৫ মাঘ  ১৪২৫  রবিবার ২০ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নিজস্ব সংবাদদাতা, তেহট্ট: আয়ুষ্মান প্রকল্প থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিল রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার কৃষ্ণনগর গভর্নমেন্ট কলেজের মাঠ থেকে কেন্দ্র সরকার তথা বিজেপিকে একহাত নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই সিদ্ধান্ত জানান। তিনি বলেন, ‘আয়ুষ্মান ভারত থেকে উইথড্র করে নিলাম। অর্থাৎ তোমার থেকে তুমি টাকা দেবে। আমি দেব না। তুমি চিঠি দিয়ে বলবে তুমি করেছো। আমি কেন টাকা দেব?’

এ প্রসঙ্গে সবিস্তারে বলতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘পোস্ট অফিসের মাধ্যমে একটা চিঠি দিচ্ছে। আসল কিনা তাও জানিনা। বলছে স্বাস্থ্যবিমা করে দিলাম। স্বাস্থ্যবিমা করবে কোথা থেকে? তোমার বাজেট কোথায়? ওখানে চল্লিশ শতাংশ রাজ্যের আছে। চল্লিশ টাকা করে রাজ্য দেয়। তোমার একার নয়। আয়ুষ্মান ভারত থেকে উইথড্র করে নিলাম। অর্থাৎ তোমার থেকে তুমি টাকা দেবে। আমি দেব না। তুমি চিঠি দিয়ে বলবে তুমি করেছ। আমি কেন টাকা দেব। আপনারা বলুন আপনি একটা জমি কিনলেন। সেই জমি অন্য কেউ এসে বলল লিখে দেন। দেবেন? তুমি রাজ্যকে বাদ দিয়ে ভোটের আগে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি মিথ্যাচার করবে আমি মেনে নেব না। তোমরা কি করেছ মানুষ জানে না? বেকার বাড়িয়ে দিয়েছ। আমরা ফর্টি পারসেন্ট বেকার কমিয়ে দিয়েছি। আজকেও আমি চিঠিটা পড়লাম। ওদের লোগোটা পদ্ম যেন। দেখে ধান্দাবাজি, দাঙ্গা, চক্রান্ত করার মনে হচ্ছে।’

[উপাচার্য ও কলেজ অধ্যক্ষদের সঙ্গে নবান্নে জরুরি বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী]

এদিন আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়াতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশ্যে বলেন, ‘উনি স্বাস্থ্য, ঘর, সব করে দিচ্ছেন। তাহলে তো রাজ্যের দরকার নেই। আপনি প্যারালাল স্টেট গভর্নমেন্ট চালাচ্ছেন? এত জঘন্য, নগণ্য সরকার দেখিনি। মোদি সরকার প্যারালাল ইনস্টিটিউট চালাচ্ছে। আমার কাছে ডকুমেন্ট আছে। লোগো দেখেছি। আগুন নিয়ে খেলবেন না।’ বলে সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, রিজার্ভ ব্যাংক, সিবিআই, ইনস্টিটিউটগুলোর বারোটা বাজাচ্ছেন। সবকিছু বদলে দিচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভয় পায় না। পাঠান কত ইডি, সিবিআই আছে দেখি। আমি দেখতে চাই। ফেডেরাল ফ্রন্ট তছনছ করে দিচ্ছে। তফসিলি, আদিবাসী, সংখ্যালঘুরা যা অত্যাচারিত হয়েছে কড়ায় গণ্ডায় উসুল করে নেবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি। এদিন মুখ্যমন্ত্রী শস্যবিমা নিয়ে বলেন, কৃষক বন্ধুরা জেনে রাখুন ব্যাংকে শস্যবিমার নামে যে টাকা জমা পড়ে রাজ্য তাতে আশি টাকা দেয়৷ রাজ্য ধিক্কার জানায় এ রাজনীতির। তিনি রাফালে নিয়েও কেন্দ্রকে আক্রমণ করেন। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বনধের দিন বোমা মারা প্রসঙ্গে সিপিএমের নেতাদের উদ্দেশ্যে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং