগে যে সব অ্যাপ ফেসবুক থেকে তথ্য নিয়েছে তাদের সঙ্গে মুখোমুখি বসতে চায় সংস্থাটি। এখন যেসব অ্যাপ ফেসবুকের পলিসিগুলোর শর্ত পূরণ করতে পারছে না, সেই অ্যাপগুলিকে সাময়িকভাবে বন্ধ করা হচ্ছে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে তদন্ত চলছে জোরকদমে। দুটি ধাপে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। প্রথমে প্রতিটি অ্যাপ বিশ্লেষণ করা হবে। দেখা হবে ফেসবুক থেকে কোন কোন অ্যাপ কী কী তথ্য নিয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যাদের কাজকর্ম সম্পর্কে সন্দেহ হবে, তাদের কথাবার্তা বলার জন্য ডাকা হবে। তাদের কাছে তথ্য সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাওয়া হবে। প্রয়োজন পড়লে অন-সাইট তদন্তও করা হবে। জুকারবার্গ স্পষ্ট করে দিয়েছেন, যে সব অ্যাপ অডিটে পাশ করবে না বা অডিটে অংশ নিতে অস্বীকার করবে, তাদের চিরতরে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে।

[ জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদ, গুলিতে হত ৫২ প্যালেস্তাইনি ]

সংস্থা সূত্রে খবর, অ্যাপ নিয়ে তদন্ত চলছে জোরকদমে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই নিয়ে একটি সিদ্ধান্তে আসতে চাইছে ফেসবুক। এখনও পর্যন্ত প্রায় এক হাজার অ্যাপ খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। তার মধ্যে থেকে ২০০ অ্যাপকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। যদি ফেসবুক এমন কোনও প্রমাণ পায়, কোনও অ্যাপ তথ্যের বিকৃতি ঘটাচ্ছে, তবে তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হবে ব্যবহারকারীদের এই সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য হেল্প সেন্টারের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা নামে একটি সংস্থার ফেসবুক থেকে তথ্য নেওয়ার কথা সামনে আসার পর থেকেই সচেতন হয়ে উঠেছে ফেসবুক। ব্যবহারকারীদের তথ্য যাতে সুরক্ষিত থাকে, তার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *