৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইউরোপ সফরে সুশান্তের মানসিক অসুস্থতার কথা প্রথম জানতে পারেন, দাবি রিয়ার

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 27, 2020 2:39 pm|    Updated: August 27, 2020 2:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০১৩ সালে অবসাদের শিকার হয়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)। খেতেন ওষুধ। ইউরোপ সফরে গিয়ে প্রথম সেকথা জানতে পেরেছিলেন। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই দাবি করলেন রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। পাশাপাশি নিজের এবং নিজের পরিবারের সুরক্ষার জন্য মুম্বই পুলিশের কাছে সুরক্ষার আরজি জানালেন।

[আরও পড়ুন: ‘কৈশোরের মেন্টর আমার পানীয়ে মাদক মেশাত’, বিস্ফোরক টুইট কঙ্গনার!]

এতদিন সুশান্ত মামলা প্রকাশ্যে সেভাবে কোনও মন্তব্য করেননি রিয়া চক্রবর্তী। সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছিলেন, বিষয়টি এখনও তদন্তসাপেক্ষ বলে তিনি মন্তব্য করতে চান না। না চাইলেও তাই-ই করলেন রিয়া। বেসরকারি সংবাদমাধ্যমে বসে সুশান্ত প্রসঙ্গে কথা বললেন রিয়া। জানালেন, ইউরোপ সফরের সময় তিনি সুশান্তের মানসিক অসুস্থতার কথা প্রথম জানতে পারেন। রিয়ার দাবি, ফ্লাইটে সুশান্ত একটি ওষুধ খেয়েছিলেন। রিয়ার প্রশ্নের উত্তরে নাকি জানিয়েছিলেন, তিনি ক্লস্টোফোবিক। তাঁর ফ্লাইটে ভয় লাগে। রিয়ার এই বক্তব্যের পরই সুশান্তের বিমান চালানোর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

 

[আরও পড়ুন: মা হতে চলেছেন অনুষ্কা শর্মা, ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে সুখবর জানালেন বিরাট কোহলি]

নিজের সাক্ষাৎকারে রিয়া এও দাবি করেন, প্যারিসে গিয়ে সুশান্ত নাকি তিনদিন হোটেলের ঘর থেকে বের হননি। সুইজারল্যান্ডে গিয়ে তিনিই ঠিক ছিলেন। কিন্তু ইটালিতে যে হোটেলে উঠেছিলেন তাতে নাকি বিচিত্র সব ছবি ও আসবাব ছিল। সেই হোটেলে রাতভর সুশান্ত ঘুমোতে পারেননি। সুশান্তের ডাকেই ফ্লোরেন্স থেকে তাঁদের সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন রিয়ার ভাই সৌভিক। রিয়া জানান, সৌভিক ও সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্ক খুবই ভাল ছিল। এমনকী, সুশান্ত নাকি ঠাট্টা করে সৌভিককে রিয়ার সতীন বলতেন। তিনজনে মিলে একটি কোম্পানি খুলেছিলেন বলে দাবি করেন রিয়া।

সুশান্তের টাকায় বিদেশ ভ্রমণ প্রসঙ্গে রিয়া জানান, প্যারিসে একটি ফ্যাশন ব্র্যান্ডের আমন্ত্রণে রিয়ার যাওয়ার কথা ছিল। সুশান্তই তা বাতিল করিয়ে ইউরোপ সফরের পরিকল্পনা করেছিলেন নিজের খরচায়। সুশান্ত নাকি বরাবরই এমন বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত ছিলেন। ৭০ লক্ষ টাকা খরচ করে ছয় বন্ধুকে নিয়ে থাইল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন বলেও দাবি করেন রিয়া। এর পাশাপাশি নিজের ও নিজের পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে মুম্বই পুলিশের কাছে আবেদন করেছেন রিয়া। টুইটে নিজের আবাসনের নিরাপত্তারক্ষী রামের ভিডিও শেয়ার করেছেন। ভিডিওয় রাম অভিযোগ করেন, সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা নাকি তাঁকে নিগ্রহ করেছেন। এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় রিয়াকে গ্রেপ্তারের দাবি তুঙ্গে। শোনা গিয়েছে, রিয়ার রক্তের নমুনা সংগ্রহ করা হবে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (NCB) তদন্তের জন্য।   

 

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement