২৪ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ১১ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুক্তির আগেই বিপাকে পরিচালক অভিমন্যু মুখোপাধ্যায়ের ছবি ‘টেকো’। প্রেক্ষাগৃহে আসার কথা ছিল ২২ নভেম্বর। কিন্তু, তা আর হল না। কারণ, বৃহস্পতিবারই ছবি মুক্তির ক্ষেত্রে স্থগিতাদেশ জারি করল আলিপুর কমার্শিয়াল আদালত।

ছবির বিষয় নিয়ে আগেই একদফা বিতর্ক হয়েছে। প্রসঙ্গত, বাংলায় ‘টেকো’ এবং হিন্দিতে ‘উজড়া চমন’ ও ‘বালা’ এই ৩টি ছবির বিষয়বস্তুই এক। আর ছবি ৩টির মুক্তির তারিখ একই মাসে ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে ইতিমধ্যেই ‘উজড়া চমন’ এবং ‘বালা’ নিয়ে প্রযোজক-পরিচালকদের মধ্যে একদফা তরজা হয়ে গিয়েছে। তবে উল্লেখ্য, ‘টেকো’র গল্প কিন্তু সম্পূর্ণ ভিন্ন। ক্রেতা ধরতে আকর্ষণীয় বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রলোভন দেখিয়ে রোজ হাজার হাজার মানুষকে যেভাবে বোকা বানানো হচ্ছে, তার সাবধানবাণী দিতেই ‘টেকো’ তৈরি করেছেন অভিমন্যু। আর ঠিক এই বিষয়টি নিয়েই আপত্তি তুলেছে এক তেল প্রস্তুতকারক সংস্থা।

[আরও পড়ুন:প্রতীক্ষার অবসান, কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব উপলক্ষে শহরে শাহরুখ-অমিতাভ ]

সমস্যার সূত্রপাত ‘টেকো’র ট্রেলারের একটি দৃশ্য নিয়ে। সূত্রের খবর, ছবির মুখ্য চরিত্র ঋত্বিক চক্রবর্তীর যে মাথার তেল মেখে অকালে টাক পড়েছে, সেই তেলের বোতলের সঙ্গে নাকি নামী এক প্রস্তুতকারক সংস্থার তেলের বোতলের হুবহু মিল রয়েছে। যার ফলে ক্রেতাদের বুঝতে ভুল হতে পারে এবং তাঁদের ৬০০ কোটির ব্যবসায় লোকসান হতে পারে। এমনটাই অন্তত দাবি করেছে ওই সংস্থা। আর ঠিক ভিত্তিতেই ছবি মুক্তির স্থগিতাদেশ চেয়ে এবং ট্রেলার তুলে নেওয়ার আবেদন জানিয়ে অভিযোগ দায়ের হয় ‘টেকো’র বিরুদ্ধে। যদিও ট্রেলারে দেখানো ওই তেলের বোতলে কোনও বাজারচলতি কোম্পানির নামোল্লেখ করা হয়নি। তবে আলিপুর কমার্শিয়াল আদালতের বিচারক শ্রীকুমার গোস্বামী ‘টেকো’র মুক্তি স্থগিত রাখার পক্ষেই রায় দেন।

ছবির ট্রেলার ইতিমধ্যেই নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এমনকী, এই মুহূর্তে কোনওভাবেই ইউটিউব কিংবা কোনও রকম সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবির প্রচার করা যাবে না, এমন নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। অতএব সুরিন্দর ফিল্মস প্রযোজিত ‘টেকো’ আদৌ কবে মুক্তি পাবে, তা সন্দিহান প্রযোজনা সংস্থা তথা সিনেমহল।  

[আরও পড়ুন:মা’কে বিদায় দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়লেন সাহিত্যিক নবনীতার দুই মেয়ে নন্দনা-অন্তরা ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং