২৬ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশপ্রেমের ছবি মানেই বাড়তি উত্তেজনা। বক্স অফিসে হিট হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। সেই সঙ্গে প্রযোজকদের ঘরেও ওঠে বিশাল অঙ্কের লাভের টাকা। তাই দেশাত্মবোধক ছবির দিকে প্রযোজকরা ইদানিং বেশি ঝুঁকছেন। ‘বাটলা হাউজ’, ‘উরি’, ‘রাজি’-র মতো ছবি বক্স অফিসে সাড়া ফেলার পর মেঘনা গুলজার ঠিক করেছেন মানেশকে নিয়ে ছবি বানাবেন। এর মধ্যে আবার বরুণ ধাওয়ান জানিয়েছেন পর্দায় এবার উঠে আসবে পরমবীর চক্র সম্মান প্রাপ্ত অরুণ ক্ষেত্রপালের জীবনচরিত। প্রধান ভূমিকায় তিনি নিজে অভিনয় করবেন। অরুণ ক্ষেত্রপালের জন্মদিনে একথা জানিয়েছেন অভিনেতা।

[ আরও পড়ুন: বাঘমামার দর্শন পেতে চান? জঙ্গল সফরের সময় এগুলো মাথায় রাখুন ]

সম্প্রতি বলিউড ছবিতে দেশপ্রেমের বাড়বাড়ন্ত যেন বড় বেশি করে চোখে পড়ছে। ‘সূর্যবংশী’ ছবিতে অক্ষয় কুমারকে পুলিশের উর্দিতে দেখা যাবে। কিন্তু দেশাত্মবোধক ছবি নিয়ে চর্চায় প্রথম সারিতে রয়েছে স্যাম মানেকশর বায়োপিক। ১৯৭১ সালে, মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারতীয় সেনার প্রধান ছিলেন মানেকশ। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। সেই গল্পই উঠে আসবে ছবিতে। সেনা আধিকারিক মানেকশর লড়াই, তাঁর জীবনের উত্থান-পতনের কাহিনি নিয়ে ছবিটি বানাতে চলেছেন মেঘনা। ‘রাজি’-র পর এটি তাঁর দ্বিতীয় দেশাত্মবোধক ছবি। ছবির নাম ‘স্যাম’। নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ভিকি কৌশল। ‘উরি’ ছবি মুক্তির পর ভিকি কৌশলকে অবশ্য এমন চরিত্রে অভিনয় করা নতুন কিছু নয়। কিন্তু তাই বলে বরুণ ধাওয়ান!

[ আরও পড়ুন: আসছে ‘কৃষ ৪’, ফের নাম ভূমিকায় হৃতিক ]

অনেকে বলছেন, কমেডি ছবিতে ইতিমধ্যেই হাত পাকিয়েছেন বরুণ। সিরিয়াস ছবিতে যে তিনি একেবারেই অভিনয় করতে পারেন না, তা নয়। ‘বদলাপুর’ তার প্রমাণ। কিন্তু একেবারে অরুণ ক্ষেত্রপালের চরিত্র পর্দায় ফুটিয়ে তোলা তো কম কথা নয়। তবে এক্ষেত্রে পরিচালক শ্রীরাম রাঘবন বেশ কনফিডেন্ট। বরুণকে দিয়ে তিনি ‘বদলাপুর’ ছবিতে অদ্বিতীয় অভিনয় বের করে এনেছিলেন। তাই আত্মবিশ্বাস তাঁর আরও বেশি। বরুণও এব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী।

১৯৭১ সালে শহিদ হন অরুণ ক্ষেত্রপাল। সেসময় ভারত-পাক যুদ্ধে প্রাণ দেন তিনি। ব্যাটেল অফ বাসন্তরে শহিদ হন। মৃত্যুর পর পরমবীর সম্মানে ভূষিত করা হয় তাঁকে। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন দীনেশ বিজয়ন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং