জানেন, কেন করণ-সইফদের কটাক্ষের শিকার হতে হল কঙ্গনাকে?

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সকলেই জানেন, সকলেই বোঝেন। কিন্তু এ নিয়ে আজ পর্যন্ত মুখ খোলার সাহস কেউ সেভাবে দেখাননি। কিন্তু ব্যতিক্রম অবশ্যই ছিলেন কঙ্গনা রানাউত। স্রোতের বিরুদ্ধে লড়েই বলিউডের ‘কুইন’ হয়েছেন তিনি। তাই প্রকাশ্যে মন খুলে কথা বলতে খুব একটা পিছপা হন না তিনি। তারই প্রমাণ মিলেছিল ‘কফি উইথ করণ’-এ। প্রযোজক-পরিচালকের মুখের উপর কঙ্গনা বলে দিয়েছিলেন নেপোটিজম অর্থাৎ স্বজনপোষণের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক করণ জোহর। নায়িকার সেই কটাক্ষ যে আজও করণের মনে লেগে রয়েছে তার প্রমাণ সম্প্রতি মিলল IIFA-র মঞ্চে, যেখানে ‘নেপোটিজম’ নিয়ে পরোক্ষে কঙ্গনাকে একহাত নিলেন করণ ও তাঁর স্টুডেন্ট বরুণ ধাওয়ান। সঙ্গত দিলেন বলিউডের নবাব সইফ আলি খানও।

[জ্যাকলিনের এই পোল ডান্সেই এখন মজেছে নেটদুনিয়া]

১৮তম IIFA-র অনুষ্ঠান এবার আয়োজিত হয়েছিল মার্কিন মুলুকের প্রাণকেন্দ্র নিউ ইয়র্কে। সেখানেই জড়ো হয়েছিলেন বলিউডের তারকারা। শো সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন করণ জোহর ও সইফ আলি খান। আর নিজের ছবি ‘ঢিসুম’-এর জন্য বরুণ পেয়েছিলেন সেরা কমিক অভিনেতার পুরস্কার। মঞ্চে তা নিতে গেলেই সইফ আচমকা বলে ওঠেন, বাবা ডেভিড ধাওয়ানের জন্য এ জায়গায় পৌঁছতে পেরেছেন বরুণ। বরুণও পালটা নবাবকে বলেন, তাঁর মায়ের জন্যই বলিউডে নাম করতে পেরেছেন সইফ। আসরে যোগ দিয়ে করণও বলে ওঠেন বাবা যশ জোহরের জন্য এই ইন্ডাস্ট্রিতে রয়েছেন তিনি। এরপর তিনজনে মিলে একসুরে বলে ওঠেন ‘নেপোটিজম রকস’। এখানেই শেষ নয়, করণের ‘বোলে চুড়িয়া, বোলে কঙ্গনা’ গানের তালে নেচে ওঠেন বরুণ। করণ সঙ্গে সঙ্গে বলে ওঠেন, কঙ্গনা না কথা বললেই ভাল হয়।

[জমজমাট আইফার মঞ্চ, এক নজরে সেরার সেরা]

অবশ্য, প্রযোজক-পরিচালকের এ পরামর্শ কঙ্গনা খুব একটা শুনবেন বলে মনে হয় না। কারণ নিজের মর্জির মালকিন তিনি। এখন পুরোদমে ব্যস্ত ‘মণিকর্ণিকা- দ্য ক্যুইন অফ ঝাঁসি’-র শুটিং নিয়ে। চলছে ‘সিমরন’ ছবির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজও। এর মাঝে সুযোগ পেলে আবার হয়তো ছুড়ে দেবেন এমনই কোনও মন্তব্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *