১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাতে আর মাত্র দিন পনেরো সময়। তারপরই সূচনা হবে দেবীপক্ষের। আর মহালয়া ছাড়া পুজোর কথা ভাবতে পারে না বাঙালি৷ ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠে মহালয়া না দেখলে পুজোর আনন্দে যেন ফাঁক রয়ে যায়৷ বাঙালির এই আবেগকে মাথায় রেখে চ্যানেলগুলি ব্যস্ত হয়ে পড়ে মহিষাসুরমর্দিনীর টিআরপির লড়াইয়ে৷ কাকে দুর্গা হিসাবে দর্শকদের সামনে উপস্থাপন করা যায়, সেই ভাবনা চিন্তাতেই ব্যস্ত চ্যানেলগুলি৷ এবছর বাংলার দুই জনপ্রিয় চ্যানেল দুই বিখ্যাত অভিনেত্রীকে দুর্গা হিসাবে দর্শকের সামনে আনতে চলেছে।

ছোটপর্দার জনপ্রিয় মুখ উষসী রায় ও মধুমিতা সরকার। প্রথমজন ‘বকুলকথা’ আর দ্বিতীয়জন ‘কুসুম দোলা’ খ্যাত অভিনেত্রী। এবার এই দু’জনকেই দুর্গার ভূমিকায় দেখা যাবে টেলিভিশনে। তবে দু’টি আলাদা চ্যানেলে। মহালয়ার প্রভাতে স্টার জলসায় দুর্গার ভূমিকায় দেখা যাবে মধুমিতাকে। আর জি বাংলায় যে অনুষ্ঠান দেখানো হবে, তাতেই দুর্গার একটি রূপে দেখা যাবে উষসীকে।

[ আরও পড়ুন: টেলি অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড সন্ধ্যায় ‘কৃষ্ণকলি’, ‘ফাগুন বউ’-এর জয়জয়কার ]

মধুমিতা সরকারকে স্টার জলসার ‘মহিষাসুরমর্দিনী’তে দুর্গার ভূমিকায় অভিনয় করছেন। অনুষ্ঠানের শুটিং দিনকয়েক আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে। এখন চলছে পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ। অভিনেত্রীর পাশাপাশি মধুমিতা একজন নৃত্যশিল্পীও। ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ অনু্ষ্ঠানে তাঁর নৃত্যশৈলীর পরিচয় মিলবে। এই অনুষ্ঠানে অভিনেতা জিতু কমলকে দেখা যাবে শিবের ভূমিকায়। অবশ্য এই ভূমিকায় জিতু নতুন নন। এর আগে ‘ভোলা মহেশ্বর’ ধারাবাহিকে শিবের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন তিনি। ২৮ সেপ্টেম্বর, মহালয়ার দিন সকাল ৫টায় স্টার জলসায় দেখানো হবে ‘মহিষাসুরমর্দিনী’।

অন্যদিকে জি বাংলায় ‘১২ মাসে ১২ রূপে – দেবীবরণ’ অনুষ্ঠানে দুর্গা হিসেবে ধরা দেবেন ছোটপর্দার বকুল। তবে তাঁকে মহিষাসুরমর্দিনীর রূপে দেখা যাবে না। এখনও পর্যন্ত যা খবর, তাতে মহালয়ার অনুষ্ঠানে দেবী কামাক্ষ্যার ভূমিকায় দেখা যাবে তাঁকে। মহিষাসুরমর্দিনীর রূপে এখানে থাকবেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। অভিনেতা অভিষেক বোসকে শিবের ভূমিকায় দেখা যাবে। এছাড়া থাকবেন ‘রানি রাসমণি’ খ্যাত অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া রায় ও অভিনেতা সায়ক চক্রবর্তীকে। এই অনুষ্ঠানে বারো মাসে তেরো পার্বণের কথা তুলে ধরা হবে। যে প্রোমো চ্যানেলের তরফে প্রকাশ করে হয়েছে, সেখানে বলা হয়েছে বৈশাখে দেবী পূজিত হন গন্ধেশ্বরী রূপে। জ্যৈষ্ঠে তিনি ফলহারিণী। আষাঢ়ে দেবী কামাক্ষ্যা রূপে পূজিত হন। শ্রাবণে শাকম্ভরী, ভাদ্রে পার্বতী ও আশ্বিনে তিনি দেবী দুর্গা। দেবীর প্রতিটি রূপেই আলাদা আলাদা অভিনেত্রীকে দেখা যাবে। এর মধ্যে কামাক্ষ্যার ভূমিকায় দেখা যাবে উষসীকে।

[ আরও পড়ুন: নোবেলের সব ফেসবুক প্রোফাইলই ভুয়ো! কী বললেন গায়ক? ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং