২৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুক্তির আগেই বিতর্কে রানি মুখোপাধ্যায়ের ‘মর্দানি ২’। ট্রেলারজুড়ে একাধিকবার ব‌্যবহার করা হয়েছে রাজস্থানের কোটা শহরের নাম। তা-ও আবার ধর্ষণের মতো বিষয় তুলে ধরতে। আর এতেই খেপেছেন শহরবাসী। আপত্তি তুলেছেন তাঁরা। তাঁদের পাশাপাশি আপত্তি জানিয়েছেন কোটার সাংসদ এবং লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাও। 

তবে শুধুমাত্র কোটা শহরের আমজনতাই নয়। তাঁরা বিষয়টি নজরে এনেছেন কোটার সাংসদ এবং বর্তমানে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লারও। বিড়লার কাছে অভিযোগ জানিয়ে দরবার করেছেন তাঁরা। আর প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই গৃহীত হয়েছে কোটাবাসীর অভিযোগ। স্পিকার নিজেও আপত্তি জানিয়ে ছবির পরিচালক-প্রযোজককে জানিয়েছেন, কোনওভাবেই নাম উল্লেখ করা যাবে না কোটা শহরের।

[ আরও পড়ুন: হাসপাতালে ভরতি ডিম্পল কাপাডিয়া! কী বার্তা দিলেন অভিনেত্রী? ]

দিন কয়েক আগেই মুক্তি পেয়েছে ‘মর্দানি ২’ ছবির ট্রেলার। সেখানে দেখানো হয়েছে, কোটা শহরে ঘটে যাওয়া একটি নৃশংস ধর্ষণের ঘটনার তদন্ত করতে শহরে এসে উপস্থিত হয়েছেন দুঁদে ইনস্পেক্টর, শিবানী শিবাজি রায় ওরফে রানি মুখোপাধ্যায়। কোটায় পড়তে আসা ধর্ষিতা ছাত্রীটিকে ধর্ষণের পর খুন করা হয়। খুনিও সেই শহরেরই বাসিন্দা। ট্রেলারে এ সব কিছুই দেখানো হয়েছে। বলতে গেলে, গোটা ছবির প্রেক্ষাপট জুড়েই রয়েছে কোটা শহর। আর এতেই আপত্তি শহরবাসীর। তাঁদের দাবি, ধর্ষণের মতো নিকৃষ্ট একটি ঘটনার সঙ্গে কোটা শহরের নাম জড়ানো ঠিক নয়। এতবার শহরের নাম নেওয়াও উচিত নয়। এতে শহরের দুর্নাম হয়। তাঁদের দাবি, ট্রেলার এবং ছবি থেকে মুছে ফেলতে হবে কোটা শহরের নাম। কারণ, তাঁদের মতে, কোটায় প্রচুর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। দেশের বিভিন্ন রাজ‌্য থেকে এখানে পড়াশোনা করতে আসেন ছাত্র-ছাত্রীরা। তা বাদেও শহরের আরও অনেক ভাল দিক রয়েছে। সে সব না তুলে ধরে, ‘মর্দানি ২’ ছবির ট্রেলারে শহরের একটা অন‌্য রূপ দেখানো হয়েছে, যা অনভিপ্রেত। আর সবচেয়ে বড় কথা, ট্রেলরে বলা হচ্ছে, এই ছবি তৈরি হয়েছে সত‌্য ঘটনা অবলম্বনে। ফলে দর্শকদের মনে কোটা সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণার উদয় হওয়া খুবই সহজ। সে কারণেই এই নিয়ে আপত্তি তুলেছেন কোটাবাসী। আর তাঁদের পাশাপাশি আপত্তি জানিয়েছেন কোটার সাংসদ এবং লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাও। সকলেরই একটাই বক্তব‌্য, ‘মর্দানি ২’ থেকে মুছে ফেলতে হবে কোটা শহরের নাম। প্রসঙ্গত এর আগে ‘উড়তা পাঞ্জাব’ ছবির মুক্তির সময়ও একইভাবে ‘পাঞ্জাব’ নামের ব‌্যবহার হওয়া নিয়ে আপত্তি উঠেছিল।

[ আরও পড়ুন: আসানসোল উৎসবে আসছেন শর্মিলা ঠাকুর ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং