BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

দোহায় বিশ্বকাপ দেখতে গিয়ে প্রয়াত ওয়েলস সমর্থক, সমবেদনা জানালেন বেলরা

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: November 26, 2022 6:49 pm|    Updated: November 26, 2022 7:26 pm

A Wales supporter in Qatar for the World Cup has died | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইরানের (Iran) কাছে ২-০ গোলে হার মেনেছে ওয়েলস (Wales)। বিশ্বকাপে (FIFA World Cup 2022) গ্যারেথ বেলরা এই মুহূর্তে খুবই কঠিন পরিস্থিতিতে। এর মধ্যেই খবর এল এক ওয়েলস ভক্ত মারা গিয়েছেন। বিশ্বকাপ দেখতে গিয়েছিলেন তিনি। তাঁর মৃত্যুর খবর জানিয়েছে ওয়েলস ফুটবল সংস্থা। প্রয়াত ওয়েলস সমর্থকের নাম কেভিন ডেভিস (Kevin Davies)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬২। অসুস্থ বোধ করায় দলের খেলা দেখতে যাননি ডেভিস। থেকে যান নিজের অ্যাপার্টমেন্টেই। তাঁর সঙ্গে ছিলেন ছেলে। দোহার হামাদ জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় ডেভিসকে। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছনোর পরে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

ওয়েলস ফুটবল সংস্থার চিফ একজিকিউটিভ নোয়েল মুনি টুইটারে লেখেন, ”একজন ওয়েলস সমর্থক মারা গিয়েছেন, এই খবর শুনে অত্যন্ত খারাপ লাগছে।” প্রয়াত সমর্থকের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি। ওয়েলস ফুটবল সমর্থকদের সংস্থার তরফে টুইট করা হয়েছে। সেখানে লেখা হয়েছে, ”দুর্ভাগ্যক্রমে কাতারে আমরা একজন সমর্থককে হারিয়েছি। দোহায় থাকা ওঁর ছেলে ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই।” 

 

[আরও পড়ুন: মরণবাঁচন ম্যাচের আগে ‘ঈশ্বর’ স্মরণ! মারাদোনার ছবি পোস্ট করলেন মেসি]

 

এদিকে ইরান প্রথম ম্যাচে হার মেনেছিল ইংল্যান্ডের কাছে। সেই ম্যাচে জাতীয় সংগীত গাননি ইরানের ফুটবলাররা। তার জন্য বহির্বিশ্বে ইরানের ফুটবলারদের প্রশংসা করা হয়। কিন্তু দেশের মানুষ সেই হারে দারুণ খুশি হয়েছিলেন। তাঁরা বলছেন, জাতীয় সংগীত না গেয়ে ফুটবলাররা ‘নাটক’ করেছেন। 

ওয়েলসের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে অবশ্য জাতীয় সংগীত গেয়েছেন ইরানের ফুটবলাররা। ইরানের ফুটবলাররা মাঠে বিদ্রোহে ইতি টানলেও গ্যালারিতে প্রতিবাদীর সংখ্যা কম ছিল না। বহু ইরানি রক্ষণশীলতার প্রতিবাদে ইসলামিক আন্দোলন শুরুর আগের ইরানি পতাকা নিয়ে স্টেডিয়ামে ঢোকার চেষ্টা করেন। কিন্তু রক্ষণশীল শিবির পালটা এই বিদ্রোহীদের দেখামাত্রই তাঁদের উপর চড়াও হন বলে সংবাদসংস্থা সূত্রের খবর। সূত্রের খবর ইসলামিক রিপাবলিক অফ ইরানের নামে জয়ধ্বনি দিতে দিতে এই রক্ষণশীলরা মুক্তমনাদের উপর হামলা চালিয়েছে। যদিও সরকারিভাবে এ বিষয়ে কাতারি প্রশাসন মুখ খোলেনি। 

[আরও পড়ুন: ‘২৩ অক্টোবরের স্মৃতি কোনওদিন ভোলার নয়’, হঠাৎ একথা কেন বললেন কোহলি?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে