২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

সোমনাথ পাল, বনগাঁ: বাড়ির অমতে মেয়ের বিয়ে মানতে পারেননি তাঁর পরিজনেরা৷ তাই জামাইকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল কনের বাড়ির লোকজনদের বিরুদ্ধে৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি ওই যুবক৷ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে বাগদা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি৷

[অপদেবতার প্রকোপ রুখতে বাবার ১০ আঙুল কাটা হয়েছে, আদালতে কবুল ছেলের]

উত্তর ২৪ পরগনার কুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা জবা বাগ৷ এলাকারই বাসিন্দা প্রতাপ মান্নার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল তাঁর৷ প্রতাপের সঙ্গে সম্পর্ক মানতে চায়নি জবার পরিবার৷ মঙ্গলবার জবার বাড়ির অমতেই বিয়ে করেন দুজনে৷ বুধবার জবার বাড়ি থেকে সম্পর্ক মেনে নেওয়ার কথা জানান৷ সেই মতো জবার পরিবারের লোকজন গাড়ি ভাড়া নিয়ে প্রতাপের বাড়িতে যায়৷ নবদম্পতিকে আশীর্বাদও করেন তাঁরা৷ এরপর ওই ভাড়া গাড়িতে করে দুজনকে নিয়ে জবার বাড়িতে আসছিলেন তাঁর পরিজনেরা৷ অভিযোগ, ওই গাড়িতেই বেধড়ক মারধর করা হয় প্রতাপকে৷ এরপর জখম প্রতাপকে গাড়িতে করে বাড়ি থেকে বেশ কিছুটা দূরে নিয়ে যাওয়া হয়৷ রক্তাক্ত অবস্থায় গাড়ি থেকে লাথি মেরে ফেলেও দেওয়া হয় প্রতাপকে৷ 

[বিএসএফ আধিকারিক সেজে প্রতারণা! ১৯ হাজার টাকা খোয়ালেন বৃদ্ধ]

ছেলের মারধর খাওয়ার খবর পৌঁছায় প্রতাপের বাড়িতে৷ তাঁর বাবা পৌঁছান ঘটনাস্থলে৷ আক্রান্ত প্রতাপকে উদ্ধার করেন তাঁর বাবা৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রতাপকে উদ্ধার করে বাগদা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানেই আপাতত ভরতি রয়েছেন প্রতাপ৷ তাঁর বাবা মহেন্দ্র মান্নার অভিযোগ, গাড়ির ভিতরেই বেধড়ক মারধর করা হয় প্রতাপকে৷ লোহার রড দিয়ে মাথায় আঘাতের চিহ্নও রয়েছে তাঁর৷ এই ঘটনায় সুবিচারের আশায় পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন প্রতাপ ও তাঁর পরিজনেরা৷ জবার বাপেরবাড়ির সাত জন সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন তাঁরা৷  অভিযোগ খতিয়ে দেখে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন আধিকারিকরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং