BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘সত্যিকারের রাজপুত হলে আত্মহত্যা করতেন না সুশান্ত’, বেফাঁস মন্তব্য RJD বিধায়কের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 17, 2020 5:05 pm|    Updated: September 17, 2020 5:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল: রাজপুতই ছিলেন না সুশান্ত (Sushant Singh Rajput)। তা হলে এভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করতেন না। বিহার বিধানসভা নির্বাচনের আগে এমন মন্তব্য করে উত্তেজনার পারদ চড়ালেন আরজেডি (RJD) বিধায়ক অরুণ যাদব (Arun Yadav)।

নতুন তৈরি একটি রাস্তার উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন অরুণ যাদব। সেখানেই এই মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, “আমি বলছি সুশান্ত রাজপুত ছিলেন না। বলতে খারাপ লাগছে কিন্তু রাজপুত অর্থাৎ যাঁরা মহারাণা প্রতাপের (Maharana Pratap) বংশধর হন তাঁরা এভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন না। সুশান্তের গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করার খবরে আমি খুবই ব্যথিত হয়েছি। রাজপুতরা আগে মারে তারপর মরে।”

[আরও পড়ুন: ‘সফ্‌ট পর্নস্টার’, উর্মিলাকে কদর্য ভাষায় আক্রমণ কঙ্গনার, উত্তাল নেটদুনিয়া]

উল্লেখ্য, চলতি বছরেই বিহার বিধানসভার নির্বাচন (Bihar Assembly election 2020)। অক্টোবর কিংবা নভেম্বরে নির্বাচনের দিন ঘোষণা হতে পারে। এমত অবস্থায় এবার বিহারের নির্বাচনের প্রধান ইস্যু সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু। আর বিহারের সেই ‘ঘরের ছেলে’কে নিয়েই বেফাঁস মন্তব্য করে ফেললেন লালু প্রসাদ যাদবের (Lalu Prasad Yadav) দলের বিধায়ক। যা নিয়ে আরজেডিকে তীব্র কটাক্ষে বিঁধছে বিরোধীরা। বিহারের শাসকদল JDU-এর মুখপাত্র রাজীব রঞ্জন প্রসাদ (Rajiv Ranjan Prasad) বলছেন, “সুশান্ত সিং রাজপুতের মতো ব্যক্তিত্বের মৃত্যুর ঘটনা যা সারা দেশ তোলপাড় করে দিয়েছে, তা নিয়ে আরজেডি বিধায়কের এই মন্তব্যের থেকে লজ্জাজনক আর কিছুই হতে পারে না। রাজ্যের সমস্ত মানুষ আর সুশান্তের অনুরাগীদের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত বিধায়কের।” সমালোচনার সুর চড়িয়েছেন বিজেপি (BJP) মুখপাত্র নিখিল আনন্দও (Nikhil Anand)। তিনি বলেন, আরজেডি তেজস্বী যাদবের (Tejashwi Yadav) উচিত বিধায়ক অরুণ যাদবের এই মন্তব্য নিয়ে তাঁর দলের মনোভাব ব্যক্ত করা। আরজেডিও কি একমত পোষণ করে? তা জানতে চেয়েছেন তিনি।

এদিকে AIIMS-এর ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সুধীর গুপ্ত (Dr Sudhir Gupta) জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহেই সুশান্তের মৃত্যুর চূড়ান্ত রিপোর্ট সিবিআই(CBI) টিমের হাতে তুলে দেওয়া হবে। মামলাটি এখনও বিচারাধীন বলে রিপোর্ট প্রকাশ করা হবে না। তবে সুধীরবাবুর আশা, এই রিপোর্ট নিয়ে কোনও সন্দেহের অবকাশ থাকবে না।

 

[আরও পড়ুন: ড্রাগ গ্যাংয়ের সঙ্গে নাম জড়ানোয় ক্ষুব্ধ রকুলপ্রীত সিং, দিল্লি হাই কোর্টের দ্বারস্থ অভিনেত্রী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement