BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দলীয় কর্মীদের হাতে ঘেরাও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনোজ সিনহা, উত্তেজনা গাড়ুলিয়ায়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 26, 2017 11:04 am|    Updated: September 22, 2019 3:11 pm

Central minister manoj sinha faces the wrath of his own partymen in Garulia

আকাশনীল ভট্টাচার্য, ব্যারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনার গাড়ুলিয়ার দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভে মুখে পড়লেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপি নেতা মনোজ সিনহা। রবিবার পিনকল মোড়ে মন্ত্রীর গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখান সদ্য বিজেপি যোগ দেওয়া প্রাক্তন কাউন্সিলর উষা চৌধুরী ও তাঁর অনুগামীরা। পরে পুলিশ ও বিজেপি স্থানীয় নেতারা গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেন।

[সবংয়ে তৃণমূলের প্রার্থী মানসপত্নী গীতারানি ভুঁইয়া]

একসময়ে গাড়ুলিয়া পুরসভার কংগ্রেস কাউন্সিলর ছিলেন উষা চৌধুরী। সম্প্রতি দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি। রবিবার নোয়াপাড়া পিনকল মোড়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে  কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী মনোজ সিনহার গা়ড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন উষা ও তাঁর অনুগামীরা। এদিন দলের একটি অভ্যন্তরীণ কর্মসূচিতে যোগ দিতে গাড়ুলিয়ায় এসেছিলেন এই বিজেপি নেতা ও মন্ত্রী। পিনকল মোড়ে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে দলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। কিন্তু, বৈঠক সেরে বেরোনো সময়ে আচমকাই মন্ত্রীর গাড়ি ঘেরাও করেন বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয় বিজেপি নেতা উষা চৌধুরী ও  তাঁর অনুগামীরা। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, গাড়ুলিয়া বিজেপি একটি দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করার কথা ছিল মনোজ সিনহার। কিন্তু, কথা দিয়ে উদ্বোধন করতে আসেননি তিনি। প্রায় কুড়ি মিনিট ধরে চলে বিক্ষোভ।

[বাবা প্রতিবন্ধী বলে অবজ্ঞা, প্রেমিকার অপমানে আত্মঘাতী যুবক]

ঘটনায় বেজায় অস্বস্তিতে পড়েন স্থানীয় বিজেপি নেতারা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন উত্তর ২৪ জেলার শীর্ষস্থানীয় বিজেপি নেতারা। যায় পুলিশও। তাঁদের মধ্যস্থতায় বিক্ষোভ তুলে নেওয়া হয়। বাড়তি পুলিশ নিরাপত্তায় এলাকা ছাড়েন কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী মনোজ সিনহা।

[হনুমানের মৃত্যুতে শোকমিছিল এলাকায়, চাঁদা তুলে শ্রাদ্ধ-শান্তির আয়োজন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে