BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অ্যাসিড আক্রান্তদের জন্য এবার বিনামূল্যে চিকিৎসা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 18, 2018 12:24 pm|    Updated: February 18, 2018 12:24 pm

Acid attack survivors can get cashless treatment

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লি সরকার চালু করল নয়া নিয়ম। সরকারের জারি করা নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, দিল্লির পথ দুর্ঘটনায় আক্রান্তকারী, অ্যাসিড আক্রান্তকারী ও আগুনে ঝলসে যাওয়া মহিলা এবং পুরুষেরা এবার থেকে তাঁদের  চিকিৎসা করাতে পারবেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে।

দিল্লির বেশ কিছু হাসপাতাল এবং নার্সিংহোমে এই বিশেষ সুবিধা পাওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে একটি বিজ্ঞপ্তিতে। যে সমস্ত জায়গায় এই চিকিৎসার ব্যবস্থা মিলবে, পরে সেইসব নথিভুক্ত হাসপাতাল এবং নার্সিংহোমকে সরকারের পক্ষ থেকে খরচ দিয়ে দিয়ে দেওয়া হবে বলেই জানানো হয়েছে।দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন এদিন নিজের টুইটার পেজে জানিয়েছেন, দুর্ঘটনায় আক্রান্ত ব্যাক্তিদের নিজেদের অক্ষমতা বোঝানোর জন্য কোনও সার্টিফিকেট বা প্রমাণপত্র সঙ্গে নিয়ে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যেতে হবে না। তাঁদের মুখের কথাতেই এসব ক্ষেত্রে কাজ হবে। শুধু দিল্লির কোন থানা এলাকায় কখন দুর্ঘটনাটি ঘটেছে সেটা জানালেই তাঁরা তাঁদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পেয়ে যাবেন।

[আরও এক নীরব মোদি! ৮০০ কোটি ঋণখেলাপ করে উধাও Rotomac মালিক]

দিল্লি নার্সিংহোমস রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট ১৯৫৩-এর অধীনে থাকা যে কোনও নার্সিংহোম বা প্রাইভেট হসপিটাল যে কোনও কারণেই এই ধরনের রোগীদের চিকিৎসা দিতে  প্রত্যাখ্যান করতে পারেন। কিন্তু এবারে সরকারের জারি করা নয়া নির্দেশিকায় ‘দিল্লি স্বাস্থ্য কোষ’-এ নথিভুক্ত স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলি আর এই ধরনের রোগীদের কোনওভাবেই প্রত্যাখ্যান করতে পারবেন না। নথিভুক্ত কোনও স্বাস্থ্যকেন্দ্র এই আইন লঙ্ঘন করলে, সরকার তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ ব্যবস্থা নেবে। নির্দেশিকা মতে, রোগীকে বাঁচানোর জন্য প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানের পর ডাক্তারকে বা ওই স্বাস্থকেন্দ্রকে স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে বিষয়টি জানাতে হবে। তারপর সেখান থেকে পাওয়া ডায়েরি নম্বর ও রোগীর যাবতীয় মেডিকেল সার্টিফিকেট স্ক্যান করে সরকারের দেওয়া একটি বিশেষ পোর্টালে ছয় ঘন্টার মধ্যে আপলোড করতে হবে। তারপর সমস্ত কিছুর সত্যতা যাচাই করে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে রোগীর পরবর্তী চিকিৎসার অনুমোদন দেবে সরকার।

রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে গেলে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে তাঁকে বিনামূল্যে চিকিৎসার একটি সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে। পরে ওই নথির কপি দেখিয়ে সরকারের থেকে রোগীর চিকিৎসার পুরো টাকাটি ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্র পেয়ে যাবে।

[বেড়ানো হোক বা ব্যক্তিগত অনুষ্ঠান, এবার ভাড়া নেওয়া যাবে আস্ত ট্রেনটাই]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে