৯ ফাল্গুন  ১৪২৬  শনিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: নেতাজির জন্মদিন পালনকে কেন্দ্র করে বিতর্কে জড়াল জামালপুর ব্লকের কোলসড়া অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়। স্কুলের মধ্যেই শিক্ষকদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়লেন অভিভাবকরা। বেশ কিছুক্ষণ পর স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। স্কুলে এহেন ঘটনায় সমালোচনা শুরু করে হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

অভিভাবকদের তরফে জানানো হয়েছে, ২২ জানুয়ারি স্কুলের ক্লাসরুমের মধ্যেই নেতাজির ছবিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানানো হয়। কিন্তু ২৩ জানুয়ারি স্কুলের তরফে কোনও আয়োজন করা হয়নি। ২২ তারিখই জানিয়ে দেওয়া হয় যে এদিন স্কুল ছুটি থাকবে। পড়ুয়ারা বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি জানালে অভিভাবকরা বৃহস্পতিবার স্কুলে হাজির হন। তাঁরাই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। পতাকা উত্তোলন করা হয়। নেতাজির ছবিতে মাল্যদান করে খুদে পড়ুয়ারা। বিষয়টি জানতে পেরে স্কুলে হাজির হন প্রধান শিক্ষিকা ইন্দিরা লাহা ও পার্শ্বশিক্ষক সোমনাথ ঘোষ। অভিভাবকদের বাধা দেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: সভার আগেই টিটাগড়ে কানহাইয়ার নামে বিতর্কিত পোস্টার, আটক ৮ বিজেপি কর্মী]

এরপরই অভিভাবকদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে অভিভাবকরা। কথা কাটাকাটি থেকে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দু’পক্ষ। অভিযোগ, সোমনাথ ঘোষ নামে ওই শিক্ষককে বেধড়ক মারধর করা হয়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। দীর্ঘক্ষণ পর আয়ত্তে আসে পরিস্থিতি। কিন্তু কেন নেতাজির জন্মদিনে স্কুলের তরফে কোনও আয়োজনই করা হল না? কেনই বা আগেভাগে সেরে ফেলা হয় অনুষ্ঠান, প্রশ্ন তুলছেন স্থানীয়রা।

[আরও পড়ুন: ‘হিন্দু মহাসভার বিরোধিতা করেছিলেন নেতাজি’, দেশনায়কের জন্মদিনে বিজেপিকে নিশানা মমতার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং