১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Bengal Polls: সুজাতাকে বাঁশ নিয়ে তাড়া করার উল্লেখই নেই পুলিশ সুপারের রিপোর্টে, চাঞ্চল্য

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 6, 2021 7:00 am|    Updated: April 7, 2021 12:08 pm

WB Assembly Election Phase 3: SP's report on SUjata Khan sparks controversy |Sangbad Pratidin

বঙ্গে শুরু হয়ে গিয়েছে ভোটযুদ্ধ। বিক্ষিপ্ত অশান্তির মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে দু’দফার মোট ৬০ আসনের ভোটগ্রহণ পর্ব। আজ তৃতীয় দফায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হুগলি, হাওড়া – এই  তিন জেলার মোট ৩১ আসনে ভোটগ্রহণ হল। ভাগ্য নির্ধারণ  হল বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থীর। সকাল থেকে  বিক্ষিপ্ত  অশান্তির আবহেই চলেছে ভোটদান। তৃতীয় দফা ভোটের সমস্ত খুঁটিনাটি দেখুন :

রাত ১০.৩০: দিনভর খবরের শিরোনামে আরামবাগের তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ। তৃণমূলের অভিযোগ, তাঁকে বাঁশ নিয়ে তাড়া করেছিল বিজেপি কর্মীরা। অথচ সেই ঘটনার কোনও উল্লেখই নেই পুলিশ সুপারের রিপোর্টে। কমিশনকে দেওয়া রিপোর্টে তিনি জানিয়েছেন, তৃণমূল-বিজেপি কর্মীদের মধ্যে হাতহাতি হচ্ছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সুজাতা। ছোটখাটো জখমের খবর মিলেছে। বাকি নির্বিঘ্নেই ভোট মিটেছে বলে দাবি করেছেন পুলিশ সুপার। 

রাত ৮.৫০: নাবালিকার শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছিল সিআরপিএফ জওয়ানের বিরুদ্ধে। এবার সেই অভিযোগ নিয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। 

বিকেল ৫.৫৬: তৃতীয় দফায় বাংলায় ভোট পড়ল ৭৭.৬৮ শতাংশ।

বিকেল ৫.৪৪: বিকেল  ৫টা পর্যন্ত হুগলিতে ভোট পড়েছে ৭৯ শতাংশ, হাওড়ায় ৭৮ শতাংশ ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৭৭ শতাংশ।

বিকেল ৫.২৩: তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডলকে মারধরের ঘটনায় ইতিমধ্যে পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। 

বিকেল ৫.১৬: রাজ্যের বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবেকে পোন ফিরহাদ হাকিমের। সুজাতা কাণ্ড নিয়ে অভিযোগ জানালেন তিনি। 

বিকেল ৫.০৯: নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ বামেরা। অভিযোগ, কেন্দ্রীয় বাহিনী, কমিশনের আধিকারিকরা দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ। তাই অভিযুক্ত কর্মীদের সরিয়ে দেওয়ার দাবি জানালেন তাঁরা। 

বিকেল ৫.০৬: সুজাতাকাণ্ডে পুলিশ সুপারের রিপোর্ট চাইল কমিশন। 

বিকেল ৪.০৫: আক্রান্ত উলুবেড়িয়া দক্ষিণের বিজেপি তারকা প্রার্থী পাপিয়া অধিকারী। অভিযোগ, বিজেপি কর্মীকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে তৃণমূল কর্মীদের দ্বারা বাধাপ্রাপ্ত হন তিনি। 

দুপুর ৩.৩৫: আরামবাগে ফের আক্রান্ত তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডল খাঁ। ডিহিবাগানে তাঁর গাড়ি ঘিরে ধরে বিক্ষোভ। ইঁট, বাঁশ দিয়ে গাড়ি ভাঙচুরের চেষ্টা। 

দুপুর ৩.০৩: তৃতীয় দফায় ভোট পরিস্থিতি পরিদর্শনে CRPF আইজি পি কে সিং এবং SSB-র আইজি শ্রীকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় কপ্টারে এসে নামেন ডায়মন্ড হারবারে। তাঁরা জানান, ভোট প্রক্রিয়া দেখতে এবং বাহিনীর মনোবল বাড়াতেই এসেছেন। ভোট প্রক্রিয়া ভালই চলছে বলে মত তাঁদের।

দুপুর ২.৫৮: খানাকুলে তৃণমূল প্রার্থী নাজবুল করিমকে চ্যালাকাঠ দিয়ে মারার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে।

দুপুর ২.৫০: হুগলির হরিপালে বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগ। বিজেপির অভিযোগ তির তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে। তিনজনের মাথায় আঘাত লেগেছে বলে খবর। 

দুপুর ২.৪৫: ছাপ্পা ভোটের অভিযোগে সরব ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দীপক হালদার। তাঁর অভিযোগ বাসুলডাঙা, পাতড়া, দিয়ারক, মশাট ও নুরপুরের প্রায় ২৫ টি বুথে ব্যাপক হারে ছাপ্পা ভোট দিচ্ছে তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা। নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে তিনি বলেন, কোথাও কেন্দ্রীয় বাহিনীর দেখা নেই। অনেকবার ফোন করেও কমিশনের কাউকেই পাওয়া যায়নি। 

দুপুর ২.৩৪: তারকেশ্বরের বিজেপি প্রার্থী স্বপন দাশগুপ্তের পোলিং এজেন্টকে মারধরের অভিযোগ। গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। যদিও এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। 

দুপুর ২.১৬: সুজাতা মণ্ডল খাঁ’র উপর আক্রমণ নিয়ে কমিশনে নালিশ ফিরহাদ হাকিমের। পুলিশ পর্যবেক্ষককে ফোন করে গোটা ঘটনা জানান তিনি। 

দুপুর ১.৫২: দুপুর ১টা পর্যন্ত হাওড়ার ৭ কেন্দ্রে ভোটের হার গড়ে ৫৬.৪৬ শতাংশ। হুগলিতে ভোট পড়ল ৫৮.৪২ শতাংশ। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ভোটের হার ৫১. ৫৫ শতাংশ। 

দুপুর ১.১৬: শ্যামপুরে আক্রান্ত বিজেপির তারকা প্রার্থী তনুশ্রী চক্রবর্তী। ভোট পরিস্থিতি দেখতে বেরলে তাঁর গাড়ি ঘিরে ধরে চলে বিক্ষোভ। নিরাপদই রয়েছেন প্রার্থী।

দুপুর ১২.৫৪: নির্মল মাজিকে ঘিরে বিক্ষোভ উলুবেড়িয়া উত্তর কেন্দ্রে। তাঁর গাড়িতে ইট ছোড়া হয় বলে অভিযোগ।  আহত হয়েছেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষী শ্যামল ওরাওঁ, গাড়িচালক।

দুপুর ১২.৪০:  আজকের ভোটে স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে, জনাদেশ কোন পথে যাচ্ছে। তৃতীয় দফা ভোটের দিন কোচবিহারের জনসভায় দাবি নরেন্দ্র মোদির।

দুপুর ১২.৩২: তৃতীয় দফার ভোট পরিস্থিতিতে কমিশন ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ আরও উগড়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কালচিনির সভা থেকে প্রশ্ন তুললেন, ”কমিশনের নজরদারিতে ভোট হলে এত আক্রান্ত হচ্ছে কেন?” 

দুপুর ১২.২০: প্রথম দু’দফায় নির্বাচন কমিশন একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের হয়ে কাজ করেছে। তৃতীয় দফায় কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোটারদের প্রভাবিত করছে। তৃণমূলকে রুখতে সম্মিলিত প্রচেষ্টা করছে। সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ তৃণমূল বিধায়ক পূর্ণেন্দু বসুর।  

দুপুর ১২: আক্রান্ত আরামবাগের তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ। পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী বিজেপির হয়ে ভোট করাচ্ছে। বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে বুথে পৌঁছতেই  তাঁর উপর হামলা চলে বলে অভিযোগ। তাঁর পায়ে, কোমরে চোট লাগে। অভিযোগ, মহিলা পুলিশদের উপস্থিতিতে স্থানীয়রা তাঁকে মারধর করে। এ নিয়ে চূড়ান্ত উত্তেজনা আরান্ডি ১ নং পঞ্চায়েত এলাকায় ২৬৩ নং বুথে। মাথা ফাটল তাঁর PSO-র। এই ঘটনায় জেলা প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট তলব করল নির্বাচন কমিশন। 

বেলা ১১.৫৬: উলুবেড়িয়া উত্তর কেন্দ্রে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ তৃণমূল প্রার্থী নির্মল মাজির বিরুদ্ধে। প্রতিবাদে থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ বিজেপি কর্মী, সমর্থকদের। পরে নির্মল মাজিকে ঘিরে বিক্ষোভ। তাঁর নিরাপত্তারক্ষী আহত বলে খবর।

বেলা ১১.৪৫: বারুইপুর পূর্বে নকল ইভিএম নিয়ে গ্রেপ্তার এক। ধৃতের নাম আনোয়ার হোসেন মোল্লা। 

বেলা ১১.৩২: বেলা ১১টা পর্যন্ত তিন জেলায় ভোটদানের গড় হার ৩৫ শতাংশ। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ভোট পড়ল ৩২ শতাংশ, হাওড়া ও হুগলিতে ৩৭ শতাংশ ভোটদান।

বেলা ১১.০৩: ফলতার বিজেপি প্রার্থী বিধান পাড়ুইকে ঘিরে বিক্ষোভ।  তাঁর গাড়ি লক্ষ ইট ছোঁড়ার অভিযোগ। কাঠগড়ায় তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা।

সকাল ১০.৩৭: আইএসএফের বিরুদ্ধে অশান্তি বাধানোর অভিযোগ। প্রতিবাদে ক্যানিং পূর্বের তৃণমূল প্রার্থী শওকত মোল্লা রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখান। বোমাবাজি, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তাঁর। পালটা আইএসএফের দাবি, ভোট লুটের জন্য এসব করছে তৃণমূল। অন্যদিকে, বাহিনীর ‘অতিসক্রিয়তা’ নিয়ে টুইটে ক্ষোভ উগরে দিলেন।

সকাল ১০.২৬: তারকেশ্বর টাউনের ২৬০ নম্বর বুথে বিজেপি এজেন্ট পাপ্পু সিংকে বুথ থেকে সরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ টাউন তৃণমূলের চেয়ারম্যান স্বপন সামন্তের বিরুদ্ধে। দু’পক্ষের মধ্যে বচসা।

সকাল ১০.২৩: মগরাহাট পশ্চিম বিধানসভার উস্তির জগদীশনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথে ভোট দিলেন বিদায়ী মন্ত্রী তথা প্রার্থী গিয়াসউদ্দিন মোল্লা। বেরিয়ে V চিহ্ন দেখালেন।

সকাল ১০.১৯: হাওড়ার জগৎবল্লভপুরে ফের অশান্তি। বিজেপি কর্মীর বাড়িতে ঢুকে হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মহিলাদেরও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

সকাল ১০.০৮: ডায়মন্ড হারবারের পূর্ব দাগিরায় ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ। তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেন বিজেপি প্রার্থী দীপক হালদার।

সকাল ৯.৪৭: সকাল ৯টা পর্যন্ত হাওড়ায় ভোট পড়ল ১৫.৫২ শতাংশ, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১২.৮১ শতাংশ। হুগলিতে ১৭ শতাংশ ভোট পড়েছে। গড়ে ভোটদানের হার ১৪ শতাংশের বেশি। আগের দুই দফার চেয়ে ভোটদানের হার কম।

সকাল ৯.৩৫: হাওড়ার শ্যামপুরে ১৭৩ নং বুথে তৃণমূলের ক্যাম্প ভাঙচুরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। 

সকাল ৯.১৭: মগরাহাট পশ্চিম কেন্দ্রের লক্ষীকান্তপুরের চৌকিতলায় বিজেপির বিরুদ্ধে বোমাবাজির অভিযোগ তৃণমূলের। সাতগাছিয়া বিধানসভার ২০৫ ও ২০৬ নম্বর বুথে বিজেপির অভিযোগ, তাদের কর্মীদের মারধর করে তৃণমূল। ৫ জন আহত হন। সাতগাছিয়া বিধানসভার নোদাখালির আইমা এফপি স্কুলের বুথে বোমাতঙ্কও হয়েছে। 

সকাল ৮.৪৯:  বারুইপুর পূর্বের বেলাগাছি, কানাপাড়ায় উত্তেজনা। ভোটারদের ভোটদানে বাধা দেওয়ার অভিযোগ। তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেতেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় বিশাল কেন্দ্রীয় বাহিনী।  ভোটারদের অভয়বার্তা বাহিনীর জওয়ানদের।

সকাল ৮.৩৬: তারকেশ্বরের ১৪ নং বুথে বিজেপি প্রার্থী স্বপন দাশগুপ্তকে ঘিরে ‘জয় বাংলা’ স্লোগান কয়েকজন যুবকের। এ নিয়ে সাময়িক উত্তেজনা। পুলিশের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি আয়ত্তে আসে।

সকাল ৮.১৭: রায়দিঘি বিধানসভার উত্তর কুমড়োপাড়া ২১৩  ও ২১৪ নং বুথের ৬০ মিটারের মধ্যে ক্যাম্প করে ভোটারদের প্রভাবিত করছে বিজেপি, অভিযোগ তৃণমূলের। 

সকাল ৮.১০: ভোটের দিনই বাসন্তীর সোনাখালিতে উদ্ধার ২ ড্রাম বোমা। এলাকায় উত্তেজনা।

সকাল ৮.০১: উলুবেড়িয়া দক্ষিণের বিজেপি তারকা প্রার্থী পাপিয়া অধিকারীকে বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। সেখানে দাঁড়িয়ে জওয়ানদের সঙ্গে বচসায় জড়ালেন তিনি। পরে বুথে থাকা তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গেও বাকবিতণ্ডা হয় তাঁর।

সকাল ৭.৫৫: ক্যানিংয়ের তালদির কুমোরখালির বুথে ইভিএম বিভ্রাট। আপাতত বন্ধ ভোটগ্রহণ। কুলতলির ২৩৮, ২৩৮এ, ২৩৯ বুথে রাত থেকে বিদ্যুৎ বিভ্রাট, শুরু হয়নি ভোট। 

সকাল ৭.৪৪: তারকেশ্বরের রামনগরে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ। ভোটের আগের রাতে এক নাবালিকাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ২ জওয়ানের বিরুদ্ধে। তাকে ধরে গণপিটুনি উত্তেজিত জনতার। ভোরে থানায় গিয়ে অভিযোগ জানান স্থানীয়রা। কিন্তু থানা অভিযোগ গ্রহণ না করায় ফের বিক্ষোভ জনতার।

সকাল ৭.৪১: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুর বিধানসভার অন্তর্গত কুলেরদাঁড়ি অঞ্চলের ১০৭ বুথে বিরোধী এজেন্টদের বসতে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ভোটের আগে রাত থেকে চলছে বাড়ি ভাঙচুর, মারধর, খুনের হুমকি।

সকাল ৭.৩৫: তুলসিবেড়িয়ায় তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে ইভিএম উদ্ধারের ঘটনায় কড়া নির্বাচন কমিশন। সেক্টর অফিসারকে সাসপেন্ড। ৪ টি ইভিএম ব্যবহার করা যাবে না, জানাল কমিশন। রিপোর্ট তলব করলেন ডেপুটি কমিশনার সুদীপ জৈন।

তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে উদ্ধার EVM

সকাল ৭.২৮: বাগনানের দেউলটিতে বুথের বাইরে অতিরিক্ত জমায়েত। তা হঠাতে লাঠি উঁচিয়ে তাড়া কেন্দ্রীয় বাহিনীর। বুথের বাইরে উত্তেজনা। 

সকাল ৭.১৭: মগরাহাট পশ্চিম কেন্দ্রের আইএসএফ প্রার্থীকে বুথে ঢুকতে বাধাদানের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। নেত্রা হাইস্কুলের বুথের বাইরেই বসে বিক্ষোভ প্রার্থী মইদুল ইসলামের। ”মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২ ঘণ্টা বুথে বসতে পারলে আমি কেন পারব না?” প্রশ্ন মইদুলের। তাঁর অভিযোগ, ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা চলছে। 

ধরনায় আইএসএফ প্রার্থী মইদুল ইসলাম

সকাল ৭.০৮: ক্যানিংয়ে আক্রান্ত বিজেপি কর্মী। তাঁর পায়ে গুলি লেগেছে। ভরতি হাসপাতালে। কাঠগড়ায় তৃণমূল।

সকাল ৭.০২: ভোট শুরুর আগে রাজনৈতিক অশান্তি হাওড়ার জগৎবল্লভপুরে। ১৮৮ নং বুথে বিজেপি ও আইএসএফ এজেন্টদের বসতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

সকাল ৬.৫৪: বাগনানে তৃণমূলের বুথ সভাপতির উপর হামলার অভিযোগ। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ মারা হয় তাঁকে। জখম হয়ে উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে ভরতি তিনি। অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে।

সকাল ৬.৩০: ক্যানিংয়ের জীবনতলার হেদিয়া গ্রামে আইএসএফ এজেন্টকে বুথে যেতে বাধাদানের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ক্যানিং পূর্ব কেন্দ্রের অন্তর্গত দুর্গাপুরের ১২৭ নং বুথের ঘটনা। আইএসএফ-তৃণমূলের হাতাহাতিতে হেদিয়া গ্রামে চলল গুলি। ভোট শুরুর আগেই আতঙ্ক এলাকায়।

সকাল ৬.১৬: ক্যানিং পশ্চিমের হিঞ্চেখালি গ্রামে বিজেপি কর্মীর বাড়িতে ঢুকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ। ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে ভরতি তিনি।

সকাল ৬: ভোট শুরুর আগেই হুগলির গোঘাটে বিজেপি কর্মীর মাকে খুনের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। নিহতের নাম মাধবী আদক।  ছেলে বীরুর উপর দুষ্কৃতীরা হামলা চালালে, ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হন মা। ব্যাপক মারধরের অভিযোগ ওঠে। তাতেই মাধবীদেবীর মৃত্যু হয় বলে দাবি বিজেপির। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। 

সকাল ৫.৫০: উলুবেড়িয়া উত্তরের তুলসিবেড়িয়ায় তৃণমূল কর্মীর বাড়ির সামনে থেকে ইভিএম। ভোট লুটের চেষ্টা করছিলেন গৌতম ঘোষ নামে ওই কর্মী, অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। এ নিয়ে চূড়ান্ত উত্তেজনা এলাকায়।  ঘটনার খবর পেয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষের দোরগোড়ায়, একদিনে সংক্রমিত ১,৯৬১ জন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে