৩০ শ্রাবণ  ১৪২৫  বুধবার ১৫ আগস্ট ২০১৮  |  ৭২ তম স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হলিউডের #MeToo-র প্রভাব দেশের চলচ্চিত্র জগতে বেশ ভালই পড়েছে। একে একে নিজেদের হেনস্তার কথা প্রকাশ্যে আনছেন অভিনেত্রীরা। কেবল বলিউড নয়, আঞ্চলিক ছবির অভিনেত্রীরাও প্রতিবাদ করতে পিছপা হচ্ছেন না। কিছুদিন আগেই অর্ধনগ্ন হয়ে তেলুগু চলচ্চিত্র জগতের একাংশের মুখোশ টেনে খুলে দিয়েছিলেন শ্রী রেড্ডি। এবার প্রতিবাদে সরব হলেন জাতীয় পুরস্কারজয়ী মারাঠি অভিনেত্রী ঊষা যাদব।

usha-jadhav-6

[বিন্দাস মেজাজে ‘বীরে দি ওয়েডিং’-এ শামিল সোনম-করিনা]

কাস্টিং কাউচ নিয়ে একটি তথ্যচিত্র তৈরি করেছে বিবিসি। নাম দেওয়া হয়েছে ‘বলিউড’স ডার্ক সিক্রেট’। সেখানেই এই বিস্ফোরক তথ্য জানান ঊষা। ‘ট্রাফিক সিগন্যাল’, ‘বীরাপ্পন’-এর মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন। মারাঠি ছবি ‘ধাগ’-এর জন্য পেয়েছেন জাতীয় পুরস্কার। নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে ঊষা বলেন, এক প্রযোজকের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তিনি। প্রযোজক তাঁকে বলে, অভিনেত্রী হতে গেলে অন্যরকম সাহায্য করতে হবে। প্রথমে বুঝতে পারেননি ঊষা। তিনি বলেন, তাঁর কাছে টাকা নেই। তখন সেই প্রযোজক হাসতে হাসতেই  কুপ্রস্তাব দেয়। বলেন, তাঁর সঙ্গে তো বটেই প্রয়োজনে পরিচালকের সঙ্গেও এক বিছানায় যেতে হবে। এই পেশায় থাকতে গেলে যৌনতাকে ব্যবহার করতেই হবে। নতুন ছিলেন নায়িকা। প্রযোজক তাঁর শরীরের আপত্তিকর জায়গায় স্পর্শ করতে শুরু করে। এমনকী তাঁর পোশাকের ভিতরেও হাত ঢুকিয়ে দেয়। তখনই প্রতিবাদ করে ওঠেন ঊষা। থমকে গিয়ে প্রযোজক বলেছিল, এমন ব্যবহার হলে নাকি তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ পাবেন না।

[গরমে গলে পড়ছেন উত্তম-সুচিত্রা! ব্যাপারটা আসলে কী?]

একই তথ্যচিত্রে রাধিকা আপ্টে বলেন, ইন্ডাস্ট্রিতে এমন অনেক অভিনেত্রীই রয়েছেন যাঁরা কেরিয়ার নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয়ে মুখ খোলেন না। তাঁরা মনে করেন, মুখ খুললে কাজ পাবেন না। তবে উল্লেখ্য, #MeToo বিপ্লবের প্রভাবে বলিউডের অনেক প্রথমসারির নায়িকাই মুখ খুলতে শুরু করেছেন। এরই মধ্যে কাস্টিং কাউচ প্রসঙ্গে বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন বর্ষীয়ান কোরিওগ্রাফার সরোজ খান। তিনি বলে বসেন, ধর্ষণ করলেও রুজি-রুটি দেয় বলিউড। তাই নিজের ইন্ডাস্ট্রির বদনাম করা উচিত নয়। শিল্পীর এ মন্তব্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। পরে অবশ্য নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমাও চেয়ে নেন বর্ষীয়ান কোরিওগ্রাফার।

[‘ধর্ষণ করে ফেলে দেয় না, খাবারও জোগায় বলিউড’, বিস্ফোরক মন্তব্য সরোজ খানের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং