৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ধীমান রায়, কাটোয়া: রাতের অন্ধকারে মণ্ডপে তাণ্ডব দুষ্কৃতীদের। বুধবার সকালে স্থানীয়রা তা দেখতে পান। এই ঘটনায় উত্তেজিত পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামের শ্রীরামপুর গ্রামের বাসিন্দারা। কেতুগ্রাম থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তাঁরা। কে বা কারা এই ঘটনা ঘটাল, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: দশমীতে তরুণীর শ্লীলতাহানিকে ঘিরে ধুন্ধুমার রায়গঞ্জে, আটক টিএমসিপি নেতা]

কেতুগ্রাম থানার নিরোল পঞ্চায়েত এলাকার শ্রীরামপুর গ্রামের সরকার পরিবারের পুজো প্রায় ৩০০ বছরের প্রাচীন। পারিবারিক পুজো হলেও বর্তমানে এই পুজো প্রকৃতপক্ষেই সর্বজনীন হয়ে উঠেছে। গ্রামবাসীরা সকলেই এই পুজোয় অংশ নেন। নিয়ম মেনে মঙ্গলবার রাতে দশমীর আরতির পর মন্দিরের গেটে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছিল।পরিবারের সদস্য প্রতুল সরকার বলেন, “বুধবার সকালে দেখি গেটে তালা একইভাবে ঝুলছে। কিন্তু মন্দিরের জানালার শিক ভাঙা। মণ্ডপে তাণ্ডব দুষ্কৃতীদের।”

[আরও পড়ুন: একাদশীতে কলকাতায় দিনভর চলবে বর্ষণ, লক্ষ্মীপুজোতেও বৃষ্টির ভ্রুকুটি]

ঘটনা জানাজানির পর মন্দির চত্বরে প্রচুর লোকজন ভিড় করেন। পরে মন্দির থেকে প্রায় দেড়শো ফুট দূরে একটি পুকুর পাড় থেকে প্রতিমার কেটে নিয়ে যাওয়া মাথা উদ্ধার হয়।

 

[আরও পড়ুন: বিসর্জন দেখতে গিয়ে নৌকাডুবি, মালদহের বৈষ্ণবনগরে মৃত ৩ শিশু]

পরিবারের পক্ষ থেকে কেতুগ্রাম থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। প্রতুল সরকার আরও বলেন, “মঙ্গলবার প্রতিমা নিরঞ্জনের কথা ছিল। কিন্তু বৃষ্টির জন্য বিসর্জন করা সম্ভব হয়নি।” বুধবার দুপুরে ওই প্রতিমা বিসর্জন করা হয়েছে। কারা এমন কাণ্ড ঘটল, তা জানা যায়নি। পরিবারের লোকেরা এই ঘটনায় কারা জড়িত, সে বিষয়ে কিছুই বলতে পারছেন না। পুলিশ গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং