১ ভাদ্র  ১৪২৫  শনিবার ১৮ আগস্ট ২০১৮ 

BREAKING NEWS

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ ভাদ্র  ১৪২৫  শনিবার ১৮ আগস্ট ২০১৮ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস ইস্যুতে এবার আরও বিপাকে সিপিএমের বহিষ্কৃত সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিযোগকারিণী নম্রতা দত্তর অভিযোগের ভিত্তিতে এবার সিআইডি জেরার মুখে রাজ্যসভার সাংসদ। রাজ্য পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ তাঁকে নোটিস পাঠিয়েছে। আগামী ১৩ অক্টোবর ভবানী ভবনে দেখা করার জন্য নোটিসে জানানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর। প্রসঙ্গত, গতকালই বালুরঘাট থানায় ঋতবর্তর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সহবাসের অভিযোগ দায়ের করেন নম্রতা দত্ত। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্তে নেমেছেন গোয়েন্দারা।

[টাকা আদায় করতেই ধর্ষণের অভিযোগ, পালটা সাফাই ঋতব্রতর]

উল্লেখ্য, দলবিরোধী কাজের জন্য রাজ্যসভা সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়কে বহিষ্কার করে সিপিএম। দলের রাজ্য কমিটির সিদ্ধান্তে অনুমোদন দেয় সিপিএমের পলিটব্যুরো। তারপর বিজেপি নেতা ও মুকুল রায়ের সঙ্গে আলোচনা করায় ফের সংবাদ শিরোনামে উঠে আসেন তিনি। এরই মধ্যে টুইটারে বোমা ফাটান নম্রতা দত্ত নামে ওই তরুণী। তাঁর অভিযোগ, “চলতি বছর ১৫ অক্টোবর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তিনি। দিল্লির ফ্ল্যাটে নিয়ে গিয়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক হয়।” শুধু তাই নয়, নম্রতার বালুরঘাটের বাড়িতেও নাকি ঋতব্রত গিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। এই প্রসঙ্গে নম্রতা বলেন, “বালুরঘাটে গিয়ে আমার মাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন ঋতব্রত। তিনি বলেন, খুব তাড়াতাড়ি বিয়ে করবেন।” নম্রতা জানান, “আমি বাংলা ছেড়ে নেদারল্যান্ডসে চলে যাই। সেখানে গত ডিসেম্বরে গিয়েছিলেন ঋতব্রত। সেই খরচ আমি দিয়েছিলাম। শুধু তাই নয়, সেখানে দামি একটি ঘড়ি কিনে দিই। সেই ঘড়িটি নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি।” নম্রতার দাবি, তাঁর সঙ্গে ১৯বার শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন ওই বিতর্কিত কমিউনিস্ট নেতা। এবার সিআইডির নজরে এই সাংসদ।

নম্রতার অভিযোগ ছিল, “দিন কয়েক আগে তাঁর ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে আড়াই লক্ষ টাকা ট্রান্সফার করা হয়। ঋতব্রতের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা পাঠানো হয়েছে।” মুখ বন্ধ রেখে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের ক্ষতিপূরণ হিসাবে ওই টাকা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন নম্রতা। এই প্রসঙ্গে ওই তরুণী বলেন, “দিন কয়েক আগে দূর্বা সেন নামে এক মহিলা ফোন করেন। তিনি ঋতব্রতের বান্ধবী বলে পরিচয় দেন। বারবার হুমকি ফোন আসতে থাকে।” এখন আমি ভয় পাচ্ছি বলে মন্তব্য করেন নম্রতা। টুইটারে সেই সব কথা ও ঋতব্রতের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ কয়েকটি ছবি প্রকাশ্যে এনে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তিনি। এরই মধ্যে দু’টি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। তাতে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করতে দেখা যাচ্ছে বহিষ্কৃত সিপিএম নেতাকে।

[ফের বিতর্কে ঋতব্রত, এবার বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং