BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

১৪ বছর বয়সে শ্লীলতাহানির শিকার হন আমিরকন্যা ইরা, ভিডিওয় জানালেন বিস্তারিত

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 3, 2020 12:09 pm|    Updated: November 3, 2020 12:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ৪ বছর ধরে মনোবিদের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন হতাশাগ্রস্ত ইরা খান। নিজের ডিপ্রেশনের কথা কখনওই লুকোননি আমির খানের (Aamir Khan) মেয়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আগেও নিজের মনের কথা অনুরাগীদের খুলে বলেছেন তিনি। এবার তিনি জানালেন, তাঁর এই হতাশাগ্রস্ত হওয়ার পিছনে ঠিক কী কী কারণ রয়েছে বলে তাঁর মনে হয়। আর সেই প্রসঙ্গেই ১৪ বছর বয়সে নিজের শ্লীলতাহানি হওয়ার কথাও জানান তারকাকন্যা।

হ্যাঁ, শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছিলেন ইরা (Ira Khan)। ইনস্টাগ্রামে প্রায় ১০ মিনিটের একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। যেখানে জীবনের নানাদিকের কথা বলেছেন। সেখানেই ইরা জানান, অদ্ভুত একটা পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছিলেন তিনি। বয়স কম ছিল। তাই বুঝতে পারছিলেন না ঠিক কী হচ্ছে। তারা জেনেশুনেই এমনটা করছিল কি না। এমন অচেনা অভিজ্ঞতায় বেশ হতাশ হয়ে পড়েছিলেন। গোটা বিষয়টা বাবা আমির খান ও মা রিনা দত্তকে জানান ইরা। তাঁদের সঙ্গে কথা বলার পর মন অনেকখানি হালকা হয়।

[আরও পড়ুন: বাড়ি থেকে উদ্ধার চরস-CBD অয়েল, নিখোঁজ দীপিকার ম্যানেজারকে ফের সমন পাঠাল NCB]

এরপরই ইরা বলেন, “প্রায় এক বছর পর জানতে পেরেছিলাম ওরা ইচ্ছাকৃতভাবেই আমার সঙ্গে এমন আচরণ করেছিল। কারণ ওরা আমার শ্লীলতাহানিই করতে চেয়েছিল। এই পরিস্থিতি থেকে বেরতে আমি সঙ্গে সঙ্গে মা-বাবাকে ই-মেল মারফত সব জানাই।” কে বা কারা তাঁর শ্লীলতাহানি করেছিল, সে বিষয়ে যদিও বিস্তারিত বলেননি তিনি। তবে ওই সব দিনগুলি কাটিয়ে জীবনে এগিয়ে গিয়েছেন বলেই জানান ইরা।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

HINDI VERSION – LINK IN BIO. I never spoke to anyone about anything because I assumed that my privilege meant I should handle my stuff on my own, or if there was something bigger, it would make people need a better answer than “I don’t know.” It made me feel like I needed a better answer and until I had that answer, my feelings weren’t something I should bother anyone else with. No problem was big enough to ponder too long about. What would anyone do? I had everything. What would anyone say? I had said it all. I still think there’s a small part of me that thinks I’m making all this up, that I have nothing to feel bad about, that I’m not trying hard enough, that maybe I’m over reacting. Old habits die hard. It takes me feeling my worst to make myself believe that it’s bad enough to take seriously. And no matter how many things I have, how nice to me people are because of my dad, how nice to me people are because they love and care about me… if I feel a certain way, a certain not nice way, then how much can rationally trying to explain these things to myself do? Shouldn’t I instead get up and try and fix things? And if I can’t do that for myself? Shouldn’t I ask for help? . . . #mentalhealth #privilege #depression #repression #divorce #sexualabuse #letstalk #betterlatethannever #letitout #depressionhelp #askforhelp

A post shared by Ira Khan (@khan.ira) on

আর কী কারণ হয়েছে তাঁর হতাশার? মা-বাবার বিবাহবিচ্ছেদ? ইরা বলছেন, একেবারেই নয়। কারণ আমির ও রিনা এখনও ভাল বন্ধু। আর ইরার যে কোনও প্রয়োজনে তাঁরা সর্বদাই হাজির হয়ে যান। মা-বাবাকে ভাল-মন্দ সব পরিস্থিতিতেই পাশে পান ইরা। তাছাড়া বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের সময় ইরা খুবই ছোট। জ্ঞান হওয়ার পর থেকে তাঁদের বন্ধু হিসেবেই দেখতে অভ্যস্ত ইরা। তাই আমির-রিনার বিচ্ছেদ তাঁকে কখনওই দুঃখ দেয়নি। তবে শ্লীলতাহানির ঘটনার পর অনেক বছর নিজের কান্না আটকাতে পারতেন না তিনি। স্কুলেও হঠাৎ হঠাৎ কেঁদে ফেলতেন। আজ সেসব মনে পড়লে আর অবশ্য ভয় লাগে না ইরার। কারণ তিনি জানেন, ওসব অতীত। এখন শুধুই পজিটিভ চিন্তা করে এগিয়ে যেতে হবে।

[আরও পড়ুন: হাসপাতালে ‘মোহর’ ধারাবাহিকের অভিনেতা প্রতীক, কী পোস্ট করলেন নায়িকা সোনামণি?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement