BREAKING NEWS

২১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৪ জুন ২০২০ 

Advertisement

বাইশ গজের গল্প নিয়ে আসছে ‘২২ ইয়ার্ডস’

Published by: Sayani Sen |    Posted: February 6, 2019 4:33 pm|    Updated: February 6, 2019 4:33 pm

An Images

মিতালি ঘোষালের নতুন ছবি ‘টোয়েন্টি টু ইয়ার্ডস’-এর প্রধান চরিত্র ক্রিকেট৷ কফিহাউসের মুখোমুখি পরিচালক৷

ক্রিকেটার নিয়ে বেশ কয়েকটা ফিল্ম হয়েছে বলিউডে। ক্রীড়াজগতের অন্যান্য নক্ষত্র নিয়েও হয়েছে। তবে স্পোর্টস এজেন্টের সঙ্গে স্পোর্টসম্যানের সম্পর্ক রুপোলি পর্দায় এত দিন অধরা ছিল। প্রথমবার এই বিষয় নিয়ে ছবি করছেন মিতালি ঘোষাল। ফিল্মের নাম ‘টোয়েন্টি টু ইয়ার্ডস’। “এটা সত্যিই আশ্চর্য ব্যাপার যে আমাদের দেশে অনেক স্পোর্টস বায়োপিক হয়েছে, কিন্তু স্পোর্টস এজেন্টদের নিয়ে কিছু হয়নি। বিশেষ করে ক্রিকেটে এজেন্টদের ভূমিকা খুব গুরুত্বপূর্ণ। ক্রিকেটের ব্যাকরুমে এজেন্টদের অবদান বিশাল,” বলছিলেন ফিল্মের পরিচালক মিতালি। তিনি নিজে ক্রিকেট সাংবাদিক হিসেবে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন, তাই এ ব্যাপারে যথেষ্ট ওয়াকিবহাল।

শহরে থাকলেও কেন কোনও পার্টিতে দেখা যায় না পাওলিকে?

‘টোয়েন্টি টু ইয়ার্ডস’-এর কেন্দ্রে রয়েছে একজন এজেন্ট এবং এক তরুণ ক্রিকেটারের সম্পর্ক। এজেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করছেন জাতীয় টেলিভিশনের হার্টথ্রব বরুণ সোবতি। ক্রিকেটারের ভূমিকায় বাঙালি অভিনেতা অমর্ত্য রায়। কী ভেবে বরুণকে এই চরিত্রে নেওয়া হল? “আমাদের প্রধান ভাবনা ছিল এই চরিত্রে একজন ভাল অভিনেতাকে কাস্ট করার। যে চরিত্রের বিভিন্ন স্তরগুলো ফুটিয়ে তুলতে পারবে। বরুণের অভিনয় দেখে আমার ভাল লেগেছিল। তারপর যখন ওকে গল্পটা বললাম, দেখলাম খুব সহজে কানেক্ট করে গেল,” বলছিলেন মিতালি।  ইডেনে ছবির কিছু অংশ শুটিং হয়েছে। এমনকী মুম্বইয়ে ফিল্মের ট্রেলার লঞ্চে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক এবং বর্তমানে সিএবি প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পরিচালক অবশ্য জানালেন, ‘‘ক্রিকেট নিয়ে ছবি হলেও ফিল্মমেকিংয়ে সৌরভের কোনও ইনপুট ছিল না। তবে সৌরভ আমাদের প্রথম থেকে সমর্থন করেছেন। ফিল্মের ট্রেলারও অভিনেতাদের বাইরে আমি সৌরভকেই প্রথম দেখিয়েছিলাম। ওঁর খুব ভাল লেগেছে,” মন্তব্য মিতালির।

করণের সঙ্গে বন্ধুত্বের ফল হতে পারে মারাত্মক! কেন জানেন?

ফিল্মের অন্যতম প্রধান চরিত্রে রয়েছেন রজিত কাপুর। যিনি তাঁর সাধারণ পারিশ্রমিকের চেয়ে কম টাকায় ছবিটা করেছেন। কেন? মিতালির ব্যাখ্যা, “আমাকে কয়েকটা বাধা পেরোতে হয়েছিল। ফিল্মের জন্য যা বাজেট দরকার ছিল, তার চেয়ে অনেক কম বাজেটে শুটিং করতে হয়েছে। রজিত কাপুরের মতো অনেক অভিনেতা কম পারিশ্রমিক নিয়েছেন, কারণ তাঁরা ফিল্মটার অংশ হতে চেয়েছিলেন।” ‘টোয়েন্টি টু ইয়ার্ডস’-এর সব চরিত্র কি কাল্পনিক? না কি বাস্তবের কোনও ক্রিকেটার বা এজেন্টের উপর ভিত্তি করে ফিল্মের চরিত্র সৃষ্টি হয়েছে? মিতালি বলছিলেন, “এটা কোনও একজন ক্রিকেটারের গল্প নয় আবার পুরোপুরি কাল্পনিকও নয়। বাস্তবের ময়দানে আমি যা দেখেছি, তার অনেকটা রয়েছে ফিল্মে।” ফিল্ম রিলিজ করছে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement