BREAKING NEWS

২৫ চৈত্র  ১৪২৬  বুধবার ৮ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

এভারেস্ট অভিযাত্রী সুনীতা হাজরার গল্প এবার সিনেপর্দায়, মুখ্য চরিত্রে চান্দ্রেয়ী ঘোষ

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: February 14, 2020 10:12 am|    Updated: February 14, 2020 10:12 am

An Images

শম্পালী মৌলিক: এভারেস্ট অভিযান নিয়ে ছবি, তাও আবার বাংলায়। এমনই এক দুরূহ কাজে হাত দিতে চলেছেন পরিচালক দেবাদিত্য বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্তমানে তিনি তাঁর দলবল নিয়ে রয়েছেন কাজাতে। ব্যস্ত প্র‌্যাকটিস সেশনে। এবং তারই মাঝে চলছে কিছু শট নেওয়াও। যদিও ছবির মূল শুটিং হওয়ার কথা এপ্রিল মাসে নেপালে। এবং শুটিং যে রীতিমতো বিপদসংকুল পরিস্থিতি অতিক্রম করে হতে চলেছে তা এখনই বলে দেওয়া যায়। 

আর ৫ জন বাঙালির মতো পাহাড় চিরকালই টানে দেবাদিত্যকে, কাজা থেকে তাই মোবাইলেই ধরা দিলেন তিনি। প্রচণ্ড খারাপ নেটওয়ার্ক সত্ত্বেও দেবাদিত্যর কণ্ঠে উচ্ছ্বাস ধরা পড়ল। তিনি জানালেন, “৭টি চরিত্র এভারেস্ট অভিযানে যাচ্ছে এমনভাবে ফিল্মের গল্প দানা বাঁধবে। এই ৭ জনের প্রত্যেকের সঙ্গে প্রত্যেকের একটা সম্পর্ক আছে। তবে গল্পে সরাসরি কোনও প্রেমের অ্যাঙ্গেল না থাকলেও, অ্যাফেকশন তো আছে অবশ্যই। মাঝখানে একটি মানুষকে হারানো, তার সঙ্গে ওই প্রতিকূল পরিস্থিতির প্রেক্ষাপট। আমাদের মূল উদ্দেশ্য এভারেস্ট অভিযান যতটা সম্ভব নিখুঁতভাবে দেখানো। বাঙালিদের এভারেস্ট অভিযানে যেতে হলে কী কী প্রতিকূল পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়, সেটাও দেখা যাবে এই ছবিতে। ছবির নাম ‘৮৮৪৮’। অন্যতম প্রধান চরিত্রে থাকছেন দীপশংকর দে ও চান্দ্রেয়ী ঘোষ।”

[আরও পড়ুন: ইংরেজির ফাঁদে ইরফান, ‘আংরেজি মিডিয়াম’-এর ট্রেলারে উঠে এল বাবা-মেয়ের মিষ্টি সম্পর্ক ]

প্রসঙ্গত ‘আট’ সংখ্যাটির সঙ্গে বোধহয় দেবাদিত্যর বিশেষ যোগ রয়েছে, এর আগে তিনি একটি ছবি বানিয়েছিলেন, তার নাম ছিল ‘আটটা আটের বনগাঁ লোকাল’! আর ‘নকশাল’ ছিল তাঁর শেষ ফিচার ফিল্ম রিলিজ (মিঠুন ও গার্গী অভিনীত)। সেটা ছিল ২০১৫ সালে, তার প্রায় ৫ বছর বাদে তিনি হাত দিলেন নতুন ছবিতে। এবং এমন একটি সিরিয়াস ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে। ইংরেজিতে বহু অ্যাডভেঞ্চার ফিল্ম হলেও, বাংলায় পাহাড়-অভিযান নিয়ে ছবি তেমন একটা হয়নি বলা চলে। সাম্প্রতিক অতীতে ‘বরফ’ নামে একটি ছবি হয়েছিল বটে, সেখানে এভারেস্ট এক্সপিডিশন ছুঁয়ে যাওয়া হয়েছিল মাত্র। 

কাজায় ‘৮৮৪৮’-এর প্রস্তুতিপর্বে চান্দ্রেয়ী

 

পরিচালক দেবাদিত্য আরও জানালেন, ‘চান্দ্রেয়ী ঘোষের চরিত্রটি কিছুটা সুনীতা হাজরার আদলে তৈরি। তবে এটি কাল্পনিক চরিত্র। এ ছবি সুনীতা হাজরার বায়োপিক নয়। তবে সুনীতাদি তাঁর এভারেস্ট অভিযানের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে আমাদের সাহায্য করেছেন। যেসব মাউন্টেনিয়ারিং এক্সপার্ট যাচ্ছেন আমাদের সঙ্গে, সেই পুরো ব্যবস্থাটাই সুনীতাদি ও তাঁর স্বামী করে দিয়েছেন। চান্দ্রেয়ী, দীপশংকর (যিনি নিজে পর্বতারোহী) ছাড়া অম্লান, মেঘা, গৌতম মুখোপাধ্যায়, সঞ্জয় দাস (মাউন্টেনিয়ার) প্রমুখ অভিনয় করছেন।’

[আরও পড়ুন: মানবিক মীর, নিজের জন্মদিনে কুর্নিশ জানালেন সমাজের প্রকৃত ‘সকালম্যান’দের]

পরিচালকের থেকে জানা গেল ছবির প্র‌্যাকটিস সেশন এবং শুটিংয়ে সাহায্য করছেন যে সব শেরপা, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন তাসি, যিনি ৩ বার এভারেস্ট সামিটে অংশ নিয়েছেন। নিরাপত্তার কারণে এই শেরপারা রয়েছেন সঙ্গে, তাছাড়া তাসি ছবিতে অভিনয়ও করছেন। এছাড়াও থাকছেন লকপা শেরপা, যিনি আগেও বহুবার এভারেস্ট অভিযানে ছিলেন। ‘৮,৮৪৮’-এর জন্য প্রত্যেক অভিনেতাকেই বিশেষ প্রশিক্ষণ নিতে হয়েছে। প্রস্তুতি শুরু হয়েছে প্রায় এক-দেড় বছর আগে থেকে। ফলে বোঝাই যাচ্ছে যে রীতিমতো সিরিয়াস ভাবে কাজটা এগোতে চান পরিচালক। ‘সত্যি বলতে কী বছর খানেক ধরে রিসার্চ করেছি আমরা। গত বছর শুটিং করার কথা ছিল। কিন্তু একটু দেরি হয়ে যাওয়াতে আমরা করিনি। এ বছর শুরু করে দিলাম।’ বলতে বলতেই ফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এখন দেখার দেবাদিত্যর এই বহু প্রতীক্ষিত কাজ কেমন হয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement