৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনেকটাই স্থিতিশীল কবি শঙ্খ ঘোষ। চিকিৎসকরা ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছেন। আগামিকাল হাসপাতাল থেকে ছাড়া হতে পারে তাঁকে। কিন্তু কবিকে দিন কয়েকের পর্যবেক্ষণে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন কবি শঙ্খ ঘোষ। কোনও অনুষ্ঠানে তাঁকে দেখতে পাওয়া যেত না। শারীরিক অসুস্থতার কারণে একপ্রকার গৃহবন্দিই ছিলেন তিনি। বাইরে কোথাও বের হতে পারতেন না। ঘরের মধ্যেও চলাফেরা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল তাঁর। কিন্তু মঙ্গলবার সকালে তাঁর স্বাস্থ্যের কিছুটা উন্নতি হয়। দোতলার ঘর থেকে নিজেই হেঁটে নিচে নেমেছিলেন তিনি। তারপর দুপুরে ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন। বেলা সোয়া ১২টা নাগাদ মুকুন্দপুরের একটি হাসপাতালে তাঁকে ভরতি করা হয়। শ্বাসনালীতে সংক্রমণ ধরা পড়ে তাঁর। মেডিসিন বিশেষজ্ঞ সি কে মাইতির তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা শুরু হয় কবির। একাধিক শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। মূত্রথলিতেও সংক্রমণ ধরা পড়ে তাঁর। এক্স-রে, CRP, সোডিয়াম-পটাশিয়াম লেভেল টেস্ট, লিভার, ECG, USG ও রক্ত পরীক্ষা-সহ একাধিক পরীক্ষা হয় শঙ্খ ঘোষের।

[ আরও পড়ুন: CAA ও NRC’র বিরুদ্ধে প্রচারে সিপিএমের প্রতিবাদের মুখ এবার ফেলুদা-কাকাবাবুও ]

তবে বুধবার কবির চিকিৎসক সি কে মাইতি জানান, কবির শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। তবে শ্বাসনালীতে সংক্রমণ হওয়ার ফলে সারা শরীরেই তার প্রভাব পড়েছে। বয়সজনিত কারণেই অনেকটা দুর্বল হয়ে পড়েছেন কবি। প্রতিরোধ ক্ষমতা যুবক বা কিশোরদের থেকে অনেকটাই কম তাঁর। ফলে মূত্রথলিতেও ছড়িয়ে পড়ে সংক্রমণ। তিনজন বিশেষজ্ঞ কবিকে দেখেন। তাঁরাও জানান শঙ্খ ঘোষ এখন অনেকটাই সুস্থ। তারপর একদিন কেটে গিয়েছে। আজকের দিনটিও কবিকে চিকিৎসকরা পর্যবেক্ষণে রাখবেন। তারপর, আগামিকাল তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

[ আরও পড়ুন: স্থিতিশীল শঙ্খ ঘোষ, হাসপাতালে কবির সঙ্গে দেখা করলেন রাজ্যপাল ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং