×

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সোহিনী সেন: 

– যাও মিঁয়া হিরো বানলো।

-পহেলে ইনসান বনলে? হিরো বননে কে লিয়ে হ্যায় না আপকা অউর হামারা গভর্নমেন্টস?

ধর্মের জিগির তুলে বিভেদ তৈরি, রাজনৈতিক আধিপত্যকায়েমী সারা বিশ্বের দস্তুর হয়ে উঠেছে। তা সে হাতের কাছের রিপন স্ট্রিটই হোক আর টেম্‌স পারের ব্রিটিশ রাজধানী- ছবিটা বদলহীন। তবু আজও মনুষ্যত্বের কার্বলিক অ্যাসিড চেষ্টা করে সন্ত্রাস-নাগিনীর বিষাক্ত নিশ্বাস থামাতে। সবসময় কি আর ওষুধেও সাফল্য আসে? আসে না। তা বলে চেষ্টাটাকেও তো আর অস্বীকার করা যায় না। খানিক সেই চেষ্টাই ধরা পড়েছে (পরিচালক) অরিত্র সেন আর (সৃজন) পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের ওয়েব সিরিজ ‘শরতে আজ’-এ।

[ ভোটপ্রচারে ব্যস্ত, তাই ‘বিবাহ অভিযান’ থেকে সরে গেলেন মিমি ]

লন্ডনের একটা দুর্গা পুজোর গল্প শোনাচ্ছেন অরিত্র। প্রবাসী ভারতীয় ও বাংলাদেশিরা মিলে তার আয়োজন করে। পুজোয় সন্ত্রাসবাদী হামলার হুমকি আসে, তাই পুজো সে বছর হবে কি হবে না, হলেও কেমনভাবে হবে- তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। একটা গোষ্ঠী পুজোটা পুরোপুরি থামিয়ে দিতে চায়, অন্য গোষ্ঠী চায় শুধু পুজোটা ঘটা করে করতেই নয়, সেটাকে জিইয়েও রাখতে। পুরোটাই একটা টেরর ব্যাকড্রপে। টেরর থ্রেটের সঙ্গে কীভাবে একটা কালচারাল ট্রেট এবং অনেকটা মানুষের জীবন জড়িয়ে যায়- তা নিয়েই ‘শরতে আজ’।

riddhi

গত ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে জি-ফাইভে ওয়েব সিরিজটির স্ট্রিমিং শুরু হয়ে গিয়েছে। পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়-অরিত্র সেনের প্রোডাকশন হাউস ‘রোড শো ফিল্মস’-এর এই সিরিজটির গল্প লিখেছেন পরমব্রত নিজে। লন্ডনের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে নৃবিদ্যার অধ্যাপক মাহেবুব হাসানের চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। কলকাতা থেকে লন্ডনে পোস্ট ডক্টরেট করতে গিয়ে মাহেবুব হাসানের জীবনে জড়িয়ে যায় এক তরুণী। সেই চরিত্রে পায়েল সরকার। মাহেবুবের বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ মিউজিশিয়ান শ্যালকের চরিত্রে রয়েছেন ঋদ্ধি সেন। এছাড়াও সিরিজটিতে রয়েছেন সুরাঙ্গনা, বিদীপ্তা চক্রবর্তী প্রমুখ। প্রবাসী বিদীপ্তা ওই পুজোটির সেক্রেটারি।

একটি সন্ত্রাসী হুমকির আতঙ্ক-চাঁদোয়ার তলায় আটকে পড়ে এই প্রতিটা মানুষের জীবন। হিন্দু-মুসলমান নির্বিশেষে যে পুজো লন্ডনের ওই ছোট্ট অংশের বাঙালি পরিবারগুলো আনন্দ-উদ্‌যাপনের রসদ ছিল, মেটাফর ছিল অক্সিজেনের। তাই-ই দমবন্ধ করা দুর্বিষহ মুহূর্ত ডেকে আনে মানুষগুলোর জীবনে। সব ছাপিয়ে কীভাবে যেন বড় হয়ে ওঠে ধর্মের তৈরি কংক্রিটের দেওয়ালখানা। অবশ্য ভালবাসা-বিশ্বাস-মনুষ্যত্ব-মূল্যবোধের শস্ত্রে সে দেওয়ালও অচিরেই ভাঙে। এই মুহূর্তের সামাজিক-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে এই ওয়েব সিরিজ বড় বেশিরকম প্রাসঙ্গিক- দাবি দর্শকদের। অকাল ‘শরতে আজ’ সেটাই মনে করাচ্ছে।

সাইনার বায়োপিক থেকে বাদ শ্রদ্ধা, তাঁর বদলে কে? ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং