সত্যি কি আজীবন সব চ্যানেল মাত্র ১০ টাকায় দেখতে দেবে Jio DTH?

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: Jio DTH মাত্র ১০ টাকার বিনিময়ে আজীবন সমস্ত চ্যানেল ফ্রি-তে দেখার সুযোগ করে দিচ্ছে। একটুও দেরি না করে এখনই এই স্বল্প সময়ের অফারের ফায়দা তুলুন!

ঘুম থেকে উঠেই মোবাইলে এই মেসেজটি পেয়েছেন কি?

টেলিকম মার্কেটের পর এবার কি তবে DTH ইন্ডাস্ট্রিতেও পা রাখতে চলেছে মুকেশ অম্বানির সংস্থা? এরকম বার্তা পাওয়ার পর এই প্রশ্নই এখন সবার মুখে মুখে ঘুরছে। জিও-র তরফে এখনও এই নিয়ে এক লাইনও খরচ করা হয়নি। ইন্টারনেটে জোর চর্চা শুরু হয়েছে যে অনিল অম্বানির কায়দায় এবার Jio-ও নিজেদের DTH পরিষেবা চালু করতে চায়। তাও আবার এমন কায়দায় যে প্রতিযোগীরা টিকতেই পারবে না।

[ভারতে আত্মপ্রকাশ করল Xiaomi Redmi 5, জানুন দাম-সহ সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন]

বলে রাখা ভাল, যে এই জল্পনার মধ্যেই একদল দুষ্কৃতী গ্রাহকদের ঠকিয়ে প্রচুর টাকা হাতিয়ে নিতে চায়। আর সেই লক্ষ্যেই হপ্তাখানেক ধরে অনেকেরই ফোনে একটি এসএমএস যাচ্ছে। এসএমএস-এ লেখা, ‘জিওফোন ও জিও DTH প্রথম এক হাজার গ্রাহককে মাত্র ১০ টাকায় লাইফটাইম ফ্রি পরিষেবা দেবে। দেরি না করে এখনই ‘http://jiodevices.online/ Book now’ ওয়েবসাইটে লগ ইন করে নিজের নাম রেজিস্টার করুন।’

‘ডেকান ক্রনিকল’-এর এক প্রতিনিধি ওই ওয়েবসাইটটি ট্র্যাক করেন। দেখা যায়, উপরের লিঙ্কটিতে ক্লিক করলেই একটি নয়া পেজ iodevices.online-এ চলে যাচ্ছেন গ্রাহকরা। এই ওয়েবসাইটটি দেখতে একেবারেই জিও-র আসল ওয়েবসাইটের মতো। কিন্তু আদতে এটি একটি নকল ওয়েবসাইট। এখানে বিভিন্ন জাল প্রোডাক্ট ও সার্ভিসের বিজ্ঞাপন বসানো রয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। একটি পরিষেবা বেছে নিয়ে পেমেন্টের অপশনেও যাওয়া যাচ্ছে। সেখানে ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করার অপশন রয়েছে। এখানে নিজেদের খুঁটিনাটি তথ্য একবার দিয়ে ফেললে কিন্তু আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য চলে যেতে পারে দুষ্কৃতীদের হাতে। যদি ইতিমধ্যেই আপনি এই চক্রের ফাঁদে পা দেন, তাহলে অবিলম্বে ক্যাশ ও ব্রাউজ হিস্ট্রি ক্লিয়ার করুন। আর কার্ডের পাসওয়ার্ড পাল্টে ফেলুন অবিলম্বে।

জেনে রাখুন, জিও কোনও DTH পরিষেবা চালু করেনি। আর জিওফোন পেতে ন্যূনতম ৫০০ টাকা দিতে হবে, পরে সবমিলিয়ে দিতে হচ্ছে ১৫০০ টাকা। পরে অবশ্য ওই টাকা রিফান্ড হওয়ার দাবি করেছে জিও। এরপর এরকম কোনও সন্দেহজনক এসএমএস পেলে তখনই নম্বরটি ব্লক করুন।

[বড়সড় বিপদের মুখে WhatsApp, জেনে নিন কেন!]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *