‘চুরি’ গিয়েছে বর, থানায় কান্নাকাটি বধূর

অর্ণব আইচ: বর গিয়েছে চুরি। অভিযোগ শহরের এক গৃহবধূর। স্বামী গিয়েছিলেন তাঁর বান্ধবীর বাড়ি। তার পর থেকেই উধাও স্বামী। কোথাও মেলেনি তাঁর হদিশ। স্বামীর খোঁজে সেই মহিলার বাড়িতে ছুটেছিলেন স্ত্রী। তা নিয়েই স্বামীর বান্ধবীর পরিবারের লোকেদের সঙ্গে তাঁর গোলমাল শুরু হয়। তারই জেরে রাস্তার উপরই মারধর করা হয় তাঁকে। দ্বিতীয় দফায় ফের তিনি খোঁজ চালাতে শুরু করেন স্বামীর। কোথাও স্বামীর সন্ধান না পেয়ে ওই বধূর ধারণা হয়, তাঁর স্বামীকে অপহরণ করেছেন সেই বান্ধবী ও তাঁর বাড়ির লোকেরা।

মঙ্গলবারই তিনি কাঁদতে কাঁদতে চলে যান পশ্চিম বন্দর থানায়। পুলিশের কাছে নালিশ জানান যে, তাঁর স্বামীকে রীতিমতো চুরি করেছেন স্বামীর বান্ধবী। সেইমতো স্বামীর বান্ধবী ও তাঁর পরিবারের দু’জন সদস্যের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই গৃহবধূ।

[সরকারি কর্মী মারা গেলে চাকরি পাবেন বিবাহিত মেয়েও]

পুলিশ জানিয়েছে, দিন কয়েক আগেই এই সমস্যার সূত্রপাত। দক্ষিণ বন্দর থানা এলাকার ভূকৈলাস রোডের বাসিন্দা ওই গৃহবধূ আহত অবস্থায় ছুটে আসেন পশ্চিম বন্দর থানায়। কোনওমতে হাঁফাতে হাঁফাতে পুলিশ আধিকারিকদের জানান, তাঁকে রাস্তায় ফেলে মারধর করেছে ওই এলাকার বাসিন্দা এক ব্যক্তি ও তার বাড়ির লোকেরা। কারণ হিসাবে তিনি জানান, পেশায় গাড়ির চালক তাঁর স্বামীর এক বান্ধবী রয়েছেন ওই এলাকার সিক লেনে। গৃহবধূর কাছে খবর আসে যে, তাঁর স্বামী ওই বান্ধবীটির বাড়িতে এসেছেন। পিংকি নামে ওই বান্ধবীটিকে নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি সংসারে। স্বামীকে দিয়ে দিব্যি করিয়েছিলেন যে, তিনি যাবেন না পিংকির কাছে। কিন্তু বান্ধবীর এমনই টান যে স্বামী চলে গিয়েছেন তাঁর কাছে। তা শুনে আর ঘরে থাকতে পারেননি তিনি। রণমূর্তিতে বান্ধবীর বাড়িতে স্বামীকে খুঁজতে গিয়ে তাঁর ভাই সাদ্দাম হোসেন ও দুই বোনের সামনে পড়েন।

গৃহবধূ পশ্চিম বন্দর থানায় অভিযোগ জানান যে, তঁাকে প্রচণ্ড মারধর ও শ্লীলতাহানি করে সাদ্দাম ও অন্যরা। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। গ্রেফতার হয় সাদ্দাম। কিন্তু তাকে জেরা করেও পুলিশ ওই গৃহবধূর স্বামীর সন্ধান পায়নি। গৃহবধূর অভিযোগ, তাঁর স্বামীকে ‘অপহরণ’ করে বান্ধবী নিয়ে গিয়েছেন কোনও গোপন জায়গায়। সেখানেই তাঁকে আটকে রাখা হয়েছে। গৃহবধূর দায়ের করা এই অপহরণের অভিযোগের ভিত্তিতে শুরু হয়েছে তদন্ত। গৃহবধূর ‘অপহৃত’ স্বামীকে খুঁজতে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চলছে।

[ফ্রেন্ডশিপ ক্লাবের নামে যুবককে প্রতারণা, পুলিশের জালে ২ তরুণী]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *