১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাড়ির পিছনের গর্তে উদ্ধার একই পরিবারের ৪ জনের দেহ, কালাজাদুর আশঙ্কা পুলিশের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 2, 2018 9:19 am|    Updated: August 2, 2018 9:19 am

4 Members Of Family Found In Their House

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একই পরিবারের চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার হল তাদেরই বাড়ির পিছন থেকে। ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের ইদুক্কি জেলায়। একটি গর্তের মধ্যে থেকে দেহগুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। দেহগুলি একটির উপর একটি পড়েছিল। পুলিশ সূত্রে খবর, গত বেশ কয়েকদিন ধরে নিরুদ্দেশ ছিলেন বাড়ির ওই চার সদস্য।

বাড়ির কর্তা, তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তানের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁদের মধ্যে বাড়ির কর্তা ও তাঁর স্ত্রীর বয়স ৫০ পেরিয়েছে। মৃতদের নাম কৃষ্ণণ ও সুশীলা। সন্তানদের একজনের বয়স ২১ বছর, অন্যজনের ১৮। প্রথমজন মেয়ে, নাম আর্শা আর দ্বিতীয়জন ছেলে, নাম অর্জুন। মৃতদেহ উদ্ধারের পর ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে প্রতিবেশীদের ডাকে পুলিশ। প্রতিবেশীরা দেহ শনাক্ত করেন। তাঁরাই বলেন, গত চারদিন ধরে ওই পরিবারের কাউকে দেখেনি তারা। কোনও সাড়াশব্দও পাওয়া যায়নি।

বিজেপিকে বিপাকে ফেলে আডবানীর সঙ্গে বৈঠক মমতার ]

নিরুদ্দেশ থাকলেও ওই পরিবারের কারও খোঁজের জন্য পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়নি। বুধবার সকালে পরিবারের কয়েকজন আত্মীয় দেখা করতে এসেছিল। তারা বাড়িতে কাউকে দেখতে পায়নি। তার উপর বাড়ির দেওয়ালে ও মেঝেতে রক্তের দাগ দেখে। জানানো হয় প্রতিবেশীদের। তারাই এরপর পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই পরিবার তন্ত্রমন্ত্রের অভ্যাস করত বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ঘটনার কোনও সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পায়নি পুলিশ। মৃত্যুর কারণও খোলসা হয়নি।

তবে ওই বাড়ি থেকে হাতুড়ি ও ছুরি পাওয়া গিয়েছে। মৃত্যুর সঙ্গে এগুলি সম্পর্কিত কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে আপাতত দেহগুলির ময়নাতদন্তের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে। যদি ওই দেহগুলি বারবার আঘাত করা হয়ে থাকে, তাহলে তা সম্ভবত হাতুড়ির সাহায্যেই করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার আগে কিছু জানাতে চাইছে না পুলিশ।

বাড়ির অমতে বিয়ের শাস্তি, নবদম্পতিকে বিবস্ত্র করে খাওয়ানো হল প্রস্রাব ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement