২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বামেদের শ্রমজীবী ক্যান্টিনের পালটা, সুলভে খাবার বিলি করতে হাওড়ায় শুরু ‘মমতার মমতা’

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 18, 2020 3:19 pm|    Updated: September 18, 2020 3:24 pm

An Images

অরিজিৎ গুপ্ত, হাওড়া: লকডাউনের দুঃসময়ে সমাজের নিম্নবিত্ত মানুষজনের পাশে দাঁড়াতে জনদরদী বামপন্থীরা (Left) চালু করেছিলেন কমিউনিটি কিচেন – শ্রমজীবী ক্যান্টিন। মাত্র ২০ টাকায় ভরপেট খাবার। একঘেয়েমি কাটাতে মেনুতে রকমফের। যাদবপুরের সেই ক্যান্টিন প্রায় দু’শো দিন রমরমিয়ে চলেছে। সেই অনুপ্রেরণা নিয়েই এই মুহূ্র্তে রাজ্যের বেশ কয়েকটি প্রান্তে চলছে বামেদের শ্রমজীবী ক্যান্টিন। তাতে উপকৃতও হচ্ছেন লকডাউনে কাজ হারানো প্রচুর মানুষ। অন্তত একবেলা অন্নের জোগাড় নিয়ে ভাবতে হচ্ছে না। এই ক্যান্টিনের হাত ধরেই ফের ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন বহু বাম সমর্থক। এই আবহে পিছিয়ে থাকবে কেন রাজ্যের শাসকদল? বিশেষত যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এত জনসেবামূলক প্রকল্প। এবার তাই নিরন্নদের মুখে অন্ন তুলে দিতে হাওড়ায় চালু হল সুলভ আহারের ঠিকানা – ‘মমতার মমতা’ (Mamata’r Mamata)।

Community-Kitchen-TMC
চলছে রান্নার তোড়জোড়

বৃহস্পতিবার বিশ্বকর্মা পুজো ও মহালয়ার বিশেষ দিনে সালকিয়ায় চালু হল তৃণমূলের কমিউনিটি কিচেন (Community Kitchen) – মমতার মমতা। ৩ নম্বর ওয়ার্ড কমিটির উদ্যোগে শুরু হল সুলভ মূল্যের এই কিচেন। আগামী ৭ দিন এখানে মাত্র ২০ টাকায় মিলবে পেটপুরে মধ্যাহ্ন‌ভোজ। এই ওর্য়াডের প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর (Ex Councellor of TMC) বাপি মান্না বলেন, ”সালকিয়ায় বহু শ্রমিক শ্রেণির মানুষ রয়েছেন। যাঁরা দীর্ঘ লকডাউনের জেরে কাজ হারিয়েছেন। এই সব দুস্থ মানুষদের সাহায্য করতে কম মূল্যে খাবার পরিবেশন করা হবে।” তিনি আরও জানান যে প্রতিদিন কয়েকশো মানুষের জন্য মাত্র কুড়ি টাকায় মাছভাতই শুধু নয়, মাংস-ভাতের ব্যবস্থাও করা হয়েছে। থাকছে পার্সেল পরিষেবাও।

[আরও পড়ুন: অপহরণের দেড় দিন পর ঝোপে মিলল বর্ধমানের তৃণমূল নেতার ছেলের দেহ, গ্রেপ্তার ৩]

রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা, লকডাউনে বামেদের শ্রমজীবী ক্যান্টিনের বিরাট জনপ্রিয়তায় একটু ধাক্কা খেয়েছে রাজ্যের শাসকদল। বিশেষত এখানে প্রত্যেক শ্রেণির মানুষের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এত জনকল্যাণমূলক কর্মসূচি, প্রকল্প, সেখানে ভুখা মানুষজনের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করার কথা আগে ভাবা হয়নি বলে খানিক আক্ষেপ রয়ে গিয়েছিল। ‘মমতার মমতা’ চালুর উদ্যোগ সেখান থেকেই। এই উদ্যোগ সাফল্যের মুখ দেখলে হয়ত আরও বৃহৎ আকারে তা চালু করা হতে পারে।

[আরও পড়ুন: তৃণমূলের ‘গোষ্ঠী সংঘর্ষে’ রণক্ষেত্র কেশপুর, বোমাবাজিতে কিশোর-সহ মৃত ২]

যদিও এ বিষয়ে কোনও রাজনীতির যোগ আছে বলে মনেই করছেন না সালকিয়ায় ‘মমতার মমতা’ ক্যান্টিনের মূল উদ্যোক্তা ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর। তাঁর সাফ কথা – দরিদ্র, অভুক্ত মানুষজনের অভাব ঘোচাতে এই ব্যবস্থা। এখানে এলে কেউ না খেয়ে ফিরে যাবেন না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement