আইপিএলের মাঝেই ভোগান্তি, ধর্ষণের অভিযোগে শামির দাদাকে তলব লালবাজারের

সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়: মহম্মদ শামি ও তাঁর দাদার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে লালবাজারের দ্বারস্থ হয়েছিলেন হাসিন জাহান। ভারতীয় পেসারের স্ত্রীর অভিযোগের বিরুদ্ধে এবার শামির দাদা মহম্মদ হাসিবকে তলব করল লালবাজার। আগামী ১৮ এপ্রিল বুধবার তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। জানা যাচ্ছে, শামিকেও থানায় ডেকে পাঠানো হবে।

[আইপিএল ম্যাচের মাঝেই শ্লীলতাহানির শিকার যুবতী, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত]

সোমবার লালবাজারে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা প্রধান প্রবীণ ত্রিপাঠী জানান, “শামির দাদা হাসিবকে লালবাজারে আসার জন্য শনিবারই ডেকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু তিনি আসেননি। সময় চেয়েছিলেন। তিনি না আসায় এদিন তাঁকে ফের তলব করা হয়। তবে আইপিএলের জন্য শামি কলকাতায় থাকলেও তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়নি।” এ বিষয়ে শামির স্ত্রী হাসিন জাহান বলেন, “আমি যে কঠিন লড়াইটা শুরু করেছি, মনে হচ্ছে এটি তার সুফলের প্রথম ধাপ। শামির বিরুদ্ধে জামিনঅযোগ্য মামলা চললেও কেন তাঁকে লালবাজারে ডেকে পাঠানো হল না, তা নিয়ে অনেকে আমার কাছে প্রশ্ন করছেন। আমি এই প্রশ্নের গুরুত্ব দিতে নারাজ। কারণ, লালবাজারের পুলিশ কর্তাদের উপর আমার অগাধ বিশ্বাস রয়েছে। আমি জানি, তাঁদের তদন্ত সঠিক পথেই এগোচ্ছে। তার প্রথম ধাপ হিসাবে ডেকে পাঠানো হয়েছে হাসিবকে।”

[‘দুর্বল’ গোয়াকে হারিয়ে সুপার কাপের ফাইনালে ইস্টবেঙ্গল]

গত বেশ কয়েকদিন ধরে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে অভিযোগ ও পালটা অভিযোগের পালা চলছে হাসিন ও শামির মধ্যে। শামি ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক, শারীরিক অত্যাচার, ধর্ষণের মতো বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছেন হাসিন। প্রশ্নের মুখে পড়েছিল শামির ক্রিকেটজীবনও। কিন্তু জাতীয় দলের এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে তদন্তে কিছুই পায়নি বোর্ডের দুর্নীতিদমন শাখা। তাই আইপিএলে খেলতে কোনও বাধা নেই তাঁর। এতকিছুর পর দিল্লির জার্সি গায়ে এই প্রথম শহরে এসেছে শামি। তবে বাইশ গজে তাঁর পারফরম্যান্সে যাতে কোনওরকম প্রভাব না পড়ে, সেই কারণেই আপাতত তলব করা হয়নি শামিকে। যা খবর, আইপিএল শেষ হলে হয়তো তাঁকে ডেকে পাঠানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *