×

৮ ফাল্গুন  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৮ ফাল্গুন  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনে মহাজোট ক্ষমতায় এলে প্রধানমন্ত্রী কে হবেন? মহাজোটের বেশিরভাগ নেতাই এ প্রশ্নে এক্কেবারে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। তারা বলছেন ভোটের পর ঠিক হবে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী? কার নেতৃত্বে এগোবে দেশ। কিন্তু মুশকিল হল, নির্দিষ্ট কাউকে মহাজোটের নেতা হিসেবে ঘোষণা করতে না পারার এই ব্যর্থতাই নতুন অস্ত্র তুলে দিচ্ছে বিজেপির হাতে। গেরুয়া শিবির নানাভাবে কটাক্ষ করছেন মমতাদের। কখনও বলছেন, মহাঘোটালা, আবার কখনও বলছেন ‘মজবুর জোট’। নির্দিষ্ট কোনও নেতা না থাকায় এবার নতুন কটাক্ষ শুনতে হচ্ছে বিরোধী জোটকে। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলছেন, মহাজোট ক্ষমতায় এলে সপ্তাহে ৬ দিন ৬টা প্রধানমন্ত্রী পাবে দেশ। আর রবিবার? বিজেপি সভাপতি বলছেন, রবিবার আসতে আসতে গোটা দেশ ছুটিতে চলে যাবে।

[‘সমস্ত কাজে হস্তক্ষেপ করত রাহুল’, প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রীর আক্রমণের মুখে কংগ্রেস সভাপতি]

গোয়ায় বিজেপি বুথকর্মীদের একটি সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দলের সভাপতি দাবি করেন, মহাজোট দেশকে শক্তিশালী সরকার দিতে পারবে না। তা শুধু পারবেন নরেন্দ্র মোদি। মহাজোট ক্ষমতায় এলে কে প্রধানমন্ত্রী হবে তার একটা তালিকাও কটাক্ষের সুরে তুলে ধরেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, “মহাজোট ক্ষমতায় এলে সোমবার প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেশ পাবে মায়াবতীকে, মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী হবেন অখিলেশ, দেবগৌড়া বুধবার, চন্দ্রবাবু নায়ডু বৃহস্পতিবার, এম কে স্ট্যালিন শুক্রবার এবং শরদ পওয়ার শনিবার প্রধানমন্ত্রী হবেন। রবিবার আসতে আসতে গোটা দেশের ছুটি হয়ে যাবে। এই দুর্বল নেতৃত্বের হাতে দেশকে বাঁচাতে ফের মোদিকেই প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।”

[উত্তরপ্রদেশে বিষমদ কাণ্ডে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা, আর্থিক সাহায্য ঘোষণা]

তাৎপর্যপূর্ণভাবে, অমিত শাহর দেওয়া তালিকায় নাম নেই এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। নাম নেই কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীরও। অথচ গোটা দেশে মোদি বিরোধী প্রধান দুটি মুখই হলেন মমতা আর রাহুল। বিরোধী জোট ক্ষমতায় এলে এদের দুজনের কোনও একজনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল। আর সেকথা ভেবেই কী কৌশলে এই দুটি নাম এড়িয়ে গেলেন বিজেপি সভাপতি? নাকি, এমনিতেই যাঁর যাঁর নাম মনে এসেছে তাঁর নাম বলে দিয়েছেন তালিকা তৈরির সময়? এ প্রশ্নে উত্তর দিতে পারবেন খোদ বিজেপি সভাপতিই। তবে, তাঁর এই নয়া কটাক্ষ সামলাতে এবার বিরোধী শিবিরকে যে হিমশিম খেতে হবে তা বলাই যায়।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং