১২ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ২৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সরকারি চাকরির পরীক্ষায় ‘হাইটেক টুকলি’! পুলিশের জালে ‘মুন্নাভাই’

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: September 23, 2018 7:26 pm|    Updated: September 23, 2018 7:26 pm

Katwa: two arrested for cheating in competitive exam

ধীমান রায়, কাটোয়া:  ঠিক যেন মুন্নাভাই। জুতোর সোলে লুকানো ছিল মোবাইল ডিভাইস। আর কানে ছোট একটি ব্লু টুথ। রাজ্য পুলিশের কনস্টেবলের পদে নিয়োগের পরীক্ষায় নকল করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেল দুই পরীক্ষার্থী। দু’জনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ায়।

[ পরিবার প্রেমের স্বীকৃতি দেয়নি, একই ওড়নার ফাঁসে আত্মঘাতী যুগল]

প্রযুক্তি কল্যাণে এখন গোটা দুনিয়ায় কার্যত হাতের মুঠোয়। বদলে গিয়েছে মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাপনও। প্রযুক্তির সাহায্যেই চাকরির পরীক্ষায় নকল করার পরিকল্পনা ছিল দুই কর্মপ্রার্থীর। কিন্তু, শেষরক্ষা হল না। রুটিন তল্লাশির সময়ে ধরা পড়ে গেলেন দু’জনেই। রবিবার রাজ্য পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগের পরীক্ষা ছিল। পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া মহকুমার ১৪টি পরীক্ষাকেন্দ্রে পরীক্ষায় বসেছিল পাঁচ হাজার কর্মপ্রার্থী। ১৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩টি পরীক্ষাকেন্দ্রই আবার ছিল কাটোয়া শহরে। পুলিশ জানিয়েছে, কাটোয়া কলেজে সিট পড়েছিল চিন্ময় ঘোষ নামে এক যুবকের। পরীক্ষাকেন্দ্র ঢোকার আগে তখন মেটাল ডিটেকটরে কর্মাপ্রার্থীদের ব্যাগ ও দেহের তল্লাশি চলছিল। তল্লাশির পর পরীক্ষার হলে নিজের আসনে বসেও পড়েছিল চিন্ময়। কিন্তু, তাঁর হাতে ব্যান্ডজ দেখে সন্দেহ হয় পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(গ্রামীণ) রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায়ের। মেটাল ডিকেটরের সাহায্য ফের তল্লাশ নির্দেশ দেন তিনি। কাটোয়া কলেজে কর্তব্যরত নিরাপত্তারক্ষীদের দাবি, তল্লাশির জন্য যখন জুতো খুলছিল চিন্ময়, তখন জুতোর সোলের ফাঁক গলে মোবাইল ডিভাইসটি বেরিয়ে পড়ে। সেটি দেখতে অনেকটা মাস্টার কার্ডের মতোই। এরপর হাতের ব্যান্ডেজটি খুলতেই ব্লু টুথটিও বেরিয়ে আসে। চিন্ময় ঘোষকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। কাটোয়ার রামকৃষ্ণ বিদ্যাপীঠ সিট পড়েছিল অপর অভিযুক্ত অচ্যুৎ ঘোষের। সেও একই কায়দায় নকল করার পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু, যথারীতি মেটাল ডিটেকটরে তল্লাশি সময়ে ধরা পড়ে যায়। অচ্যুৎ ঘোষকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের কাছ থেকে মোবাইল ডিভাইস ও ব্লু টুথটি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

পুলিশের দাবি, ধৃতেরা জেরায় জানিয়েছেন, কনস্টেবল নিয়োগের পরীক্ষা টুকলি করার জন্য মোবাইল ডিভাইস ও ব্লু টুথটি ভাড়া করেছিল তাঁরা। যাঁরা ভাড়া দিয়েছিল, তাঁরাই পরীক্ষাহলে প্রশ্নের উত্তরও বলে দিত। প্রতি প্রশ্নের উত্তর জানার জন্য বরাদ্দ ছিল মাত্র ১০ সেকেন্ড। কিন্তু,  কনস্টেবল পদে চাকরিপ্রার্থীদের এমন যন্ত্র কারা ভাড়া দিল? তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

ছবি: জয়ন্ত দাস

[ পুজোয় হাসবে ওরাও, হাতখরচ বাঁচিয়ে পথশিশুদের জামা দিলেন তমলুকের যুবকরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে