BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শনিবার ১ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অশান্তির জের, গৃহবধূকে খুনের অভিযোগে কাঠগড়ায় শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 20, 2020 7:37 pm|    Updated: February 20, 2020 7:37 pm

A housewife beaten to death at Jibantola, accused in law's

ছবি: প্রতীকী

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: গৃহবধূকে পিটিয়ে খুন করে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি, জায়ের বিরুদ্ধে। বুধবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে জীবনতলা থানার উত্তর মৌখালি গ্রামে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত গৃহবধূর নাম নাজমুন নাহার(২৮)। তাঁর বাপের বাড়ি ওই এলাকায়। গৃহবধূর বাবা বনি আমিন গাজির অভিযোগের ভিত্তিতে একটি খুনের মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তরা পলাতক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, প্রায় বছর দশেক আগে উত্তর ২৪ পরগণার সন্দেশখালির রামপুরহাটের বাসিন্দা বনি আমিন গাজির মেয়ে নাজমুন নাহারের সঙ্গে বিয়ে হয় জীবনতলা থানার উত্তর মৌখালী গ্রামের মোবারক সর্দারের। ওই দম্পতির এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে। মোবারক চাষবাসের কাজ করতেন। অভাবের সংসারে তাদের মধ্যে প্রায় অশান্তি হত। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, নাজমুনের সঙ্গে প্রায়শই তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজনের অশান্তি হত। কখনও টাকা-পয়সা নিয়ে আবার কখনও অন্যান্য সাংসারিক বিষয় নিয়ে।

[আরও পড়ুন : মুখ্যমন্ত্রীর ধমকই সার, অণ্ডালে সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্যে বন্ধ রাস্তা নির্মাণ]

অভিযোগ, বুধবারও শাশুড়ির সঙ্গে সাংসারিক কারণে অশান্তি হয়। তারপরেই ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায় পরিবারের লোকজন। পরে পুলিশ গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে খুঁচিতলা ব্লক হাসপাতলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। রাতে ওই গৃহবধূর বাবা জীবনতলা থানায় জামাই ও তার পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে মেয়েকে খুনের অভিযোগ দায়ের করেন। নাজমুনের বাবার অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে খুন করে ঝুলিয়ে দিয়েছে শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা। পুলিশ দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে