১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটা সময়ে তিনি ড্রাগের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকতেন দিনরাত। মাদকের জালে ফেঁসে সমাজবিরোধী কাজের সঙ্গেও যুক্ত হয়েছিলেন। জীবনের পদে পদে বন্ধু হারিয়েছেন, লোকে ভুল বুঝেছে, তবুও মাদকের নেশা ছাড়তে পারেননি তিনি। তবে, নিজের লঙ্গে লড়াই করে এবং উপযুক্ত চিকিৎসার মাধ্যমে নিজেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে এনেছেন সঞ্জয়। এবার তাঁর এই ঘুরে দাঁড়ানোর অভিজ্ঞতাকেই অনুপ্রেরণা হিসেবে তুলে ধরার পরিকল্পনা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ভারতীয় সরকারের মাদক বিরোধী প্রচারের মুখ হতে চলেছেন অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে মাদক বিরোধী প্রচারের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে সঞ্জুবাবার ভূমিকা কী হবে, তা এখনও চূড়ান্তভাবে কিছু জানানো হয়নি।

[আরও পড়ুন: দেশে ফিরেই জুহির সঙ্গে জুটি বাঁধছেন ঋষি কাপুর!]

সামাজিক ন্যায় এবং ক্ষমতায়ন মন্ত্রকের এক আধিকারিক সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, “সঞ্জয় দত্ত এমন একজন আইকন, যিনি একাধিকবার তাঁর মাদক ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুলেছেন জনসমক্ষে। কীভাবে এই সাংঘাতিক নেশার কবল থেকে মুক্তি পেয়েছেন তিনি, তাঁর সেই অভিজ্ঞতা নিঃসন্দেহে অনেকের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই তরুণ প্রজন্মের কাছে ড্রাগ ব্যবহারের অপকারিতা নিয়ে বার্তা দেওয়ার জন্য আমাদের মনে হয়েছে সঞ্জয় দত্ত উপযুক্ত মানুষ।” মূলত, কেন্দ্রীয় সরকারের প্রচার ও সচেতনতা মন্ত্রকের সঙ্গে যুক্ত হয়ে দেশ-বিদেশে সঞ্জয় দত্তকে প্রধান মুখ করে এগোতে চাইছেন বলেও জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রথম দিনেই গরহাজির, সাংসদ হিসেবে শপথ নিলেন না মিমি-নুসরত]

মাদক বিরোধী কার্যকলাপের জন্য জাতীয় অ্যাকশন প্ল্যান তৈরি করা হয়েছে। দেশজুড়ে ২০১৮ সাল থেকে ২০২৫ সাল পর্যন্ত চলবে এই কার্যকলাপ। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে দেশের মোট ১২৭টি জেলাকে চিহ্নিত করা হয়েছে। যেসব জায়গার তরুণ প্রজন্মকে ধ্বংস করছে ড্রাগের নেশা। আরও বেশি করে নজর দেওয়া হবে সচেতনতা বাড়ানোর দিকে। কাউন্সেলিং ট্রিটমেন্ট এবং রিহ্যাবিলিটেশনের দিকেও নজর দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট মেডিকেল সায়েন্সের তরফে জানানো হয়েছে, দেশে মোট ১৪.৬% জনতার মধ্যে ১০-৭৫ জন মদ্যপানে আসক্ত। তাই দেশে প্রায়শই নানা ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেই চলে। এই সমস্যাগুলো নির্মূল করার করার লক্ষ্যেই দেশে আলাদাভাবে প্রচার চালাতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই গোটা পরিকল্পনায় সঞ্জয় দত্তর ভূমিকা ঠিক কী হবে সেটা জানানো হবে ২৬ জুন, আন্তর্জাতিক ড্রাগ বিরোধী দিবসে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং