৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: জমি দখলকে কেন্দ্র করে বিবাদের জেরে এক অবসরপ্রাপ্ত উচ্চমাধ্যমিক স্কুল শিক্ষককে বেধড়ক মারধোর ও প্রাণে মারার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠল এক প্রোমোটারের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার সকালে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপাড়ার দ্বারিক জঙ্গল রোড। এই ঘটনায় আক্রান্ত ওই অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক নীহারকান্তি পাল ওই অভিযুক্ত প্রোমোটারের বিরুদ্ধে উত্তরপাড়া থানায় মারধোরের ও প্রাণে মারার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

ঘটনা সূত্রে জানা যায় আক্রান্ত নীহারকান্তি পাল হিন্দমোটর ভূপেন্দ্র স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক। নীহারবাবুর অভিযোগ, তাঁদের বাড়ির লাগোয়া নিজস্ব জমি জোর করে দখল করে বহুতল আবাসন বানানোর জন্য প্রোমোটার তাদেরকে হুমকি দিচ্ছে। এ নিয়ে আদালতে মামলাও চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির জমিতেই নোংরা আবর্জনা পড়ে থাকতে দেখে তিনি ওই আবর্জনা পরিস্কার করছিলেন। সেসময় প্রোমোটারেরই ৪ জন ছেলে তাঁকে রীতিমতো হুমকি দিয়ে মামলা তুলে নিতে বলে। নীহারবাবু প্রত্যুত্তরে বলেন যা হবার আইনের পথেই হবে। অভিযোগ, এই কথা বলার পরই ওই ৪ যুবক রীতিমতো অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে ‘আইন দেখাচ্ছিস’ বলে তাঁকে মারতে উদ্যত হয়। চলতে থাকে কিল-চড়। ওই যুবকদের বিরুদ্ধে বাড়ির জলের পাইপ লাইন ভেঙে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ, শিক্ষকের প্রতিবন্ধী ভাইয়ের ট্রাই সাইকেলটাও ভেঙে দেয় তারা। চলে যাওয়ার আগে অভিযুক্তরা শিক্ষককে প্রাণে মারার হুমকি দেয় বলেও অভিযোগ।

[ আরও পড়ুন: ছেলেকে খুনের প্রতিশোধ! বৃদ্ধাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা সন্তানহারা বাবার ]

নীহারবাবু বলেন, প্রমোটার প্রদীপ ভট্টাচার্য ও তার সহযোগী বিজয় দাস তাঁদের উপর চাপ সৃষ্টি করে জমি দখল করার চেষ্টা চালাচ্ছে। যে কোনও সময় তাদের প্রাণহানি ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন নীহারবাবু ও তার ভাইবোনেরা। এ নিয়ে তিনি উত্তরপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। এই বিষয়ে প্রোমোটারের সহযোগী বিজয় দাস অভিযোগ অস্বীকার করে জানান মাস্টারমশাই তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করছেন। তারা নিজেদের জমির উপর দাঁড়িয়ে নিজেদের মধ্যে কথা বলছিলেন। মাস্টারমশাইরা নিজেরাই গাড়ি, জলের লাইন ভাঙচুর করে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করছেন। উত্তরপাড়া কোতরং পুরসভার চেয়ারম্যান দিলীপ যাদব এই বিষয়ে জানান, পুলিশ আইনের পথে কাজ করবে। তবে বিষয়টি যেহেতু আদালতে বিচারাধীন, তাই পৌরসভা কোনও হস্তক্ষেপ করতে পারে না। উত্তরপাড়া থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। তবে ইতিমধ্যে পুলিশ প্রোমোটার প্রদীপ ভট্টাচার্য্যের বাড়িতে হানা দিলেও তার দেখা পায়নি।

[ আরও পড়ুন: উদ্ধারে নেমে বারবার বদলেছে পরিকল্পনা, তবু এনডিআরএফেই ভরসা স্থানীয়দের ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং