১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ৩২ হাজার টাকা চাঁদা না দেওয়ায় ব্যবসায়ীদের মারধর

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 12, 2018 6:49 pm|    Updated: August 12, 2018 6:50 pm

The businessman beat up the not paying levy

শুভদীপ রায় নন্দী, শিলিগুড়ি: অতিরিক্ত চাঁদার দাবি করে ফুল বিক্রেতাকে মারধরের অভিযোগ চার যুবকের বিরুদ্ধে। রবিবার সকালের এই ঘটনার প্রতিবাদে শিলিগুড়ি থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখালেন শিলিগুড়ির ব্যবসায়ীরা।

অভিযোগ, ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবস পালন করার জন্য মহাবীরস্থানের ফুল ব্যবসায়ীদের থেকে ৩২ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে স্থানীয় কিছু যুবক। এত টাকা ফুল ব্যবসায়ীরা দিতে অস্বীকার করেন৷ দাবি অনুযায়ী চাঁদা না পেয়ে স্থানীয় যুবকরা ফুল ব্যবসায়ীদের মারধর করে বলে অভিযোগ৷ ঘটনায় এক ফুল বিক্রেতার স্ত্রী ও ছেলে হাসপাতালে ভরতি রয়েছে৷ এদিনের এই ঘটনার বিরুদ্ধে শিলিগুড়ি ফুল ব্যবসায়ী জনকল্যাণ সমিতির তরফে শিলিগুড়ি থানায় স্মারকলিপি দিয়ে তদন্তের দাবি জানানো হয়েছে। এবিষয়ে শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের ডিসিপি (জোন ১) গৌরব লাল বলেন, ‘‘বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে৷’’

[জঙ্গল থেকে দল বেঁধে গ্রামে ঢুকছে দলমার হাতি, আতঙ্কে স্থানীয়রা]

জানা গিয়েছে, বিগত চার বছর ধরে মহাবীরস্থান উড়ালপুলের নিচে কলকাতা থেকে ফুল এনে শিলিগুড়িতে বিক্রি করেন ব্যবসায়ীরা৷ অভিযোগ,  পুরনিগমের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বেশ কয়েকজন যুবক এই ব্যবসায়ীদের থেকে তোলা নিয়ে ব্যবসার অনুমতি দেয়৷ এবিষয়ে হকার্স কর্নার ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক বাবলু পাল বলেন, ‘‘ফুল ব্যবসায়ীরা আমাদের সংস্থার অধীনে নেই। ফুল ব্যবসায়ীদের থেকে স্থানীয় কিছু যুবক টাকা তুলে এই ব্যবসা চালানোর অনুমোদন দেয়। তারা এই ব্যবসা কীভাবে চালিয়ে যাচ্ছে তা নিয়ে আমাদেরও সংশয় রয়েছে। পুলিশ ও প্রশাসনের এই বিষয়টা দেখা  উচিত৷’’

[তিনমাস ধরে লাগাতার হয়রানি, অবশেষে রেলের পাস পেলেন জন্মান্ধ যুবক]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে ফুল ব্যবসায়ীদের কাছে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে স্থানীয় যুবকরা ৩২ হাজার টাকা দাবি করে। তার পরিবর্তে ব্যবসায়ীরা ১৬ হাজার টাকা দিতে রাজি হয় ব্যবসায়ীরা। কিন্তু ৩২ হাজার টাকাই দাবি করে যুবকরা। এত টাকা দিতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেন ফুল ব্যবসায়ী সংস্থার সম্পাদক অংশু মণ্ডল। এরপরই যুবকরা তাঁকে ও তাঁর স্ত্রী ও ছেলে বেধড়ক মারধর করে। অন্যান্য ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ করলে সেখান থেকে চলে যায় যুবকরা। এরপরই ব্যবসায়ীরা নিরাপত্তার দাবিতে শিলিগুড়ি থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায়। পাশাপাশি অংশুবাবু থানায় লালন সরফ, বিকি সরফ, বিকাশ সরফ ও মহম্মদ মোক্তার নামে চার যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেখায়। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে