বিজেপির শাসনে কেমন আছে ত্রিপুরা, পালাবদলের পর গল্প শোনাবেন মানিক

ক্ষীরোদদীপ্তি ভট্টাচার্য: ত্রিপুরার পালাবদল হয়েছে প্রায় চার মাস৷ বাম দুর্গে লেগেছে গেরুয়া আবির৷ বদলে গিয়েছে সরকার৷ মাত্র চার মাসের নতুন সরকারের বয়স হলেও হাত গুটিয়ে বসে থাকতে নারাজ ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার৷ সস্ত্রীক সিপিএমের রাজ্য দপ্তরে চলে আসার পরদিন থেকেই গোটা রাজ্য ঘুরে বেড়াচ্ছেন৷ তথ্য সংগ্রহ করছেন৷ দলীয় কর্মীদের ভরসা জোগাচ্ছেন৷ একের পর এক সভা সমাবেশে অংশ নিচ্ছেন৷ প্রায় চার মাস রাজ্যজুড়ে ভোট পরবর্তী অবস্থা নিয়ে প্রচার চালানোর পর এবার মানিক কলকাতায় আসছেন৷

[হাতিয়ার ‘পঞ্চায়েত সন্ত্রাস’, তৃণমূলের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে আন্দোলনের পথে বিজেপি]

আগামী সোমবার কলকাতায় সিপিএমের একটি সভায় মূল বক্তা মানিক সরকার। আর সেখানেই তিনি শোনাবেন বিগত চার মাসে দলীয় কর্মীদের কতটা বদল ঘটল। বলবেন, বিজেপির শাসনে কেমন আছে ত্রিপুরা৷ এদিনের এই সমাবেশে মূল বক্তা মানিক সরকার। অন্য কেউ এই সভায় বক্তব্য রাখবেন না। আগরতলা সিপিএম সূত্রে খবর, সোমবার সকালে এসে আলিমুদ্দিনে বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্রর সঙ্গে ঘরোয়া বৈঠক করবেন। বিকেলে সভায় অংশ নেওয়ার আগে পাম অ্যাভিনিউয়ে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার কথা রয়েছে তাঁর। পরদিন ফের আগরতলা ফিরে যাবেন তিনি। তবে ঘটনা হল, আচমকা মানিক সরকারের কলকাতা সফরকে কেন্দ্র করে বঙ্গ সিপিএমের নেতাদের মধ্যে কিছুটা আগ্রহ তৈরি হয়েছে।

[প্রথমবার মহিলাদের ইফতারের ব্যবস্থাপনায় কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদ]

সিপিএম সূত্রে খবর, স্মারক বক্তৃতার মূল অংশ জুড়ে থাকবে চার মাসে ত্রিপুরায় সিপিএম নেতৃত্বের মানসিকতার কতটা বদল হল তার বিবরণ। একইসঙ্গে একের পর এক পার্টি অফিস দখল হওয়া বা ভাঙচুরের যে অভিযোগ উঠেছে কীভাবে তার মোকাবিলা করছে সিপিএম। তবে অন্য কোনও বক্তা না থাকায় খানিকটা হলে গুঞ্জন শুরু হয়েছে আলিমুদ্দিনে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *