১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘আমেদাবাদ হেরিটেজের যোগ্য হবে যদি নাম হয় কর্ণাবতী’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 9, 2017 10:46 am|    Updated: July 9, 2017 10:46 am

 Ahmedabad will become truly heritage worthy when its name is changed back to Karnavati: Subramanian Swamy‏

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লি, মুম্বইকে মাত দিয়ে ইউনেস্কোর হেরিটেজ শহরের স্বীকৃতি পেয়েছে আমেদাবাদ। দেশের মধ্যে এই প্রথম কোনও শহর এই খেতাব পেল। তারপরই বিতর্ক খানিকটা উসকে দিলেন বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তাঁর দাবি, নাম পরিবর্তন হলে তবেই এই স্বীকৃতির যোগ্য হবে আমেদাবাদ।

দেশের প্রথম হেরিটেজ শহরের স্বীকৃতি পেল আমেদাবাদ  ]

শনিবার পোল্যান্ডের ক্রাকৌয়ে ৪১তম বৈঠকের পর ইউনেস্কো-র ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কমিটি আমেদাবাদকে হেরিটেজ ঘোষণা করার সিদ্ধান্তের কথা জানায়। আর ইউনেস্কোর ঘোষণার পরেই টুইটারে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি। তিনি লেখেন, ‘দেশের মধ্যে প্রথম হেরিটেজ শহরের তকমা পেল আমেদাবাদ। মনে মনে খুব রোমাঞ্চ অনুভব করছি।’ বলা বাহুল্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্যের মাথায় জুড়ল নয়া পালক। কিন্তু সে নিয়ে বিতর্ক ইতিমধ্যেই মাথাচাড়া দিচ্ছিল। কেন এতশত শহর ছেড়ে আমেদাবাদকেই বেছে নেওয়া হল, তা নিয়ে কিছু প্রশ্ন ক্রমাগত উঠছিল। পাশাপাশি শহরের নাম নিয়েও বিতর্ক দেখা দিচ্ছিল। বর্তমান শাসকদলের রাজনৈতিক আদর্শের সঙ্গে শহরের নাম যে যায় না, সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন কথা বলছিলেন অনেকেই। সে কথাই উঠে এল সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর কথায়। তাঁর দাবি, আমেদাবাদের যত সমৃদ্ধিই থাক না কেন, যতক্ষণ না শহরের নাম বদলাচ্ছে ততক্ষণ তা হেরিটেজ হওয়ার যোগ্য হচ্ছে না। আর এক্ষেত্রে তাঁর পরামর্শ, আমেদাবাদের নাম হওয়া উচিত কর্ণাবতী।

এ পর্যন্ত ভারতের অনেক শহরেরই নাম বদলেছে। কিন্তু আমেদাবাদের নাম বদলায়নি। ১৫ শতকের শাসক আহমেদ শাহর নামেই এ শহরের নাম আজও একই রয়ে গিয়েছে। কিন্তু তারও আগে এ শহরের নাম ছিল কর্ণাবতী। চালুক্য বংশের রাজা কর্ণের নাম অনুসারেই শহরের এহেন নামকরণ হয়েছিল। পরবর্তীকালে এ শহরে নাম পরিবর্তন হয় ও আমেদাবাদ নামেই পরিচিত হয়ে ওঠে। সেই নাম আজও পালটায়নি। আবার সেই পুরনো নাম ফেরানোরই ডাক দিলেন সুব্রহ্মণ্যম স্বামী।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে