২৩ আষাঢ়  ১৪২৭  বুধবার ৮ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

শীতে উষ্ণ থাকুন, ঋতাভরী ও রেচেলের থেকে জেনে নিন টিপস

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 20, 2018 4:56 pm|    Updated: December 20, 2018 4:56 pm

An Images

শহরের শীতলতম দিনে যদি ধরে রাখতে হয় শরীর-মনের উত্তাপ। গ্ল্যামারাস দুই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ। ঋতাভরী চক্রবর্তী ও রেচেল হোয়াইট। শুনলেন শ্যামশ্রী সাহা

ঋতাভরী চক্রবর্তী

তোয়ালে গরম রাখুন

রোজ যে ময়শ্চারাইজার আমরা ইউজ করি সেটা যদি কিছুক্ষণ সানলাইটে রেখে তারপর ইউজ করা যায়, আর স্নানের পর গরম টাওয়েল কিছুক্ষণ গায়ে জড়িয়ে রাখা যায়, তাহলে বেশ আরাম লাগে, শরীরও গরম হয়।

খালি পেটে ডাবের জল

সকালে খালি পেটে কোকোনাট ওয়াটার বা হালকা গরম জলে লেবু দিয়ে খান।

রাত আটটার পর নো কার্বস

সারাদিন কার্বোহাইড্রেট নিতে পারেন, কিন্তু রাত আটটার পর রুটি-ভাত একদম না। দিনের অন্য সময় কিন্তু কার্বস মাস্ট।

জুস খাবেন না

ডায়েট চার্ট হবে মাইনাস সুগার। সুগারফ্রিও না। অনেকেই এটা করতে পারেন না। করতে পারলে খুব তাড়াতাড়ি ফল পাবেন। অনেকে জুস খান, কিন্তু যদি সত্যি ওজন কমাতে চান, জুস খাবেন না। এতেও অনেকটা সুগার খাওয়া হয়ে যায়।

গ্রিন টি-র অভ্যাস করুন

গ্রিন টি বা যে কোনও চায়ে দারচিনি দিয়ে খেলে সেটাও খুব তাড়াতাড়ি ফ্যাট কমাতে সাহায্য করে।

বুট আর জ্যাকেট মাস্ট

ড্রেসের ব্যাপারে বলব, শীতে হট লুকের জন্য লং লেদার জ্যাকেট আর একজোড়া বুট ওয়ার্ডরোবে রাখতেই হবে। শীতে যে কোনও ড্রেসের সঙ্গে বুট আর জ্যাকেট সবসময় হট।

দু’সপ্তাহ জিম

যদি শীতের ছুটিতে বিচে ঘুরতে যান, আগে নিজেকে শেপ-আপ করার জন্য হাতে দু’সপ্তাহ থাকলেই হবে। এক সপ্তাহে ওজন কমাতে চাইলে কিন্তু পরে সমস্যা হতে পারে।  রোজের রুটিনে দু’দফায় এক ঘন্টা কিন্তু এক্সারসাইজের জন্য রাখতে হবে। সেটা জিমিং হতে পারে। হাঁটা হতে পারে। যোগব্যায়াম হতে পারে। ব্যাডমিন্টনও খেলতে পারেন। মনে রাখবেন সকালে আর রাতে আধ ঘন্টা করে এক্সারসাইজের জন্য রাখতেই হবে। শেষ পাঁচ মিনিট অবশ্যই রাখবেন সিট-আপ এর জন্য।

বড়দিনের পার্টিতে নজর কাড়তে চান? ভুল করেও এভাবে সাজবেন না ]

রেচেল হোয়াইট

ডায়েট

ডায়েট চার্টে কার্বোহাইড্রেট একদম বাদ। প্রচুর প্রোটিন আর সবজি খাওয়ার চেষ্টা করুন।

এক্সারসাইজ

রোজ জিমে যাওয়ার সময় বের করতে হবে। লিস্টে রাখতে হবে সিট-আপ, অ্যাবস ওয়ার্ক-আউট, স্কোয়াট, ক্রাঞ্চেস।

ডান্স থেরাপি

এটা আমার পারসোনাল চয়েস। তাই টিপসে রাখছি। যারা জিম করতে পছন্দ করেন না, তাঁরা সারাদিনে যে কোনও একটা সময় ডান্স করতে পারেন। আমি নিজে যেমন জিমের থেকে ডান্স করতে বেশি পছন্দ করি। সারাদিনে দু’ঘণ্টা ডান্স করি। প্রচুর ক্যালরি বার্ন হয়। পুরো শরীরের টোনিংও হয়ে যায়। মনমেজাজ একেবারে ফ্রেশ করে দেয় নাচ। ডান্সিং হল একসঙ্গে মেন্টাল আর ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ।

শপ রাইট

পোশাক কেনার সময় নিজের গঠন আর বডি টাইপের কথা মাথায় রাখতে হবে। এখন ট্রেন্ডিং বলেই সেটা পরতে হবে, তা কিন্তু নয়। বরং সেই ড্রেস আপনি ক্যারি করতে পারবেন কি না, বা সেটা আপনার ফিগারে ভাল লাগবে কি না, সেটা মাথায় রেখে ড্রেস সিলেক্ট করতে হবে। নইলে কিন্তু হট দেখাবে না।

বি কনফিডেন্ট

নিজের ড্রেস সেন্সের ব্যাপারে কনফিডেন্ট থাকতে হবে। যে পোশাকই পরুন না কেন, সেটা কনফিডেন্টলি ক্যারি করতে হবে। এটা কিন্তু খুব জরুরি। বিকিনি বা হট প্যান্ট পরে স্বচ্ছন্দ লাগলে তবেই সে রকম আউটফিট পরবেন।

ছুটির সুইমসুট

শীতকালে অনেকে সমুদ্রের ধারে বেড়াতে যান। ছুটিতে সুইমসুট পরতে হবে বলে যে কোনও বিচওয়্যার কিনে ফেললাম, এটা যেন না হয়। সুইমসুট কেনার আগে জানতে হবে আপনার ফিগারে কেমন বিচওয়্যার মানাবে। সুইমসুট-রেডি ফিগার কিন্তু ইনস্ট্যান্টলি পাওয়া যায় না। সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। বিচওয়্যার পরলে শরীরের অনেকটা জায়গা এক্সপোজড থাকে। তাই স্কিন আর নখেরও যত্ন করতে হবে। না হলে চটে যাওয়া নেলপলিশ আর রুক্ষ স্কিন আপনার সুইমসুটের সেক্স অ্যাপিল কমিয়ে দেবে।

জানেন, স্নানের ধরনই বলে দিতে পারে আপনার ব্যক্তিত্ব? ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement