BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রীকে ঘিরে বিক্ষোভ, ধুন্ধুমার দুর্গাপুর শিল্পতালুকে

Published by: Tanujit Das |    Posted: November 30, 2018 12:51 pm|    Updated: November 30, 2018 8:44 pm

Minister faces protest in Durgapur

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রী চৌধুরি বীরেন্দ্র সিং-কে ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন  দুর্গাপুর শিল্পতালুকের প্রায় পাঁচশোজন অ্যাপ্রেনটিজ বা শিক্ষানবিশ৷ আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হল দুর্গাপুর ইস্পাতনগরীতে৷ বিক্ষোভরত শিক্ষানবিশদের উপর লাঠিচার্জ করলেন সিআইএসএফ-এর অফিসাররা৷ লাঠির আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন তিন মহিলা-সহ মোট পাঁচজন৷ আহতদের সকলকে ভরতি করা হয়েছে স্থানীয় হাসপাতালে৷ তাঁদের চোট গুরুতর নয় বলেই হাসপাতাল সূত্রে খবর৷

[মাকে দাহ করে এসে চোলাই মদের বিষে মৃত্যু ছেলের]

জানা গিয়েছে, একদিনের সফরে বৃহস্পতিবার রাতে দুর্গাপুরে এসেছেন কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রী চৌধুরি বীরেন্দ্র সিং৷ শুক্রবার দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্ট, অ্যালয় স্টিল প্ল্যান্ট এবং ইসকো স্টিল প্ল্যান্ট (বার্নপুর) পরিদর্শনে যাওয়ার কথা তাঁর৷ সূত্রের খবর, এদিন সকালে দুর্গাপুর হাউস থেকে মন্ত্রী বের হওয়ার আগেই, সেখানে এসে জমায়েত করেন কমবেশি পাঁচশো অ্যাপ্রেনটিজ৷ যাঁদের মধ্যে কেউ ২০১৬ থেকে বা কেউ তারপর থেকে দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্টে শিক্ষানবিশ হিসাবে কাজ করছেন৷ ওই সমস্ত শিক্ষানবিশদের অভিযোগ, দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্টের স্থায়ী কর্মীদের মতোই প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয় তাঁদেরও৷ উৎপাদনের কাজেও সরাসরি যুক্ত রয়েছেন তাঁরা৷ এমনকী, স্টিল প্ল্যান্টের স্থায়ী কর্মীদের মতোই দৈহিক ও মানসিক পরিশ্রম করতে হয়  তাঁদেরও৷ কিন্তু ফারাক রয়েছে পারিশ্রমিকের৷ স্থায়ী কর্মীদের তুলনায় অনেক কম পারিশ্রমিক দেওয়া হয় তাঁদের৷ প্রতিদিন তাঁরা পান মাত্র ২৫০ টাকা মজুরি৷ এমনকী, ট্রেনিং শেষে তাঁদের মেলেনা স্থায়ী চাকরিটুকুও৷ কেবল একটা সার্টিফিকেট দিয়েই দায়িত্ব ঝেড়ে ফেলেন দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্ট কর্তৃপক্ষ৷

[চার জেলায় মোদির সভা, সম্ভাব্য তালিকা প্রকাশ বঙ্গ বিজেপির]

শিক্ষানবিশদের দাবি, শুক্রবার সকালে এই সমস্ত অভিযোগ সম্বলিত একটি পত্র প্রথমে কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দেন তাঁরা এবং সরাসরি সাক্ষাৎ করতে চান কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে৷ কিন্তু তাঁদের দেখা করতে দেওয়া হয় না৷ বরং তাঁদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ৷ লাঠির আঘাতেই আহত হন তিন মহিলা-সহ মোট পাঁচজন৷ সূত্রের খবর, দুর্গাপুর শিল্পতালুকে বর্তমানে শিক্ষানবিশ হিসাবে কাজ করছেন প্রায় ছ’শো জন যুবক-যুবতি৷ আগে নিয়ম ছিল যে, যাঁরা শিক্ষানবিশ হিসাবে কাজ করবেন, তাঁদের ট্রেনিং শেষে চাকরি দিতে হবে৷ কিন্তু ২০০৯-তে বন্ধ হয়ে যায় সমগ্র ট্রেনিং ও চাকরি প্রক্রিয়া৷ ২০১৬ থেকে আবার ট্রেনিং প্রক্রিয়া চালু হলেও, চাকরি দেওয়ার বিষয়টি ঠান্ডা ঘরেই পাঠিয়ে দেয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ৷ কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রীর কাছে এই সমস্ত অভিযোগ নিয়েই শুক্রবার দরবার করেছিলেন শিক্ষানবিশরা৷

ছবি: উদয়ন গুহ রায়

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে