BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিষ্ণুপুরে ডেঙ্গুর বলি ফিজিওথেরাপিস্ট, বাড়ছে আতঙ্ক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: December 9, 2019 3:41 pm|    Updated: December 9, 2019 3:41 pm

An Images

ফাইল ফটো

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: ডেঙ্গুর থাবা এবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরের আমতলায়। সোমবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক যুবকের। সূত্রের খবর, মৃত্যুর কারণ হিসেবে ওই ব্যক্তির ডেথ সার্টিফিকেটে ডেঙ্গুর উল্লেখ রয়েছে। ইতিমধ্যেই মৃত্যুর ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়।

পেশায় ফিজিওথেরাপিস্ট সুরজিৎ সামন্ত নামে ওই যুবক দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুর থানার পশ্চিম বিষ্ণুপুরের উত্তর কন্যানগরের বাসিন্দা। বেশ কিছুদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন ওই যুবক। এরপর ১ ডিসেম্বর তাঁকে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সেখানে চিকিৎসা পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় ৫ তারিখ অন্য একটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। ৯ ডিসেম্বর সেখানেই মৃত্যু হয়েছে সুরজিৎ বাবুর। জানা গিয়েছে, তাঁর ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর কারণ হিসেবে ডেঙ্গুর উল্লেখ রয়েছে। সুরজিতের আকস্মিক মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ পরিবার। কী ভবিষ্যৎ মৃতের স্ত্রী-সন্তানের তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পরিবার।

dengue

[আরও পড়ুন: ব্যাংক জালিয়াতির শিকার প্রাক্তন সেনাকর্মী, অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব লক্ষাধিক টাকা]

পশ্চিম বিষ্ণুপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বিপ্রদাস অধিকারী জানান, তাঁর এলাকায় ডেঙ্গুতে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটার দীর্ঘদিন আগে থেকেই এলাকায় ব্লিচিং পাউডার স্প্রে করা শুরু হয়েছে। নিয়মিত এলাকার আবর্জনা ও জমা জলও পরিষ্কার করা হচ্ছে বলেও জানান। কিন্তু তা সত্ত্বেও এই মৃত্যুর ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, রবিবার রাতে কলকাতায় ডেঙ্গুর বলি হন আরও এক যুবক। প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। কোন পথে হেঁটে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা সম্ভব তা ভাবাচ্ছে সকলকে।

[আরও পড়ুন: ‘সিএবি এবং এনআরসি একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ’, খড়গপুরের সভায় মন্তব্য মমতার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement