BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্কুলেই ছাত্রীর ‘যৌন নির্যাতন’, অভিযুক্ত শিক্ষককে বেধড়ক মার অভিভাবকদের

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 29, 2018 11:56 am|    Updated: September 29, 2018 11:56 am

Barrackpur: Student Molested in School, held teacher

ছবি: প্রতীকী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আবারও স্কুলেই নার্সারি ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ৷ উত্তপ্ত বারাকপুর গার্লস স্কুল৷ অভিযুক্ত শারীরশিক্ষার শিক্ষক৷ তাঁকে ঘিরে ধরে স্কুলে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখায় অভিভাবকরা৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিশাল পুলিশবাহিনী ও ব়্যাফ৷ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়৷

[রেলের গাফিলতিতেই প্রাণহানি! ওভারব্রিজ কাণ্ডে ক্ষোভে ফুঁসছে বারুইপুর]

বারাকপুর স্কুলে নার্সারি বিভাগের ক্লাস হয় সকালে৷ প্রতিদিনের মতো শুক্রবারও স্কুলে যায় ওই শিশুটি৷ স্কুল থেকে ছাত্রীকে তাঁর মা আনতে যান৷ ছুটি হয়ে গেলেও, বেশ কিছুটা পরে স্কুল থেকে বেরোয় সে৷ বাড়ি ফিরে গেলেও, দিনভর বেশ চুপচাপ ছিল শিশুটি৷ অস্বাভাবিক আচরণে সন্দেহ হয় ছাত্রীর মায়ের৷ স্কুলের কথা জানতে চাইলে কান্নায় ভেঙে পড়ে বছর চারেকের ওই শিশু৷ স্কুলে যাবে না বলেও জানায় সে৷ এরপরই সে মাকে জানায়, স্কুলের শারীরশিক্ষার শিক্ষক তাকে যৌন হেনস্তা করেছে৷

[ফের সেতু দুর্ঘটনা, বারুইপুরে রেল ওভারব্রিজের চাঙড় ভেঙে মৃত্যু মহিলার]

মেয়ের কথা শুনে ক্ষোভে ফেটে পড়েন ওই অভিভাবক৷ অন্যান্য অভিভাবকদেরও শিক্ষক সুজয় ধাড়ার ‘কুকীর্তি’-র কথা জানান শিশুর বাবা-মা৷ উত্তেজিত হয়ে পড়েন সকলেই৷ অভিভাবদের অভিযোগ, এই প্রথম নয়, এর আগে একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে অভব্য আচরণ করেছে শারীরশিক্ষার ওই শিক্ষক৷ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের দাবিতে প্রথমে স্কুলের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা৷ এরপর স্কুলের ভিতরে ঢুকে পড়েন উত্তেজিত অভিভাবকরা৷ অভিযুক্ত শিক্ষককে মারধরও করেন তাঁরা৷ ইতিমধ্যেই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বারাকপুর কমিশনারেটের বিশাল পুলিশবাহিনী৷ পুলিশ কমিশনার-সহ অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও ঘটনাস্থলে পৌঁছায়৷ ব়্যাফও নামানো হয়৷ উত্তপ্ত পরিস্থিতি সামাল দিতে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷ এখনও স্কুল চত্বরে বিশাল পুলিশবাহিনী ও ব়্যাফ মোতায়েন করা হয়েছে৷

[টিফিনের খরচ বাঁচিয়ে ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত রোশনীর পাশে পড়ুয়ারা]

বিক্ষোভের জেরে শনিবার দিনভর স্কুল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ যদিও ছাত্রীর যৌন হেনস্তায় ঘটনায় মুখ খুলতে নারাজ স্কুল কর্তৃপক্ষ৷ অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে