১৭  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কুখ্যাত দুষ্কৃতী কর্ণ বেরার বন্দুকের ঘায়ে জখম এএসআইয়ের মৃত্যু

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 6, 2018 3:37 pm|    Updated: December 6, 2018 3:37 pm

ASI Sushant Rana died in Contai

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: একাধিক মামলায় নাম জড়ানো কুখ্যাত দুষ্কৃতী কর্ণ বেরার বন্দুকের ঘায়ে জখম এএসআইয়ের মৃত্যু হল৷ বুধবার সন্ধেবেলায় অসুস্থ হয়ে পড়েন পুলিশ আধিকারিক সুশান্ত রানা৷ কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে৷ গভীর রাতে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে জানান৷ চিকিৎসকদের দাবি, হৃদরোগেই মারা গিয়েছেন ওই এএসআই৷ 

[ফিল্মি কায়দায় বোমা মেরে আসামি ছিনতাই, ধুন্ধুমার কাণ্ড কাঁথি আদালতে]

পুলিশ কনস্টেবলকে খুন, পেট্রল পাম্পে ডাকাতি-সহ একাধিক মামলায় নাম জড়িয়েছে কর্ণ বেরার৷ পেট্রল পাম্পে ডাকাতি মামলায় গত ৩ অক্টোবর পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলার কথা ছিল তাকে৷ ওইদিনই কর্ণকে আদালতে তোলার সময় বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী বোমা ও বন্দুক নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়৷ বোমাবাজি করে কর্ণকে ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তার সাগরেদরা৷ কর্ণকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এএসআই সুশান্ত রানা৷ অভিযোগ, সেই সময় কর্ণ ওই এএসআইয়ের মাথায় বন্দুকের বাঁট দিয়ে আঘাত করে৷ মাথায় চোট পেয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ওই পুলিশ আধিকারিক৷ ঘটনাস্থল ছেড়ে চম্পট দেয় কর্ণ৷ পরে যদিও তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷

[অমিত শাহর সভামঞ্চের পাশে বোমাবাজি, তীব্র উত্তেজনা কোচবিহারে]

এই ঘটনার পরই গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয় ওই এএসআইকে৷ পরে কলকাতার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে৷ দীর্ঘদিন ধরে চলে চিকিৎসা৷ দিনকয়েক আগেই সুস্থ হন৷ আবারও কাজে যোগ দিয়েছিলেন এএসআই সুশান্ত রানা৷ বুধবারও রুটিনমাফিক কাজে যোগ দিয়েছিলেন তিনি৷ সন্ধেবেলা কাঁথি আদালতের কাছে একটি এটিএমে গিয়েছিলেন ওই এএসআই৷ সেখানে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন৷ অচৈতন্য হয়ে যান৷ স্থানীয় বাসিন্দারা এটিএমের সামনে অচৈতন্য অবস্থায় দেখতে পান তাঁকে৷ কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয় এএসআই সুশান্ত রানাকে৷ বেশ কিছুক্ষণ চিকিৎসা চলার পর গভীর রাতে মারা যান তিনি৷ চিকিৎসকদের দাবি, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই মারা গিয়েছেন ওই এএসআই৷ নিহত সুশান্ত রানা, হাওড়ার বাসিন্দা৷ কর্মসূত্রে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথিতেই থাকতেন তিনি৷ আচমকা এএসআইয়ের মৃত্যুতে শোকের ছায়া গোটা পুলিশ মহলে৷

[চোলাই কারবারের রমরমা ঠেকাতে উন্নয়নই হাতিয়ার জেলা প্রশাসনের]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে