BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

আন্তর্জাতিক আদালতে বড়সড় স্বস্তি ভোডাফোনের! মকুব হয়ে গেল প্রায় ৮ হাজার কোটির কর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 25, 2020 6:04 pm|    Updated: September 25, 2020 6:30 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের বিরুদ্ধে ১৪ হাজার ২০০ কোটি টাকার কর বকেয়া সংক্রান্ত সালিশি মামলায় জয়লাভ করল ভোডাফোন গ্রুপ (Vodafone)। দু’টি ভিন্ন সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে। ট্রাইব্যুনালের রায় অনুযায়ী, ভোডাফোনের উপরে কর চাপিয়ে দিয়ে নেদারল্যান্ডসের (Netherlands) সঙ্গে বিনিয়োগ চুক্তি লঙ্ঘন করেছে  ভারত। 

প্রসঙ্গত,  ২০০৭ সালে ১১ বিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে তৎকালীন ভারতীয় টেলিকম সংস্থা হাচিসন হোয়াম্পা’র ৬৭ শতাংশ শেয়ার অধিগ্রহণ করে ভোডাফোন। সেই বাবদ ভারত সরকার প্রাথমিকভাবে ৭ হাজার ৯৯০ কোটি টাকার আয়কর চাপিয়েছিল ব্রিটিশ টেলিকম সংস্থার উপর। কিন্তু ভোডাফোন সেই কর দিতে অস্বীকার করে। সংস্থার দাবি ছিল, নিয়ম অনুযায়ী হাচিসন হোয়াম্পা’র অধিগ্রহণের জন্য সরকারকে কর দিতে বাধ্য নয় তারা। ভোডাফনের সেই দাবি খারিজ করে দেয় ভারত সরকার। বাধ্য হয়ে ব্রিটিশ টেলিকম সংস্থাটি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়। ২০১২ সালে সুপ্রিম কোর্টের রায় ভোডাফোনের পক্ষে যায়। সর্বোচ্চ আদালতও জানিয়ে দেয়, ওই অধিগ্রহণের জন্য কেন্দ্র ভোডাফোনের কাছে কোনও কর আদায় করতে পারবে না।

[আরও পড়ুন: মন্দার আশঙ্কা কমিয়েছে মোদির ‘আত্মনির্ভরতা’র ডাক, প্রশংসা আইএমএফের]

কিন্তু কেন্দ্র হার মানেনি। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের কয়েক মাস পরেই অধিগ্রহণ নিয়মে পরিবর্তন আনা হয়। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, ভোডাফোনকে বাধ্য করা হয় ওই বিপুল পরিমাণ কর পরিশোধ করতে। এবারে  ভারত সরকারের এই ‘বেআইনি’ পদক্ষেপের বিরুদ্ধে সরাসরি আন্তর্জাতিক আদালতের দ্বারস্থ হয় সংস্থাটি। সেই ২০১৪ সাল থেকে আন্তর্জাতিক আদালতে ভারত সরকার বনাম ভোডাফোন মামলাটি চলছিল। অবশেষে আদালত রায় দিল ভোডাফোনের পক্ষে। জানিয়ে দিল, এই ভাবে কর চাপিয়ে ভারত তাদের সঙ্গে নেদারল্যান্ডসের চুক্তিকে লঙ্ঘন করছে।

[আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে টাঙানো হবে অভিযুক্তের ছবি, মহিলাদের যৌন হেনস্তা রুখতে নির্দেশ যোগীর]

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে বড় আর্থিক ক্ষতির চাপ সামলাতে ভোডাফোন আইডিয়ার সঙ্গে সংযুক্তি করে নতুন ব্র্যান্ড তৈরির কথাও ঘোষণা করেছিল। ভোডাফোন গ্রুপের সিইও নিক রিড জানিয়েছিলেন, ‘‘দুই সংস্থার সংযুক্তির কাজ শেষ। এবার একটা নতুন শুরু হতে চলেছে। আমরা তাই মনে করছি Vi-কে লঞ্চ করার এটাই উপযুক্ত সময়। এমন এক সংস্থা যার মধ্যে ভোডাফোন ইন্ডিয়া ও আইডিয়ার শক্তি রয়েছে।’’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement