আগামিকাল থেকে চালু এয়ারটেল পেমেন্টস ব্যাঙ্ক, মিলবে ৭.২৫% সুদ

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাণিজ্যিকভাবে পেমেন্টস ব্যাঙ্ক পরিষেবা চালু করতে চলেছে ভারতী এয়ারটেল। তাও আবার পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্ক চালু হওয়ার আগেই। আগামিকাল, বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি এই নয়া পরিষেবার উদ্বোধন করবেন।

এতদিন রাজস্থানে পরীক্ষামূলকভাবে চালু থাকলেও আগামিকাল থেকে পুরোদস্তুর গোটা দেশে চালু হয়ে যাবে এই পরিষেবা। এই পরিষেবা মারফত টাকা পাঠানো যাবে যে কোনও এয়ারটেল মোবাইল নম্বরে। এই ব্যাঙ্কের আওতায় সেভিংস অ্যাকাউন্টে সুদ পাওয়া যাবে ৭.২৫%। আধার নম্বরের সাহায্যে ই-কেওয়াইসি পদ্ধতিতে কোনও কাগজপত্র ছাড়াই অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে।

(জিওকে টেক্কা দিতে প্রতি মাসে বিনামূল্যে 4G ডেটা দেবে এয়ারটেল)

আগামী ১৫ জানুয়ারি পেমেন্টস ব্যাঙ্ক চালু করছে পেটিএম। তার আগেই দেশের প্রথম বাণিজ্যিক পেমেন্টস ব্যাঙ্ক পরিষেবা শুরু করে দিচ্ছে টেলিকম সংস্থা এয়ারটেল৷ এয়ারটেলই প্রথম কোম্পানি যাকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার তরফে পেমেন্টস ব্যাঙ্কের জন্য লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে৷ নোট বাতিলের পর থেকেই কালো টাকা রুখতে প্লাস্টিক মানি ব্যবহারে উৎসাহ দিচ্ছে কেন্দ্র৷ এর সাহায্যে সিস্টেম থেকে দুর্নীতি দূর করে ক্যাশলেস ইকোনমির দিক এগোতে পারবে দেশ, আশা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির৷ বিভিন্ন ডিজিটাল পেমেন্টস সংস্থাগুলিতে মানি ওয়ালেট সিস্টেমের মাধ্যমে গ্রাহকরা টাকা লেনদেন করতে পারেন, সেখান থেকেই অনলাইনে পেমেন্টও করা যায়। তবে তার জন্য কোনও সুদ পাওয়া যায় না। এয়ারটেলের নতুন এই পেমেন্টস ব্যাঙ্কে সুদ মিলবে। সেভিংস অ্যাকাউন্ট খুললে পাওয়া যাবে ৭.২৫ শতাংশ হারে সুদ যা অন্য ব্যাঙ্কের তুলনায় বেশি৷ ফলে এবার থেকে জেলা ও গ্রামের মানুষ এয়ারটেলের রিটেল আউটলেটগুলিতে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন৷

পেমেন্টস ব্যাঙ্কের মূল উদ্দেশ্যে হচ্ছে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা সেই সব মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া যাদের এখনও ব্যাঙ্কে কোনও অ্যাকাউন্ট নেই৷ পেমেন্টস ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে খুব সহজেই৷ যে কেউ এই সিস্টেমে সেভিংস অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন৷ এর জন্য আধার কার্ড বাধ্যতামূলক৷ যেহেতু এটি একটি ডিজিটাল পরিষেবা তাই এয়ারটেল মানি অ্যাপ ডাউনলোড করে আপনার অ্যাকাউন্টের সমস্ত আপডেট একটি মাত্র ক্লিকেই জানতে পারবেন৷ এছাড়া আপনার রেজিস্টার্ড নম্বর থেকে নির্দিষ্ট কয়েকটি নম্বর ডায়াল করলেও আপডেট পেতে পারেন বা টাকা ট্রান্সফার করতে পারবেন৷ একটি এয়ারটেল নম্বর থেকে অন্য একটি এয়ারটেল নম্বরে টাকা পাঠানোর জন্য কোনও চার্জ দিতে হবে না৷ গ্রাহকরা বিনামূল্যে এই পরিষেবা পাবেন৷ আপাতত এই অ্যাকাউন্টে ১ লাখ পর্যন্ত টাকা রাখা যাবে৷ শুরুতে এয়ারটেল পেমেন্ট ব্যাঙ্ক এটিএম, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড পরিষেবা দেবে না৷ ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলতে কোনও ফর্ম ফিল আপ করতে হবে না৷ কেওয়াইসি ফর্ম অনলাইনে ফিল আপ করলেই খোলা যাবে অ্যাকাউন্ট৷ যিনি এয়ারটেলের ফোন ব্যবহার করেন না, তিনিও আধার কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্টস ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। এখান থেকে অন্য ব্যাঙ্কেও টাকা লেনদেন করা যাবে৷ তবে এখনই ব্যাঙ্ক ঋণ পাওয়া যাবে না। এয়ারটেল পেমেন্টস ব্যাঙ্কের সিইও শশী অরোরা বলেছেন, “ডিজিটাল ব্যাঙ্কিংয়ের অভিজ্ঞতাকে নয়া উচ্চতায় পৌঁছে দেবে এয়ারটেল।”

(ভোডাফোন, এয়ারটেলের কানেকশন দিয়েই এবার করা যাবে কেনাকাটা!)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *