১০ বৈশাখ  ১৪২৬  বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

প্রিয়দর্শিনী রক্ষিত: আজ, বুধবারই গাঁটছড়া বাঁধছেন বলিউডের অন্যতম হট অ্যান্ড হ্যাপেনিং জুটি রণবীর-দীপিকা৷ আট ঘণ্টার ফ্লাইটে ৫৮৯৮ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে ইতালিতে বিয়ে করছেন তাঁরা৷ কিন্তু কেন? এক ঝলকে দেখে নিন দীপিকা-রণবীরের বিয়ের লোকেশন বাছাইয়ের ১০টি কারণ৷

রোম্যান্স, রোম্যান্স, রোম্যান্স: রোমিও আর জুলিয়েটের দেশ। ভেরোনার সেই বারান্দা। রোম্যান্সের প্রথম এবং শেষ কথা ইতালি। রানি মুখোপাধ্যায়-আদিত্য চোপড়া থেকে বিরাট-অনুষ্কা হয়ে এখন দীপিকা-রণবীর– সেলিব্রিটি বিয়ের প্রিয় ডেস্টিনেশন এখন ইন্টার মিলান-এসি মিলানের দেশ। রূপকথার রোম্যান্স যেন এখানে বাস্তব হয়ে ওঠে।

খুব সহজে বিয়ে: ইতালিতে বিয়ে করতে গেলে সেখানকার নাগরিক না হলেও চলে। বৈধ পরিচয়পত্র এবং অন্যান্য আইনি প্রমাণ দিতে পারলে বিশ্বের যে কেউ ইতালিতে বিয়ে করতে পারে।

ইতালিয়ান খাবারের বিশ্বজোড়া আবেদন: বিয়ে মানেই খাওয়াদাওয়া। তা সে বিয়ে আপনার হোক বা দীপিকা-রণবীরের। ও রকম রোম্যান্টিক পরিবেশে আপনার ভারতীয় খাবার পেতেও অসুবিধে হবে না, কারণ ইতালিতে এশিয়ান জনসংখ্যা প্রচুর। এর সঙ্গে রয়েছে পিৎজা-পাস্তা-তিরামিসুর মতো সারা বিশ্বে জনপ্রিয় খাবার, যা ইতালির চেয়ে বেশি অথেনটিক আর কোথাও পাওয়া যাবে না। এখানেই শেষ নয়। ইতালিতে বিয়ে মানে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ওয়াইনও (যেমন প্রসিকো) হাতের কাছে।

Villa del Balbianello

ইনস্টাগ্রাম ফ্রেন্ডলি: টাসকানি। অ্যামালফি কোস্ট। ভেনিস। সিসিলি। রোম। মিলান। পিসা। ফ্লোরেন্স। ‘এক সে বড়কর এক’ ডেস্টিনেশন, ‘এক সে বড়কর এক’ ব্যাকড্রপ। পাহাড়, উপত্যকা, লেক, জঙ্গল, সমুদ্র- সব কিছুই আছে। রয়েছে বিলাসবহুল রাজপ্রাসাদ, যা আপনার ওয়েডিং অ্যালবামে এনে দেবে ইতিহাসের জাদুস্পর্শ।

দেশের খরচে বিদেশ: আমার-আপনার বিয়ের বাজেট দশ লাখ টাকা হলে হবে না। কিন্তু সেলিব্রিটি বিয়ের যা বাজেট থাকে, তাতে দেশের চেয়ে বেশ খানিকটা কম খরচেই ইতালিতে বিয়ে সেরে ফেলা যায়। কারণ ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের দুশো জনের গেস্টলিস্টের যা খরচ, তা দেশে বিয়ে করার চেয়ে অনেক কম।

পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ওয়েডিং প্ল্যানার: ফ্লোরিস্ট, ফোটোগ্রাফার, ক্যাটারার, হেয়ারড্রেসার-পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ এবং সবচেয়ে পেশাদার ওয়েডিং প্ল্যানারদের ঠিকানা ইতালি। তাঁদের হাতে পুরো দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে আপনি নিশ্চিন্তে বিয়ে এনজয় করতে পারবেন।

ভেনু্ বৈচিত্র: প্যালেস থেকে ভিলা থেকে আধুনিক রিসোর্ট- পছন্দের নানা ভেন্যু রয়েছে ইতালিতে। ছ’শো বছরের পুরনো প্রাসাদকেও আজকের ইতালি মুড়ে রেখেছে খুব যত্নে। বাইরেটা আগেকার দিনের মতো, ভেতরে সনা থেকে হট সুইমিং পুল, সবরকম আধুনিক বিলাসিতা মজুত। দীপিকা-রণবীর যেমন বিয়ে করছেন লেক কোমোর কাছে ভিলা দেল বালবিয়ানেও-তে। মিলান থেকে ঘণ্টাখানেকের গাড়ি-দূরত্বে এই অসাধারণ সুন্দর স্পট, যেখানে ভিলা রয়েছে প্রচুর হলিউড তারকারও।

 

ওয়েদার: বছরের বেশির ভাগ সময় দারুণ ভূমধ্যসাগরীয় আবহাওয়া থাকে ইতালি জুড়ে। রোদ ঝলমলে দিন, চারপাশে ঘন সবুজ গাছগাছালি, উপচে পড়া গোলাপ আর সূর্যমুখী, গাছ ভর্তি অলিভ- ঠিক যেন রোম্যান্স নভেলের পরিবেশ।

হানিমুন: ইতালিতে মধুচন্দ্রিমার প্রচুর, প্রচুর বিকল্প। তাই বিয়ের ধকলের পর আবার হানিমুনের জন্য লম্বা ফ্লাইট বা জেট ল্যাগের চাপ নেই। বিয়ের ভেন্যুর কাছাকাছিই হানিমুন সেরে ফেলা যায়।

প্রাইভেসি: দেশে বিয়ে করা মানে মিডিয়াকে সামলানো একটা বাড়তি হ্যাপা। বিদেশে সে সব ঝামেলা নেই। ভারতীয় সেলিব্রিটিরা তাই বিদেশে অনেক রিল্যাক্সড ভাবে বিয়েটা সেরে ফেলতে পারেন। পাপারাৎজি এসে নির্জনতা ভাঙবে, তার আশঙ্কা নেই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং