১৪ মাঘ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

বাবুল হক, মালদহ: হায়দরাবাদ, বিহারের গণধর্ষণ ও পুড়িয়ে খুনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি এবার এ রাজ্যের মালদহে। কোতোয়ালি থানার ধানতলা গ্রাম থেকে উদ্ধার তরুণীর নগ্ন পোড়া দেহ। ইতিমধ্যেই দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, গণধর্ষণের পর খুন করা হয়েছে তরুণীকে। অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তদন্ত।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে মালদহের কোতোয়ালি থানা এলাকার বাসিন্দারা ধানতলার এক ফাঁকা মাঠে তরুণীর পোড়া দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। প্রথমে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ যায় ঘটনাস্থলে। এরপর পৌঁছয় মহিলা থানার পুলিশ ও ডিএসপি প্রশান্ত দেবনাথ। ঘটনাস্থলে যান পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া। তাঁর উপস্থিতিতেই দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। ডিএসপি জানিয়েছেন, “বৃহস্পতিবার সকালেই নারকীয় এই ঘটনা ঘটেছে। তরুণীর ঊর্ধ্বাঙ্গ পুড়ে গিয়েছে। যৌনাঙ্গে গভীর ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে গণধর্ষণের শিকার ওই তরুণী।ধর্ষণের পর প্রমাণ লোপাটের জন্য কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে দেওয়া হয় তাঁকে।” যদিও পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়ার কথায়, “এক তরুণীর পোড়া দেহ উদ্ধার হয়েছে। কিন্তু গণধর্ষণের ঘটনা কি না তা তদন্ত সাপেক্ষ। ময়নাতদন্তের পর গোটা বিষয়টি স্পষ্ট হবে।” তদন্তকারীদের তরফে জানানো হয়েছে, তরুণীর পরিচয় এখনও জানা যায়নি। ইতিমধ্যেই তরুণীর পরিচয় ও অভিযুক্তদের সন্ধান পেতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অবিলম্বে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব মালদহের বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন: সহকর্মীর গুলিতে মৃত্যু বাংলার ২ ITBP জওয়ানের, তদন্তের দাবি শোকে পাথর পরিজনদের

হায়দরাবাদ ও বিহার গণধর্ষণ কাণ্ডে উত্তাল গোটা দেশ। ঘটনার নিন্দায় সরব সব মহল। ইতিমধ্যেই পুলিশের জালে ধরা পড়েছে হায়দরাবাদ কাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ যুবক। তাদের কঠোরতম শাস্তির অপেক্ষায় দেশবাসী। এই পরিস্থিতির মধ্যেই একের পর এক বিকৃত লালসার শিকার তরুণীরা। 

আরও পড়ুন: সোনার হার না পেয়ে ভিডিও কলে আত্মহত্যার প্ররোচনা প্রেমিকার, আত্মঘাতী যুবক

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং