পড়শির কুনজর হটাতে ফসলভরা খেতের পাশে সানির খোলামেলা ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছিলেন পর্নস্টার। হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী। কিন্তু এমন ভূমিকায় যে তাঁকে অবতীর্ণ হতে হবে তা বোধহয় কখনও স্বপ্নেও ভাবেননি সানি লিওন। যা তাঁর ছবি নিয়ে করলেন এক কৃষক। ফসলভরা খেতের পাশে টাঙিয়ে দেওয়া হল সানির খোলামেলা ছবি। কারণ একটাই, খেতের পাশ দিয়ে যে যাবে তার নজর যাবে সানির দিকে। আর এমন ঢাউস আকারের খোলামেলা ছবি দেখে লজ্জায় মাথা হেঁট হবে সকলের। ফলে খেতে আর নজর লাগবে না।

মুসলিম ভাবাবেগে আঘাত, প্রিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের যুবকের ]

হিংসা কোরো না চেষ্টা করো, তোমারও হবে। এরকম বার্তা ট্রাকের পিছনে প্রায়শই লেখা থাকে। অনেকটা সে কথাই বলতে চেয়েছিলেন অন্ধ্রপ্রদেশ নেলোর জেলার কৃষক এ চেঞ্চু রেড্ডি। কিন্তু জনে জনে ডেকে তো আর তা বলা যায় না। এদিকে তাঁর খেতে ফসলও হয়েছে ভাল। পড়শিদের কুনজরও পড়ছে তার উপর। কী করে ফসল বাঁচাবেন? কাকপক্ষীকে তাড়াতে না হয় কাকতাড়ুয়া হলে চলে। কিন্তু পড়শির নজর কাটাতে কী করবেন? ভাবতে ভাবতেই অভিনব আইডিয়া খেলে গেল তাঁর মাথায়। দ্বারস্থ হলেন সানি লিওনের। বলা ভাল তাঁর ছবির। খোলামেলা সানির একখানা ঢাউস ছবি টাঙিয়ে দিয়েছেন তাঁর খেতের পাশে। খেতের পাশ দিয়েই যেই যাক না কেন, তাঁর নজর পড়বেই সে ছবির দিকে। সানির দিকে দেখতে গিয়ে খেতের থেকে নজর সরবে। অথবা, লজ্জায় কেউ চোখ নামিয়ে নেবেন। যাই হোক না কেন, তাতে লাভ ওই কৃষকের। পড়শির কুনজর থেকে বাঁচবে তাঁর ফসল। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে ওই কৃষক জানিয়েছেন, “আমার ১০ একর মতো জমিতে এবার ভালই ফসল হয়েছে। লোকজন সেজন্য অকারণে নজর দিচ্ছে। কী করব ভাবতে ভাবতেই এই উপায় মাথায় আসে। সানি লিওনের একটা বড় ছবি টাঙিয়ে দিই।” ছবির নিচে লেখা, ‘আমার জন্য হিংসা কোরো না’। আসলে সে কথা সানির জন্য লেখা হলেও এখন তা ফসলের জন্যও প্রযোজ্য।

ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে ক্যাম্পাসে ঘোরাঘুরি করলে সাজা, নির্দেশিকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ]

তা এই টোটকায় কি উপকার হচ্ছে? একগাল হেসে কৃষক জানাচ্ছেন, বেশ কাজ দিচ্ছে। এখন আর কেউ তাঁর জমির দিকে নজর দিচ্ছেন না। আর পড়শিরা মুচকি হেসে বলছেন, সানি লিওনের মহিমা আর কাকে বলে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *